বুধবার   ২০ নভেম্বর ২০১৯   অগ্রাহায়ণ ৬ ১৪২৬   ২২ রবিউল আউয়াল ১৪৪১

বরগুনার আলো
ব্রেকিং:
শাহজালালে পৌঁছেছে পাকিস্তানের ৮২ টন পেঁয়াজ ক্রিকেটের সঙ্গে টেনিসও এগিয়ে যাচ্ছে : প্রধানমন্ত্রী রিফাত হত্যা : চার্জ গঠন ২৮ নভেম্বর চালের দাম বাড়ানোর চেষ্টা করলে কঠোর ব্যবস্থা: খাদ্যমন্ত্রী র‌্যাব-৮ এর অভিযানে শীর্ষ সন্ত্রাসী গ্রেফতার ৭ ডিসেম্বর বিচারবিভাগীয় সম্মেলনে উপস্থিত থাকবেন প্রধানমন্ত্রী বরিশাল বোর্ডে এসএসসিতে বৃত্তি পাচ্ছেন ১৪১৭ শিক্ষার্থী কবি সুফিয়া কামালের মৃত্যুবার্ষিকী আজ জাতীয় অর্থনীতিতে নারীর অবদান সবচেয়ে বেশি: পলক স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর সঙ্গে ট্রাক মালিকদের ফের বৈঠক আজ চক্রান্তকারীদের আইনের আওতায় আনা হবে: ওবায়দুল কাদের দেশে ফিরেছেন প্রধানমন্ত্রী লবণের দাম বাড়ালে জেল-জরিমানা : বাণিজ্যমন্ত্রী লবণ নিয়ে গুজবে কান দিবেন না: শিল্প মন্ত্রণালয় ২০২১ সালের মধ্যে ১০০০ উদ্যোক্তা তৈরিতে সহায়তা দেবে সরকার পদ্মাসেতুর প্রায় আড়াই কিলোমিটার দৃশ্যমান সেনা কল্যাণ সংস্থার চারটি স্থাপনা উদ্বোধন মালিতে জঙ্গি হামলায় ২৪ সেনা নিহত কন্যা সন্তানের জনক হলেন তামিম কেন্দ্রীয় ১৪ দলের সভা আজ
৪৪৮

ভোরের পাখি জানান দেবে ভ্যালেন্টাইন’ডের সঙ্গী কেমন হবে!

প্রকাশিত: ১৩ ফেব্রুয়ারি ২০১৯  

রাত পোহালেই বিশ্ব ভালবাসা দিবস। আর এ দিবসে কেন্দ্র করে অনেক পরিল্পনা করে রেখেছেন প্রেমিক-প্রেমিকারা। তবে জ্যোতিষশাস্ত্র বলছে ভালবাসা দিবসে ভোরবেলার পাখি দেখেই জেনে নেয়া যায় জীবনসঙ্গী কেমন হবে।

পাখি নিয়ে এই ভবিষ্যদ্বাণী করা পাশ্চত্য লক্ষণ শাস্ত্রের দু’হাজার বছরের পর্যবেক্ষণের ফল। দেখে নেয়া যাক সেই ফলগুলি-

(১)পায়রা- পায়রা দেখলে হবু স্বামী বিদেশ ফেরত হতে পারে।

(২) চড়ুই- ভোরবেলা ঘুম থেকে উঠে চড়ুই দেখলে বোঝায়, তার হবু স্বামী জমি সংক্রান্ত কোনো কাজের সঙ্গে যুক্ত থাকবে। কৃষিজীবী, মালি, নার্সারির মালিকও হতে পারে।

(৩) পাতিহাঁস- ভোরবেলা পাতিহাঁস দেখলে বোঝায়, তার বিবাহিত জীবন হবে মধ্যবিত্ত, তবে সুখের জীবন হবে। সেখানে গৃহসুখ বিরাজ করবে। স্বামী তার হাত ধরে সংসার জীবন পরিচালনা করবে।

(৪) রাজহাঁস- রাজহাঁস দেখলে বোঝায় তার হবু স্বামী কমিউনিকেশনে বা মাসমিডিয়ার বা শিল্প সংক্রান্ত কোনো কাজ যেমন সাংবাদিকতা, মার্কেটিং, শিল্পী, লেখক, নাটক, শিক্ষকতার সঙ্গে যুক্ত থাকবে।

(৫) ময়ূর- হবু স্বামী বড় সরকারি আমলা বা বড় কোন কাজে যুক্ত থাকতে পারেন। তবে স্বভাবে তার মধ্যে অহংকারভাব থাকবে।

(৭) পেঁচা- যদি কোন বিবাহযোগ্য কুমারী কন্যা ভালেন্টাইন ডের ভোরবেলা ঘুম থেকে উঠে পেঁচার দর্শন পায়, তা হলে তা খুব শুভ। তার মানে তার হবু স্বামী হবে গবেষক, রিসার্চ স্কলার, বিজ্ঞানী বা এই জাতীয় কর্মের সঙ্গে যুক্ত।

(৮) বক বা মাছরাঙ্গা- যে কুমারী কন্যা এই ধর‌নের পাখির দেখা পায়, তবে তার হবু স্বামী আগে থেকে অনেক টাকাকড়ি করে ফেলেছে বা পূর্বপুরুষ থেকে উত্তারাধিকারসূত্রে পেয়েছে। যার ফলে তার দাম্পত্য পরবর্তী জীবন সুখের হবে।

(৯) রবিন- কোনো কুমারী ভোরবেলা যদি রবিন পাখি দেখে, তবে তার হবু স্বামী হয় নাবিক, মেরিন ইঞ্জিনিয়ার বা জাহাজে কাজ করা কেউ। স্টিমার বা লঞ্চ চালক, এমনকি নৌসেনাও হতে পারে।

(১০) কেউ যদি কোনো পাখিকে ভোরবেলা শিকার করতে দেখে, তা হলে বোঝায় তার হবুস্বামী রাজনীতির লোক বা ব্যবসায়ী ব্যাক্তিত্ব অথবা নেতা হতে পারে।

(১১) কাঠঠোকরা: কাঠঠোকরা দেখলে ধরে নিতে হবে এ জীবনে তার বিয়ে হবে না।