শনিবার   ১৭ আগস্ট ২০১৯   ভাদ্র ২ ১৪২৬   ১৫ জ্বিলহজ্জ ১৪৪০

বরগুনার আলো
ব্রেকিং:
বোর্ডের কাছে দুই মাসের সময় চাইলেন মাশরাফি মোটরসাইকেলসহ দুই চোর গ্রেফতার ডেঙ্গুজ্বর থেকে মুক্তি পেতে ‘স্টপ ডেঙ্গু’ অ্যাপ চালু দেশব্যাপী সিরিজ বোমা হামলার ১৪ বছর আজ মেসিহীন হার দিয়ে লা লিগা শুরু বার্সার আজ থেকে হজের ফিরতি ফ্লাইট শুরু কবি শামসুর রাহমানের ১৩তম মৃত্যুবার্ষিকী আজ সোমবার ঢাকায় আসছেন ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রী কবিরা গুনাহকারীরা কি চিরকাল জাহান্নামে থাকবে? মিরপুরে বস্তির আগুন নিয়ন্ত্রণে ২০ ইউনিট ১৯ হাজার ৪০০ পিস ইয়াবাসহ আটক দুই বাড়তি ভাড়া আদায়ের অপরাধে ১৭ পরিবহনকে জরিমানা ‘সবসময় যারা আমাদের বাড়িতে ঘোরাঘুরি করতো তারাই সেই খুনি’   হাতঘড়ির ফ্যাশন ফিরে এসেছে দেশে শেখ হাসিনার জীবনই এখন বেশি ঝুঁকিপূর্ণ : কাদের বিশ্বের আট গুরুত্বপূর্ণ শহরে ‘মুজিববর্ষ’ উদযাপন করা হবে বিশ্বকাপ বাছাইয়ের জন্য প্রাথমিক দল ঘোষণা বাংলাদেশের জিরো টলারেন্স নীতিতে জঙ্গি দমন সম্ভব হয়েছে: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী রবি শাস্ত্রীই কোচের দায়িত্বে থাকছেন: সিএসি মুক্তিযুদ্ধে বিজয়ের প্রতিশোধ নিতেই বঙ্গবন্ধু হত্যা: প্রধানমন্ত্রী
১৩

মঙ্গলে নভোচারীরা স্মৃতিশক্তি হ্রাস ও বিষণ্নতায় আক্রান্ত হবেন!

প্রকাশিত: ৮ আগস্ট ২০১৯  

আগামী দুই দশকের মধ্যে নভোচারীদের মঙ্গলে যাত্রা শুরুর কথা। এরই মধ্যে তাদের শারীরিক সমস্যা নিয়ে আশঙ্কার কথা জানিয়েছেন মার্কিন বিজ্ঞানীরা। কারণ সাম্প্রতিক এক সমীক্ষায় নভোচারীদের মঙ্গল থেকে ফিরে আসার পর স্মৃতিশক্তি হারানো, এমনকি বিষণ্নতায় ডুবে যাওয়ার কথা বলা হয়েছে। খবর- ডেইলি সাবা।

যুক্তরাষ্ট্রের ক্যালিফোর্নিয়া ইউনিভার্সিটির একদল গবেষকদের মতে, নভোচারীরা কোরোনিকের প্রভাব ছাড়াও নিম্ন মাত্রার বিকিরণে এ ধরনের শারীরিক সমস্যায় ভুগবেন। ইঁদুরের ওপর করোনিক ও বিকিরণ কি প্রভাব ফেলে, তা দেখেই নভোচারীদের এ ধরনের আশঙ্কার কথা ব্যক্ত করেছেন। 

ইনিউরো ওয়েবসাইটে প্রকাশিত এক প্রতিবেদনে জানানো হয়েছে, বিজ্ঞানীরা ৬ মাস ধরে ইঁদুরের ওপর পরীক্ষা-নিরীক্ষা চালিয়েছেন। এতে তারা দেখেছেন, এর মস্তিষ্কে এমন নেতিবাচক প্রভাব পড়ে যা স্মৃতিশক্তির বেশ ক্ষতি করে। মস্তিষ্কের যে অংশ শিখতে ও মনে রাখতে সাহায্য করে তা মঙ্গলের পরিবেশে বিঘ্নিত হয়। নভোচারীদেরও অন্তত ছয় মাস মঙ্গল অভিযানে থাকতে হবে।

এ গবেষণার মাধ্যমে নভোচারীদের স্বাস্থ্যের ঝুঁকি সম্পর্কে সজাগ করেছেন গবেষকরা। মানব মস্তিষ্কের ‘আমিগডালা’ নামে একটি অংশ কোনো কিছু মনে করতে প্রত্যক্ষভাবে সাহায্য করে, যা বিকিরণে ক্ষতিগ্রস্ত হবে। কিন্তু বিজ্ঞানীরা এসব ক্ষতিকর উপসর্গ থেকে নভোচারীদের রক্ষার উপায় এখনো বের করতে পারেননি। 

এর ফলে নভোচারীরা মঙ্গলগ্রহের বিশেষ পরিবেশ থেকে যখন পৃথিবীতে ফিরবেন, তখন তারা এক ভিন্ন পরিবেশে এসে কার্যত বেশ কিছু স্বাস্থ্যজনিত ক্ষতির মোকাবিলা করবেন।