সোমবার   ২৬ আগস্ট ২০১৯   ভাদ্র ১০ ১৪২৬   ২৪ জ্বিলহজ্জ ১৪৪০

বরগুনার আলো
ব্রেকিং:
স্টোকসের ব্যাটেই ইংলিশদের অবিশ্বাস্য জয় বঙ্গবন্ধুর আদর্শ থেকে শিক্ষা নিতে হবে : স্পিকার ‘মুখরোচক কথায় দালালের খপ্পরে পড়ে বিদেশ যাবেন না’- প্রধানমন্ত্রী আজ কুমিল্লায় পারিবারিক কবরস্থানে মোজাফফর আহমদের দাফন অ্যামাজন পুড়ছে, আমরা যেন না পুড়ি: পরিবেশমন্ত্রী জেলা সরকার এখন সময়ের দাবি: পররাষ্ট্রমন্ত্রী ওএসডি হচ্ছেন জামালপুরের সেই ডিসি রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসনে বিভ্রান্তি ছড়ানো হচ্ছে: দীপু মনি সর্বস্তরের মানুষের শ্রদ্ধায় সিক্ত অধ্যাপক মোজাফফর বরগুনায় উচ্ছেদ অভিযানে জেলা প্রশাসন মোজাফফর আহমদের মরদেহে রাষ্ট্রপতি-প্রধানমন্ত্রীর শ্রদ্ধা হাইভোল্টেজ ম্যাচে লড়বে লিভারপুল-আর্সেনাল গ্রেনেড হামলার মাস্টারমাইন্ডদের সর্বোচ্চ শাস্তি হবে- কাদের আইভি রহমানের সমাধিতে আওয়ামী লীগের শ্রদ্ধা আইভী রহমানের ১৫তম মৃত্যুবার্ষিকী আজ মোজাফফর আহমদের মৃত্যুতে প্রধানমন্ত্রীর শোক ৯০ ভাগ ডেঙ্গু রোগী বাড়ি ফিরেছে: স্বাস্থ্য অধিদপ্তর রোহিঙ্গা সমস্যা সমাধানে সরকার হাল ছাড়েনি: ওবায়দুল কাদের ২৩ আগস্টের ঘটনায় সেনাবাহিনী দায়ী নয়-ঢাবি উপাচার্য যে করেই হোক রোহিঙ্গাদের মিয়ানমারে ফেরত পাঠাবোই: পররাষ্ট্রমন্ত্রী
৬৪

শরীরে পানিশূন্যতার লক্ষণ ও প্রতিরোধের উপায়

প্রকাশিত: ৮ আগস্ট ২০১৯  

পানি ছাড়া একজন মানুষ হয়তো কয়েকদিনই বেঁচে থাকতে পারে। কিন্তু শরীরের প্রতিটি কোষ, অঙ্গ ও টিস্যু পানির ওপর নির্ভরশীল। পানি শরীরে তরলের ভারসাম্য বজায় রাখে। এছাড়া পানির রয়েছে হরেক রকম কাজ। আর তাই, শরীরে পানির ঘাটতি হলে বিভিন্ন সমস্যা তৈরি হয়। চলুন তবে জেনে নেয়া যাক শরীরে পানিশূন্যতার লক্ষণ ও এর প্রতিরোধের উপায়-   

> শরীরে পানির ঘাটতি হলে মাথাব্যথার সমস্যা হতে পারে। পানিশূন্যতা হলে মস্তিষ্কে অক্সিজেন ও রক্ত প্রবাহ কমে যায়। আর এ থেকে মাথাব্যথা হয়।

> মানুষের মস্তিষ্ক ৯০ ভাগ পানি দিয়ে তৈরি। তাই পানির ঘাটতি হলে মস্কিষ্কে এর প্রভাব পড়ে। পানিশূন্যতা স্মৃতি, মেজাজ ও সীদ্ধান্ত গ্রহণে প্রভাব ফেলে।

> পানি শূন্যতা হলে মুখে দুর্গন্ধ হতে পারে। পানির ঘাটতি হলে শরীর লালা কম উৎপাদন করে। এর কারণে মুখে ব্যাক্টেরিয়া বেশি তৈরি হয় এবং মুখে দুর্গন্ধ হয়।

> পানি পায়খানা ভালোভাবে হতে এবং কোষ্ঠকাঠিন্য কমাতে সাহায্য করে। পানিশূন্যতা হলে কোষ্ঠকাঠিন্য, বুক জ্বালাপোড়া ও হজমের সমস্যা হওয়ার আশঙ্কা বাড়ে।

> প্রস্রাব ঠিকঠাকমতো হওয়া মানে শরীরে পর্যাপ্ত পরিমাণ পানি রয়েছে। প্রস্রাবের রং গাঢ় হলুদ হলে বুঝতে হবে শরীরে পানির ঘাটতি রয়েছে।

> হঠাৎ অবসন্ন বা ক্লান্ত লাগছে। পানি পান করুন। অবসন্নভাব কিন্তু শরীরে পানির ঘাটতির অন্যতম একটি লক্ষণ।

প্রতিরোধ
> দিনে অন্তত দুই থেকে আড়াই লিটার পানি পান করুন।

> সকালে ঘুম থেকে উঠেই খালি পেটে পানি পান করে নিন। এটি অনেক সমস্যা কমাতে কাজ করবে।

> সবসময় ব্যাগে পানির বোতল রাখুন।

> খাদ্যতালিকায় রাখুন পানি জাতীয় সবজি ও ফল। যেমন- তরমুজ, শসা, টমেটো, বাধাকপি ইত্যাদি।

> তবে কিডনি রোগীরা চিকিৎসকের পরামর্শ নিয়ে পানি পান করবেন।