সোমবার   ২৬ আগস্ট ২০১৯   ভাদ্র ১০ ১৪২৬   ২৪ জ্বিলহজ্জ ১৪৪০

বরগুনার আলো
ব্রেকিং:
বঙ্গবন্ধুর আদর্শ থেকে শিক্ষা নিতে হবে : স্পিকার ‘মুখরোচক কথায় দালালের খপ্পরে পড়ে বিদেশ যাবেন না’- প্রধানমন্ত্রী আজ কুমিল্লায় পারিবারিক কবরস্থানে মোজাফফর আহমদের দাফন অ্যামাজন পুড়ছে, আমরা যেন না পুড়ি: পরিবেশমন্ত্রী জেলা সরকার এখন সময়ের দাবি: পররাষ্ট্রমন্ত্রী ওএসডি হচ্ছেন জামালপুরের সেই ডিসি রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসনে বিভ্রান্তি ছড়ানো হচ্ছে: দীপু মনি সর্বস্তরের মানুষের শ্রদ্ধায় সিক্ত অধ্যাপক মোজাফফর বরগুনায় উচ্ছেদ অভিযানে জেলা প্রশাসন মোজাফফর আহমদের মরদেহে রাষ্ট্রপতি-প্রধানমন্ত্রীর শ্রদ্ধা হাইভোল্টেজ ম্যাচে লড়বে লিভারপুল-আর্সেনাল গ্রেনেড হামলার মাস্টারমাইন্ডদের সর্বোচ্চ শাস্তি হবে- কাদের আইভি রহমানের সমাধিতে আওয়ামী লীগের শ্রদ্ধা আইভী রহমানের ১৫তম মৃত্যুবার্ষিকী আজ মোজাফফর আহমদের মৃত্যুতে প্রধানমন্ত্রীর শোক ৯০ ভাগ ডেঙ্গু রোগী বাড়ি ফিরেছে: স্বাস্থ্য অধিদপ্তর রোহিঙ্গা সমস্যা সমাধানে সরকার হাল ছাড়েনি: ওবায়দুল কাদের ২৩ আগস্টের ঘটনায় সেনাবাহিনী দায়ী নয়-ঢাবি উপাচার্য যে করেই হোক রোহিঙ্গাদের মিয়ানমারে ফেরত পাঠাবোই: পররাষ্ট্রমন্ত্রী মুক্তিযোদ্ধাদের চূড়ান্ত তালিকা বিজয় দিবসের আগেই: মন্ত্রী
১৯

মাছ খেলেই কমবে শ্বাসকষ্ট!

প্রকাশিত: ৭ আগস্ট ২০১৯  

অ্যাজমার সমস্যায় বড় ছোট সবাই আক্রান্ত হয়ে থাকে। জানেন কি? পৃথিবী জুড়ে ৩০ কোটি মানুষ অ্যাজমায় আক্রান্ত, যা ২০২৫ সাল নাগাদ ৪০ কোটিতে পৌঁছাবে। বাংলাদেশে এ রোগে আক্রান্তের সংখ্যা প্রায় ১ কোটি ১০ লাখ। যার মধ্যে ৪০ লাখই শিশু। শ্বাসকষ্ট বা হাঁপানি জনিত রোগে কাবু হয়ে অনেকেই হোমিওপ্যাথি কিংবা অ্যালোপ্যাথি সব ধরনের ওষুধ খেয়ে থাকেন। 

তবুও সম্পূর্ণভাবে সুস্থ হওয়ার সংখ্যা খুবই কম! ছোট থেকে বড় কাউকেই রেহাই দেয় না রোগটি। কেউ কেউ আবার অনেক কম বয়সেই রোগটিতে আক্রান্ত হয়। কিন্তু, ঘরোয়া উপায়েই মিলতে পারে সমাধান। খাদ্যতালিকাতে যোগ করতে পারেন স্যামন, ট্রাউট কিংবা সার্ডিনের মত সামুদ্রিক মাছগুলোকে।

সম্প্রতি, বিষয়টি নিয়ে গবেষণা করেন অস্ট্রেলিয়ার গবেষকরা। যেখানে দেখা গিয়েছে, স্যামন, ট্রাউট, সার্ডিনের মধ্যে থাকে বিশেষ কিছু উপাদান। যেগুলো বাচ্চাদের হাপাঁনির প্রবণতাকে অনেকাংশে কম করে। তাই, এখনই খাদ্য তালিকাতে এই মাছগুলো রাখুন।

বিজ্ঞানীরা জানিয়েছেন, অতিরিক্ত ফ্যাট, চিনি এবং লবণজাতীয় খাবার শিশু শরীরকে (হাঁপানিতে আক্রান্ত) সরাসরি প্রভাবিত কর। কিন্তু, এখন এটাও প্রমাণিত স্বাস্থ্যকর খাদ্যতালিকা এবং সঠিক উপাদান কমাবে পারে শিশুদের শ্বাসকষ্টজনিত সমস্যাকে।

মোট ৬৪ জন হাঁপানিতে আক্রান্ত বাচ্চার উপর পরীক্ষাটি করা হয়। যেখানে দুটি ভাগে ভাগ করে নিয়ে পরীক্ষাটি করা হয়। প্রথমের গ্রুপটিকে নির্দিষ্ট সময়ের জন্য বিশেষ ডায়েট দেয়া হয়। খাওয়ানো হয় প্রচুর তেলযুক্ত মাছ।

বাকিদের সাধারণ খাবার দেয়া হয়। যারা বিশেষ তেলযুক্ত মাছের ডায়েটটি ফলো করেছিল তাদের মধ্যে এসেছে পরিবর্তন। তেলযুক্ত সামুদ্রিক মাছগুলোর মধ্যে থাকে ওমেগা-৩। যেটি অনেকাংশে কমায় শিশুদের হাঁপানির প্রবণতাকে।