মঙ্গলবার   ১৯ নভেম্বর ২০১৯   অগ্রাহায়ণ ৫ ১৪২৬   ২১ রবিউল আউয়াল ১৪৪১

বরগুনার আলো
ব্রেকিং:
লবণের দাম বাড়ালে জেল-জরিমানা : বাণিজ্যমন্ত্রী লবণ নিয়ে গুজবে কান দিবেন না: শিল্প মন্ত্রণালয় ২০২১ সালের মধ্যে ১০০০ উদ্যোক্তা তৈরিতে সহায়তা দেবে সরকার পদ্মাসেতুর প্রায় আড়াই কিলোমিটার দৃশ্যমান সেনা কল্যাণ সংস্থার চারটি স্থাপনা উদ্বোধন মালিতে জঙ্গি হামলায় ২৪ সেনা নিহত কন্যা সন্তানের জনক হলেন তামিম কেন্দ্রীয় ১৪ দলের সভা আজ বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকী : ৫৪ স্থানে বসছে ক্ষণ গণনার ডিসপ্লে পদ্মা সেতুর ১৬তম স্প্যান বসছে আজ কার্গো বিমানে পেঁয়াজের প্রথম চালান আসছে আজ আজ দেশে ফিরবেন প্রধানমন্ত্রী আইসিসি রায় দিলে সু চি অন্য দেশে পালালেও গ্রেফতার হবেন: শাহরিয়ার পেঁয়াজ পৌঁছাবে মঙ্গলবার, নাগালে আসবে দাম : বাণিজ্য সচিব রিফাত হত্যা: পেছালো ১৪ আসামির বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন নতুন সড়ক আইন বাস্তবায়নে বাড়াবাড়ি না করার নির্দেশ গ্রামীণফোনের কাছে বিটিআরাসির পাওনা: আপিলে আদেশ রোববার আবরার হত্যা : চারজনের বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা মঙ্গলবার ১৪ দলের সভা আবরার হত্যা : চার্জশিট গ্রহণের শুনানি দুপুরে
২৪

শত বাধা উপেক্ষা করে পরীক্ষা দিচ্ছেন মাছুম

প্রকাশিত: ৫ নভেম্বর ২০১৯  

 


শত বাধা উপেক্ষা করে জেএসসি পরীক্ষা দিচ্ছেন শারীরিক প্রতিবন্ধী মো. মাছুম খান।
মাছুম ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আখাউড়া পৌর শহরের দেবগ্রাম সরকারি পাইলট উচ্চ বিদ্যালয়ের  ছাত্র। বাংলাদেশ রেলওয়ে সরকারি উচ্চ বিদ্যালয় কেন্দ্রে পরীক্ষা দিচ্ছেন তিনি । 

সে দেবগ্রাম এলাকার শরীরিক প্রতিবন্ধী মো. মজিবুর রহমান ও শারমিন আক্তারের দ্বিতীয় ছেলে। 

মাছুম বলেন, আমি পড়াশুনা করে নিজের পায়ে দাঁড়াতে চাই। আমি কারো বোঝা হতে চাই না। এ জন্য আমি সবার কাছে দোয়া চাই। 

তার বাবা  মো. মুজিবুর রহমান বলেন, মাছুম ছোট বেলা থেকেই পড়াশুনার প্রতি তার যথেষ্ট আগ্রহ রয়েছে। প্রতিবন্ধী হয়ে ও আমরা কোনো সরকারি সুযোগ সুবিধা পাচ্ছি না। আমি  একজন   ক্ষুদ্র ব্যবসায়ী।  পৈতৃক সম্পত্তি বলতে দেড় শতক জায়গা ছাড়া কিছুই নেই। ঋণের উপর ক্ষুদ্র ব্যবসা করে দিনাতিপাত করছি। পড়াশুনার খরচ জোগাতে খুবই কষ্ট হচ্ছে। 

মা শারমিন আক্তার বলেন, অভাব অনটনের সংসার তাই ছেলেকে কোনো প্রাইভেট পড়াতে পারিনি। নিজের চেষ্টায় সে পড়াশুনা করছে। 

দেবগ্রাম সরকারি পাইলট উচ্চ বিদ্যালয়ের  প্রধান শিক্ষক শেখ মো. মাহফুজুর রহমান বলনে, মাছুম ভালো ছাত্র। নিয়মিত  স্কুলে আসতো সে। পড়াশুনায় যাতে কোনো প্রকার সমস্যা না হয় সব শিক্ষকরা তার প্রতি খেয়াল রাখত।

এই বিভাগের আরো খবর