• বৃহস্পতিবার   ০৬ আগস্ট ২০২০ ||

  • শ্রাবণ ২২ ১৪২৭

  • || ১৬ জ্বিলহজ্জ ১৪৪১

বরগুনার আলো
ব্রেকিং:
শেখ হাসিনাকে জাপানের প্রধানমন্ত্রী আবের ফোন করোনায় আরও ৩৩ মৃত্যু, শনাক্ত ২৬৫৪ কামাল বেঁচে থাকলে সমাজকে অনেক কিছু দিতে পারতো: শেখ হাসিনা সাবেক সেনা কর্মকর্তা সিনহার মাকে প্রধানমন্ত্রীর ফোন করোনায় ২৪ ঘণ্টায় ৫০ মৃত্যু, শনাক্ত ১৯১৮ করোনায় আরও ৪৮ মৃত্যু, শনাক্ত ২৬৯৫ প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশে অসচ্ছল গর্ভবতী নারীরা পাবে চার হাজার টাকা ঈদ-বন্যা ঘিরে করোনা সংক্রমণের হার বাড়তে পারে: স্বাস্থ্যমন্ত্রী ট্রাফিক পুলিশ বক্সে বিস্ফোরণ, ‘নব্য জেএমবির সদস্য’ আটক করোনায় আরও ৩৫ মৃত্যু, শনাক্ত ৩০০৯ ১২ কোটি টাকা আত্মসাত করে গ্রেফতার যমুনা ব্যাংকের ম্যানেজার থানায় বিস্ফোরণে জঙ্গি সংশ্লিষ্টতা নেই : পুলিশ ২৪ ঘণ্টায় করোনা শনাক্ত ২৯৬০, মৃত্যু ৩৫ হাতের তালু দিয়ে আকাশ ঢাকা যায় না: বিএনপিকে কাদের দেশে একদিনে ৩৭ মৃত্যু, আক্রান্ত ২৭৭২ সাবরিনার অবৈধ সম্পদ অনুসন্ধানে ৪ জনকে দুদকে জিজ্ঞাসাবাদ করোনায় ২৪ ঘণ্টায় মৃত্যু ৫৪, শনাক্ত ২২৭৫ কোরবানি পশুর চামড়ার দাম নির্ধারণ করোনায় ২৪ ঘণ্টায় ৩৮ মৃত্যু, শনাক্ত ২৫২০ তিন দিনের রিমান্ডে শারমিন
৬১

মহাসাগরে বিপদ : দ্রুত ফুরিয়ে যাচ্ছে অক্সিজেন বাড়ছে তাপমাত্রা

বরগুনার আলো

প্রকাশিত: ৮ ডিসেম্বর ২০১৯  

জলবায়ু পরিবর্তন এবং দূষণের ফলে মহাসাগরের অক্সিজেন দ্রুত ফুরিয়ে যাচ্ছে, বাড়ছে তাপমাত্রা। এর ফলে মহাসাগরের অনেক প্রজাতির মাছ ও জলজ প্রাণী অস্তিত্ব সংকটের মুখে পড়ছে। আন্তর্জাতিক পরিবেশ সংরক্ষণবিষয়ক সংস্থা আইইউসিএনের দীর্ঘ গবেষণা প্রতিবেদনের বরাত দিয়ে এ তথ্য জানিয়েছে বিবিসি।

কয়েক দশক ধরে মহাসাগরে পুষ্টির পরিমাণ উল্লেখ্যযোগ্যহারে কমে আসছে বলে জানানো হলেও এবার গবেষকরা বলছেন, জলবায়ু পরিবর্তন মহাসাগরে অক্সিজেনের সংকটকে আরও গুরুতর করে তুলছে।

আইইউসিএনের গবেষণা প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ১৯৬০ সালে বিশ্বের বিভিন্ন মহাসাগরের ৪৫টি স্থানে অক্সিজেনের স্বল্পতা পরিলক্ষিত হয়েছিল। কিন্তু বর্তমানে এই সংকট বিভিন্ন মহাসাগরের প্রায় ৭০০টি স্থানে পাওয়া গেছে।

গবেষকরা বলছেন, মহাসাগরে অক্সিজেনের এই স্বল্পতা টুনা মাছ, মারলিন এবং হাঙ্গরসহ বিভিন্ন প্রজাতির জলজ প্রাণীর জন্য হুমকি তৈরি করেছে।

খামার ও শিল্প-প্রতিষ্ঠানের নাইট্রোজেন এবং ফসফরাস জাতীয় রাসায়নিক পদার্থের প্রবাহ সমুদ্রে দীর্ঘদিন ধরে হুমকি সৃষ্টি করছে। সমুদ্রের পানিতে অক্সিজেনের মাত্রা হ্রাসের জন্য প্রাথমিকভাবে এসব রাসায়নিক পদার্থ দায়ী; বিশেষ করে উপকূলীয় এলাকায়। তবে সাম্প্রতিক বছরগুলোতে জলবায়ু পরিবর্তনের হুমকি অতীতের তুলনায় বেড়েছে।

কার্বনডাই অক্সাইড নিঃসরণের পরিমাণ বৃদ্ধি পাওয়ায় গ্রিনহাউসের প্রভাব বাড়ছে। ফলে তাপ শোষণ করছে মহাসাগর। বিপরীতে এই উষ্ণ পানিতে অক্সিজেনের পরিমাণ কমছে। ১৯৬০ থেকে ২০১০ সালের মাঝে মহাসাগরে দ্রবীভূত গ্যাসের পরিমাণ ২ শতাংশ কমেছে। তবে মহাসাগরে গ্যাসের পরিমাণ কমে যাওয়ার এই রেকর্ড বৈশ্বিক গড় নয়। গ্রীষ্মমণ্ডলীয় কিছু অঞ্চলে ৪০ শতাংশ পর্যন্তও কমেছে।

বরগুনার আলো
আন্তর্জাতিক বিভাগের পাঠকপ্রিয় খবর