বুধবার   ২০ নভেম্বর ২০১৯   অগ্রাহায়ণ ৬ ১৪২৬   ২২ রবিউল আউয়াল ১৪৪১

বরগুনার আলো
ব্রেকিং:
ক্রিকেটের সঙ্গে টেনিসও এগিয়ে যাচ্ছে : প্রধানমন্ত্রী রিফাত হত্যা : চার্জ গঠন ২৮ নভেম্বর চালের দাম বাড়ানোর চেষ্টা করলে কঠোর ব্যবস্থা: খাদ্যমন্ত্রী র‌্যাব-৮ এর অভিযানে শীর্ষ সন্ত্রাসী গ্রেফতার ৭ ডিসেম্বর বিচারবিভাগীয় সম্মেলনে উপস্থিত থাকবেন প্রধানমন্ত্রী বরিশাল বোর্ডে এসএসসিতে বৃত্তি পাচ্ছেন ১৪১৭ শিক্ষার্থী কবি সুফিয়া কামালের মৃত্যুবার্ষিকী আজ জাতীয় অর্থনীতিতে নারীর অবদান সবচেয়ে বেশি: পলক স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর সঙ্গে ট্রাক মালিকদের ফের বৈঠক আজ চক্রান্তকারীদের আইনের আওতায় আনা হবে: ওবায়দুল কাদের দেশে ফিরেছেন প্রধানমন্ত্রী লবণের দাম বাড়ালে জেল-জরিমানা : বাণিজ্যমন্ত্রী লবণ নিয়ে গুজবে কান দিবেন না: শিল্প মন্ত্রণালয় ২০২১ সালের মধ্যে ১০০০ উদ্যোক্তা তৈরিতে সহায়তা দেবে সরকার পদ্মাসেতুর প্রায় আড়াই কিলোমিটার দৃশ্যমান সেনা কল্যাণ সংস্থার চারটি স্থাপনা উদ্বোধন মালিতে জঙ্গি হামলায় ২৪ সেনা নিহত কন্যা সন্তানের জনক হলেন তামিম কেন্দ্রীয় ১৪ দলের সভা আজ বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকী : ৫৪ স্থানে বসছে ক্ষণ গণনার ডিসপ্লে
৫৭

রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসনে বিভ্রান্তি ছড়ানো হচ্ছে: দীপু মনি

প্রকাশিত: ২৪ আগস্ট ২০১৯  

শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি বলেছেন, রোহিঙ্গা সমস্যা সমাধানে যা কিছু করা দরকার তা বঙ্গবন্ধু কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে এ সরকার করে যাচ্ছে এবং পররাষ্টমন্ত্রণালয় সব ধরনের উদ্যোগ নিয়েছে। এখন আমাদের প্রয়োজন সবার সম্মিলিত উদ্যোগ। 

আমরা বিশ্বের সব দেশের সঙ্গে যোগাযোগ রক্ষা করছি, সবার চেষ্টায় মিয়ানমারকে তাদের মত বদলাতে হবে। রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসনের ক্ষেত্রে কিছু কিছু প্রতিষ্ঠান আছে যারা বিভ্রান্তি ছড়িয়ে রোহিঙ্গাদের নিজ বাসভূমে ফেরত যেতে কিছুটা নিরুৎসাহিত করছে এ রকম খবরও আমাদের কাছে আসছে। সব বিষয় বিবেচনায় নিয়ে সরকার যেভাবে এগিয়ে যাচ্ছে তাতে সহসাই আমরা সফল হতে পারব বলে আশা করছি।

শনিবার (২৪ আগস্ট) সন্ধ্যা সাড়ে ৭টায় চাঁদপুর শহরের পুরান বাজার হরিসভা মেঘনার ভাঙন এলাকা পরিদর্শন শেষে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি এসব কথা বলেন।

তিনি আরও বলেন, চাঁদপুরে মেঘনার ভাঙন প্রতিরোধে ২০০৮ সালের নির্বাচনে আমরা অঙ্গীকার করেছিলাম, ২৯ কিলোমিটার বাঁধ দিয়ে সেই ওয়াদা রক্ষা করেছি। কিন্তু প্রতিবছর বর্ষা মৌসুমে প্রচণ্ড ঘূর্ণায়নের কারণে শহর রক্ষাবাঁধে ভাঙন দেখা দেয়। আমরা এটিকে স্থায়ী রক্ষাবাঁধ দেওয়ার জন্য উদ্যোগ নিয়েছি।

তাৎক্ষণিকভাবে পুরান বাজার হরিসভা এলাকায় ভাঙন প্রতিরোধে ১৩৪ মিটার র্দৈঘ্য এবং ৭০ ফুট প্রস্থে ২৯ হাজার বালু ভর্তি জিইও ব্যাগ ফেলা হয়েছে এবং আরও ১ হাজার ব্যাগ ফেলা হবে। এই কাজে জরুরি ভিত্তিতে ১ কোটি ৩০ লাখ টাকা ব্যয় হয়েছে।

পরে তিনি হরিসভা মন্দিরে শ্রীকৃষ্ণের জন্মাষ্টমীর একটি অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন।

এ সময় তার সঙ্গে জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আবু নঈম পাটওয়ারী দুলাল, জেলা প্রশাসক (ভারপ্রাপ্ত) মো. মঈনুল হাসান, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. মিজানুর রহমান, পানি উন্নয়ন বোর্ডের নির্বাহী প্রকৌশলী আবু রায়হানসহ আওয়ামী লীগের নেতা-কর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।

এই বিভাগের আরো খবর