শুক্রবার   ২০ সেপ্টেম্বর ২০১৯   আশ্বিন ৪ ১৪২৬   ২০ মুহররম ১৪৪১

বরগুনার আলো
ব্রেকিং:
ছাত্রলীগের পর যুবলীগকে ধরেছি : প্রধানমন্ত্রী ছাত্রলীগকে সংযমের সঙ্গে চলার নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর প্রধানমন্ত্রীর সাথে যুক্তরাজ্য প্রতিনিধি দলের সাক্ষাত অবৈধ জুয়ার আড্ডা বা ক্যাসিনো চলতে দেওয়া হবে না: ডিএমপি কমিশনার পটুয়াখালীতে ধর্ষণ মামলার বাদীকে পেটানো প্রধান আসামিসহ গ্রেপ্তার-৪ শাহজালালে বিমানের জরুরি অবতরণ শুক্রবার নিউইয়র্ক যাচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী রাজধানীর তিনটি ক্যাসিনোতে র‌্যাবের অভিযান জিম্বাবুয়েকে হারিয়ে ত্রিদেশীয় সিরিজের ফাইনালে বাংলাদেশ টস হেরে ব্যাটিং এ বাংলাদেশ রিফাত হত্যা : পলাতক ৯ জনের বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা রোহিঙ্গা সংকট : ত্রিপক্ষীয় বৈঠকে বসছে চীন-মিয়ানমার-বাংলাদেশ আমাদের কাজই হচ্ছে জনগণকে সেবা দেয়া : প্রধানমন্ত্রী রোহিঙ্গা ইস্যুতে চীন বাংলাদেশের পক্ষে: মোমেন আজ গাজীপুর যাবেন প্রধানমন্ত্রী পরিবেশ দূষণ: ৪ প্রতিষ্ঠানকে কোটি টাকা জরিমানা স্বর্ণজয়ী রোমান সানার মায়ের চিকিৎসার দায়িত্ব নিলেন প্রধানমন্ত্রী আরো দু’টি বোয়িং বিমান কেনার ইঙ্গিত দিলেন প্রধানমন্ত্রী কারাবন্দির তথ্য ডাটাবেজে থাকবে: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অপ্রতিরোধ্য গতিতে এগিয়ে যাচ্ছে দেশ: প্রধানমন্ত্রী

মিয়ানমারকে ন্যায়বিচার নিশ্চিত করার আহ্বান জাতিসংঘের

প্রকাশিত: ১০ সেপ্টেম্বর ২০১৯  

মিয়ানমার সরকারকে ন্যায়বিচার নিশ্চিত করতে এবং মিয়ানমারের গণতন্ত্র উত্তরণ সুসংহত করার জন্য আন্তর্জাতিক উদ্যোগগুলোকে সহযোগিতা করার আহ্বান জানিয়েছেন জাতিসংঘের মানবাধিকার বিষয়ক হাইকমিশনার মিশেল বাশেলেট।

জেনেভায় মানবাধিকার কাউন্সিলের ৪২ তম অধিবেশনে তিনি বলেন, সেনা কর্তৃক মিয়ানমারে হত্যা এবং যৌন সহিংসতাসহ ১০ লাখ রোহিঙ্গার বাস্তুচ্যুতির দুই বছর হয়ে গেছে। রাখাইন রাজ্যে তথাকথিত আরাকন আর্মি এবং তাত্মাদোর মধ্যে আরেকটি দ্বন্দ্ব, মানবাধিকার লঙ্ঘন ও বাস্তুচ্যুতির আরেকটি তীব্র লড়াইয়ের মুখোমুখি হচ্ছে।

তিনি বলেন, এটি জাতিগতভাবে রাখাইন এবং রোহিঙ্গা উভয়ের উপরই প্রভাব ফেলেছে। এসব বিষয় শরণার্থী এবং অভ্যন্তরীণভাবে বাস্তুচ্যুতদের ফিরে যেতে আরও কঠিন করে তুলবে।

মিশেল বাশেলেট আরও বলেন, শান রাজ্যে সংঘর্ষ সম্প্রতি বেড়ে যাওয়া ও দীর্ঘদিনের দ্বন্দ্বও বাস্তুচ্যুতি এবং মানবিক বিপর্যয়ের আরেকটি কারণ, যা স্থিতিশীল অবস্থাকে ফিরিয়ে আনার প্রক্রিয়াকে খর্ব করবে।

এই কাউন্সিল অধিবেশন তথ্য অনুসন্ধান মিশনের চূড়ান্ত প্রতিবেদন শুনবে এবং মিয়ানমারজুড়ে যেসব সহিংসতা হয়েছে তার ভয়াবহতা ও মাত্রার পরিষ্কার চিত্র তুলে ধরবে।

এই বিভাগের আরো খবর