• মঙ্গলবার   ০২ জুন ২০২০ ||

  • জ্যৈষ্ঠ ১৯ ১৪২৭

  • || ১০ শাওয়াল ১৪৪১

বরগুনার আলো
ব্রেকিং:
করোনা বিশ্ব বদলে দিলেও বিএনপিকে বদলাতে পারেনি: কাদের করোনায় ২৪ ঘণ্টায় ৩৭ মৃত্যু, শনাক্ত ২৯১১ সীমিত আকারে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলার নির্দেশনা খাদ্য উৎপাদন আরও বাড়াতে সব ধরনের প্রচেষ্টা চলছে: কৃষিমন্ত্রী সারা দেশকে লাল, সবুজ ও হলুদ জোনে ভাগ করা হবে: স্বাস্থ্যমন্ত্রী গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে ২৩৮১ জনের করোনা শনাক্ত পুরোপুরি স্বাস্থ্যবিধি মেনে ট্রেন চলছে: রেলমন্ত্রী দেশে গত ২৪ ঘণ্টায় ২৫৪৫ জনের করোনা শনাক্ত, মৃত্যু ৪০ জন বাস ভাড়া যৌক্তিক সমন্বয়, প্রজ্ঞাপন আজই: ওবায়দুল কাদের এখনই শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলবো না: প্রধানমন্ত্রী ভিডিও কনফারেন্সে এসএসসির ফল প্রকাশ করলেন প্রধানমন্ত্রী আগামীকাল ১২টার পরিবর্তে ১১টায় প্রকাশ হবে এসএসসির ফল করোনায় ২৪ ঘণ্টায় ২৮ জনের মৃত্যু, শনাক্ত ১৭৬৪ পদ্মাসেতুর সাড়ে ৪ কি.মি. দৃশ্যমান, বসল ৩০তম স্প্যান পদ্মা সেতুর ৩০তম স্প্যান বসছে আজ একদিনে সর্বোচ্চ আড়াই হাজার শনাক্ত, মৃত্যু ২৩ জনের বিকেল ৪টার মধ্যে বন্ধ করতে হবে দোকান-শপিংমল দেশে ২৪ ঘণ্টায় আক্রান্ত ২ হাজার ছাড়ালো, মৃত্যু ১৫ স্বাস্থ্যবিধি মেনে ৩১ মে থেকে গণপরিবহন চালুর সিদ্ধান্ত দেশে একদিনে নতুন শনাক্ত ১৫৪১, মৃত্যু ২২
২৯০

মুখ খুলেছেন খালেদ ও শামীম,ফাঁসতে পারেন ১৫ বিএনপির নেতা

বরগুনার আলো

প্রকাশিত: ১ অক্টোবর ২০১৯  

বিএনপি ও যুবদলের অন্তত ১৫ নেতার সঙ্গে যুবলীগের বহিষ্কৃত ওই দুই নেতার সম্পর্ক ছিলো। গ্রেপ্তার হওয়া খালেদ মাহমুদ ভূঁইয়া ও  জি কে শামীম বিএনপি ও যুবদল নেতাদের মামলা চালানোর খরচ দিতেন।  আর মোহামেডান স্পোর্টিং ক্লাবের ডিরেক্টর ইন চার্জ লোকমান হোসেনও বিএনপির ওই নেতাদের দেখেশুনে রাখতেন। 

র‌্যাবের গোয়েন্দা শাখার এক কর্মকর্তা বলেন, মতিঝিল ক্লাবপাড়াসহ যেসব স্থানে ক্যাসিনো ছিলো সেসব স্থান থেকে ওঠানো টাকার ভাগ-বাটোয়ারা হতো। ওই টাকার একটি অংশ যেত বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের নেতাকর্মী ও আইন প্রয়োগকারী সংস্থার সদস্যদের কাছে। তা ছাড়া বিএনপি ও যুবদলের শীর্ষ পর্যায়ের নেতাদের অর্থ দিতেন খালেদ মাহমুদ ও জি কে শামীম।

পাশাপাশি যুবলীগ দক্ষিণের শীর্ষ এক নেতার সঙ্গেও বিএনপি ও যুবদল নেতাদের যোগাযোগ ছিলো। বিএনপি ও যুবদলের ওই নেতাদের তালিকা প্রস্তুত হচ্ছে। নির্দেশ পেলে তাদের জিজ্ঞাসাবাদ করা হবে। হুন্ডির মাধ্যমে জি কে শামীম ও খালেদ মাহমুদের দেশের বাইরে অর্থ পাচারের তথ্য মিলেছে বলে ওই কর্মকর্তা জানান।

র‌্যাবের আইন ও গণমাধ্যম শাখার পরিচালক লে. কর্নেল সারোয়ার বিন কাসেম বলেন, ‘দ্বিতীয় দফা রিমান্ডে খালেদকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে। পাশাপাশি জি কে শামীমকেও জিজ্ঞাসাবাদ অব্যাহত আছে। তাদের দেয়া সব তথ্য খতিয়ে দেখা হচ্ছে।’

র‌্যাবের এক কর্মকর্তা বলেন, ‘টেন্ডারবাজি ও ক্যাসিনো সাম্রাজ্যের তিন মূর্তিমান আতঙ্ক জি কে শামীম, খালেদ ও কালা ফিরোজকে মুখোমুখি করে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে। জিজ্ঞাসাবাদে অনেক নতুন তথ্য দিয়েছেন তারা। ক্যাসিনো ও টেন্ডারবাজি করে তারা কত টাকার মালিক হয়েছেন সেই তথ্যও পাওয়া যাচ্ছে। পাশাপাশি টেন্ডারবাজি ও ক্যাসিনোর টাকার কমিশন কারা পেতেন সেই তথ্যও মিলছে। এমনকি বিএনপির কয়েকজন সাবেক মন্ত্রী ও সংসদ সদস্যের নাম বলেছেন তারা।

তদন্তকারী কর্মকর্তারা জানান, মতিঝিলের এক হুন্ডি ব্যবসায়ীর মাধ্যমে খালেদ মাহমুদ ও জি কে শামীম হুন্ডি করে টাকা বিদেশে পাঠাতেন। তারা হুন্ডি কারবারিদের নাম প্রকাশ করেছেন।

বরগুনার আলো
রাজনীতি বিভাগের পাঠকপ্রিয় খবর