শনিবার   ২৯ ফেব্রুয়ারি ২০২০   ফাল্গুন ১৬ ১৪২৬   ০৫ রজব ১৪৪১

বরগুনার আলো
ব্রেকিং:
খালেদা জিয়ার জামিন আবেদন খারিজ বঙ্গবন্ধু অসাম্প্রদায়িক বাংলাদেশ দিয়েছেন : স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী মশা যেন ভোট খেয়ে না ফেলে, নতুন মেয়রদের প্রধানমন্ত্রী তাপস-আতিককে শপথ পড়ালেন প্রধানমন্ত্রী আমার কাছে রিপোর্ট আসছে, কাউকে ছাড়ব না : প্রধানমন্ত্রী দ্বিতীয় কিস্তির ২৭ কোটি ৬০ লাখ টাকা বিটিআরসিকে দিল রবি মাধ্যমিক পর্যন্ত বিজ্ঞান বাধ্যতামূলকের নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর ওপর নজরদারি বাড়াতে বললেন প্রধানমন্ত্রী বরগুনায় ওয়ারেন্ট ভুক্ত দুই আসামী গ্রেপ্তার আজকের স্বর্ণপদক প্রাপ্তরা ২০৪১ এর বাংলাদেশ গড়ার কারিগর যে কোন অর্জনের পেছনে দৃঢ় মনোবল এবং আত্মবিশ্বাস গুরুত্বপূর্ণ ‘প্রধানমন্ত্রী স্বর্ণপদক’ পেলেন ১৭২ শিক্ষার্থী আজ ১৭২ শিক্ষার্থী প্রধানমন্ত্রী স্বর্ণপদক পাচ্ছেন অশান্ত দিল্লিতে কারফিউ, নিহত ১৭ পিকে হালদারসহ ২০ জনের ব্যাংক হিসাব জব্দের আদেশ বহাল ৭ মার্চ জাতীয় দিবস ঘোষণা করে হাইকোর্টের রায় ১৪ দিনেই ভালো হচ্ছেন করোনা রোগী : আইইডিসিআর মুশফিক-নাঈমে ইনিংস ব্যবধানে দূর্দান্ত জয় টাইগারদের পিলখানা ট্র্যাজেডি দিবস আজ রিফাত হত্যা মামলার আসামি সিফাতের বাবা গ্রেফতার
১৩

মেলা থেকে কেনা বইয়ের যত্ন নিবেন যেভাবে

বরগুনার আলো

প্রকাশিত: ১৩ ফেব্রুয়ারি ২০২০  

অমর একুশে গ্রন্থমেলায় বইয়ের বিকিকিনি জমে উঠেছে। মেলায় পাওয়া যাচ্ছে সব বয়সীদের বই। মেলায় প্রতিদিনই বিক্রি হচ্ছে প্রচুর বই। কথায় বলে,বইয়ের চেয়ে বেশি বন্ধু আর হয় না। কিন্তু সেই সঙ্গীর ঠিক যত্ন কি আমরা নিতে পারি?

তাই শুধু বই কিনলেই হবে, নিতে হবে বইয়ের যত্ন। অনেক সময় দেখা যায়, আলমারি থেকে বই নামানোর সময় পাতাগুলো কালচে বা হলদেটে হয়ে মচমচে হয়ে গিয়েছে। আবার কখনও পোকায় কেটে দেয় । আসুন জেনে নেই যেভাবে বইয়ের যত্ন নেবেন-

১. ড্যাম্প ধরা দেওয়ালে বইয়ের তাক তৈরি করবেন না। তাহলে বইয়ের পাতা নষ্ট হয়ে যায়। এ ছাড়া দেওয়ালে উঁই পোকা বাসা বাঁধলেও সতর্ক হোন।

২. দেওয়ালের সংস্পর্শে বই না রেখে একটা পাটাতন দিয়ে তা আলাদা করুন। তাক কাঠের হলে সেই কাঠ অবশ্যই সিজন করিয়ে নিন।

৩. বইয়ের পাতা ওল্টানোর সময় আঙ্গুলে থুতু লাগাবেন না। ধীরে সুস্থে বইয়ের পাতা ওল্টান। আর তাড়াহুড়ো করে পাতা ওস্টাতে গেলেও অনেক সময় পাতা ছিঁড়ে যায়।

৪. সম্ভব হলে মলাট দিয়ে বই পড়ুন। পড়ার সুবিধার জন্য তা মুড়ে পড়বেন না। এতে মাঝের সলাই খুলে যাবে।

৫. প্রতি মাসে অন্তত একবার নরম কাপড়ে বইয়ের ধুলো ঝেড়ে রোদে দিন।

৬. বুক মার্ক ব্যবহারের সময় হালকা কোনো উপাদান ব্যবহার করুন। কাগজের টুকরো, পালক, রেশমের ফিতা বা শাটিনের কাপড় ভালো বিকল্প হতে পারে।

৭. আলমারি ও শেলফে বই রাখার সময় দুটো বইয়ের মধ্যে একটু ফাঁক রাখুন। আর সঙ্গে ন্যাপথালিন রেখে দিন।

৮. উঁচু তাক থেকে বই নামানোর সময় ছুঁড়ে নিচে ফেলবেন না। এতে বইয়ের বাঁধাইয়ে চাপ পড়ে তা খুলে যায়।

বরগুনার আলো
এই বিভাগের আরো খবর