সোমবার   ০৯ ডিসেম্বর ২০১৯   অগ্রাহায়ণ ২৪ ১৪২৬   ১১ রবিউস সানি ১৪৪১

বরগুনার আলো
ব্রেকিং:
প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে সাক্ষাৎ সালমান-ক্যাটরিনার বঙ্গবন্ধুকে নিয়ে সনু নিগমের গান এনডিসি গ্র্যাজুয়েটদের জ্ঞান উন্নয়নের কাজে লাগানোর আহ্বান ভিপি নুরকে কাজে লাগিয়ে চলছে বিএনপির অপরাজনীতি! চাঞ্চল্যকর মামলা নিবিড় তদারকির নির্দেশ আইজিপির বঙ্গবন্ধু বিপিএলের উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী মাছ দিয়ে পদ পাওয়া যাচ্ছে সিংড়া বিএনপিতে, কমিটি নিয়ে অসন্তোষ চরমে! মাদক সেবনকালে নয়াপল্টন এলাকা থেকে ৭ বিএনপি কর্মী আটক! পরকীয়ায় ব্যস্ত খালেদার আইনজীবী, জামিনে মনোযোগ নেই! বরগুনায় তিন দিনব্যাপি কৃষি প্রযুক্তি মেলা শুরু নারীরা বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের সোনার বাংলা গড়ার লক্ষ্যে এগিয়ে যাবেন  নারীর স্বনির্ভরতা অর্জনে সকলকে একযোগে কাজ করতে রাষ্ট্রপতির আহবান সচিবালয়ের আশপাশে হর্ন বাজালেই জেল-জরিমানা পরস্পরের সালাম শুভেচ্ছা বিনিময়ের শ্রেষ্ঠ প্রথা মানবাধিকার দিবসে প্রকাশ্যে আসছেন এসিডদগ্ধ দীপিকা দেশের প্রথম আইটি বিজনেস ইনকিউবেটর নির্মাণকাজের উদ্বোধন   শুরু হলো বঙ্গবন্ধু বিপিএলের উদ্বোধনী অনুষ্ঠান বিজয়ীদের চলচ্চিত্র পুরস্কার তুলে দিলেন প্রধানমন্ত্রী বিপিএল উদ্বোধনীতে সালমান খান ও ক্যাটরিনা কাইফ মঞ্চ প্রস্তুত, অপেক্ষা কিছুক্ষণের
৬১

মিয়ানমারকে ন্যায়বিচার নিশ্চিত করার আহ্বান জাতিসংঘের

প্রকাশিত: ১০ সেপ্টেম্বর ২০১৯  

মিয়ানমার সরকারকে ন্যায়বিচার নিশ্চিত করতে এবং মিয়ানমারের গণতন্ত্র উত্তরণ সুসংহত করার জন্য আন্তর্জাতিক উদ্যোগগুলোকে সহযোগিতা করার আহ্বান জানিয়েছেন জাতিসংঘের মানবাধিকার বিষয়ক হাইকমিশনার মিশেল বাশেলেট।

জেনেভায় মানবাধিকার কাউন্সিলের ৪২ তম অধিবেশনে তিনি বলেন, সেনা কর্তৃক মিয়ানমারে হত্যা এবং যৌন সহিংসতাসহ ১০ লাখ রোহিঙ্গার বাস্তুচ্যুতির দুই বছর হয়ে গেছে। রাখাইন রাজ্যে তথাকথিত আরাকন আর্মি এবং তাত্মাদোর মধ্যে আরেকটি দ্বন্দ্ব, মানবাধিকার লঙ্ঘন ও বাস্তুচ্যুতির আরেকটি তীব্র লড়াইয়ের মুখোমুখি হচ্ছে।

তিনি বলেন, এটি জাতিগতভাবে রাখাইন এবং রোহিঙ্গা উভয়ের উপরই প্রভাব ফেলেছে। এসব বিষয় শরণার্থী এবং অভ্যন্তরীণভাবে বাস্তুচ্যুতদের ফিরে যেতে আরও কঠিন করে তুলবে।

মিশেল বাশেলেট আরও বলেন, শান রাজ্যে সংঘর্ষ সম্প্রতি বেড়ে যাওয়া ও দীর্ঘদিনের দ্বন্দ্বও বাস্তুচ্যুতি এবং মানবিক বিপর্যয়ের আরেকটি কারণ, যা স্থিতিশীল অবস্থাকে ফিরিয়ে আনার প্রক্রিয়াকে খর্ব করবে।

এই কাউন্সিল অধিবেশন তথ্য অনুসন্ধান মিশনের চূড়ান্ত প্রতিবেদন শুনবে এবং মিয়ানমারজুড়ে যেসব সহিংসতা হয়েছে তার ভয়াবহতা ও মাত্রার পরিষ্কার চিত্র তুলে ধরবে।

এই বিভাগের আরো খবর