বৃহস্পতিবার   ২৪ অক্টোবর ২০১৯   কার্তিক ৮ ১৪২৬   ২৪ সফর ১৪৪১

বরগুনার আলো
ব্রেকিং:
ধর্মঘট প্রত্যাহার, শনিবার অনুশীলনে যোগ দেবেন সাকিবরা বরগুনায় কলেজছাত্রী হত্যায় বিএনপির সাবেক নেতার যাবজ্জীবন তুরস্কে ফিকাহ-বিষয়ক আন্তর্জাতিক সম্মেলনে বাংলাদেশি গবেষক ডিসেম্বরে মুক্তি পাচ্ছে পরমব্রত-কোয়েলের নতুন সিনেমা মশা-ছারপোকা দূর করবে কর্পূর অছাত্ররা কোনোভাবেই ঢাবির হলে অবস্থান করতে পারবে না-উপাচার্য ধনী-দরিদ্রের বৈষম্য কমার প্রত্যাশা পরিকল্পনামন্ত্রীর আগামী ১ নভেম্বর থেকে সড়ক পরিবহন আইন কার্যকরে গেজেট প্রকাশ ঢাকার দুই সিটি নির্বাচন জানুয়ারিতে! ২০৪০ সালের মধ্যে বাংলাদেশ হবে অধূমপায়ী রাষ্ট্র : তথ্যমন্ত্রী মহাকাশে তোলা সেলফি প্রকাশ বাংলাদেশ সফরে জাপানের সম্রাটকে আমন্ত্রণ রাষ্ট্রপতির এমপিও: ১৭৫ ভোকেশনাল প্রতিষ্ঠানের তালিকা  পরিবেশ সুরক্ষা নিশ্চিতে সরকার কাজ করছে : গণপূর্তমন্ত্রী প্রযুক্তি ব্যবহারে আফ্রিকায় ‘কৃষি বিপ্লব’ দুদক এখন অনেক শক্তিশালী: কমিশনার মোজাম্মেল ‘পায়ের বেড়ি’ খুলছে না সৌদি নারীদের বৃক্ষরোপণে ইসলামের উৎসাহ ও নির্দেশনা পদ্মাসেতুর অবশিষ্ট জমিতে মিলিটারি ফার্ম করবে সেনাবাহিনী শাহজালালে ১ কোটি ২০ লাখ টাকার স্বর্ণসহ যাত্রী আটক
১৬

শরীরে ভিটামিন ‘কে’ কতোটা গুরুত্বপূর্ণ জানুন

প্রকাশিত: ১ অক্টোবর ২০১৯  

ভিটামিন-সি এবং ভিটামিন-ডি আমাদের শরীরে অনেক গুরুত্বপূর্ণ কাজ করে তা আমরা অনেকেই জানি। এ জন্য ভিটামিন-সি এবং ডি সমৃদ্ধ খাবার-দাবার খুঁজে নেই। কিন্তু ভিটামিন-কে সম্পর্কে আমরা ততটা জানিও না এবং গুরুত্বও দেই না। তবে এই ভিটামিন-কে দেহের জন্য অতি প্রয়োজনীয় একটি উপাদান।

শরীরের একটি স্বাভাবিক প্রক্রিয়া হলো যকৃত থেকে পিত্তরস নিঃসৃত হওয়া। পিত্তরস নিঃসরণে অসুবিধা হলে ভিটামিন-কে এর শোষণ কমে যায়। ভিটামিন-কে এর অভাবে ত্বকের নিচে ও দেহাভ্যন্তরে যে রক্ত ক্ষরণ হয় তা বন্ধ করার ব্যবস্থা না নিলে রোগী মারা যেতে পারে। এ ভিটামিনের অভাবে অপারেশনের রোগীর রক্তক্ষরণ সহজে বন্ধ হতে চায় না। এতে রোগীর জীবন নাশেরও আশংকা থাকে।

ভিটামিন-কে হলো এসেনশিয়াল ফ্যাট সলিউবল ভিটামিন। দেহে ভিটামিন-কে প্রথ্রোম্বিন নামক প্রোটিন তৈরি করে। প্রথ্রোম্বিন রক্ত জমাট বাঁধতে সাহায্য করে। এটি হাড় ও হৃৎপিণ্ডের স্বাস্থ্যকে ভালো রাখে। এ ছাড়া আমাদের শরীরের অনেক প্রয়োজনীয়তা পূরণ করে ভিটামিন- কে।

এবার জেনে নেওয়া যাক ভিটামিন-কে কি কি কাজ করে -

হাড় ভাল রাখে: হাড়ের স্বাস্থ্য ভালো রাখতে ভিটামিন-কে জরুরি। এটি হাড়ের ফ্র্যাকচার কমাতে সাহায্য করে।

হৃৎপিণ্ড ভালো রাখে: ভিটামিন-কে হৃৎপিণ্ডের জন্য খুবই উপকারী। এটি রক্তচাপ কমাতে সাহায্য করে। এক গবেষণায় বলা হয়, ভিটামিন-কে কার্ডিওভাসকুলার ডিজিজ ও হার্ট অ্যাটাক প্রতিরোধে সাহায্য করে।

ক্যান্সারের সঙ্গে লড়াই করে: ভিটামিন-কে কোলন, পাকস্থলী, লিভার, মুখগহ্বর, প্রোস্টেট ক্যান্সার প্রতিরোধে কাজ করে।

ঋতুস্রাবের ব্যথা কমায়: ভিটামিন-কে ঋতুস্রাবের ব্যথা কমাতে সাহায্য করে। এটি হরমোনের কার্যক্রমকে নিয়ন্ত্রণ করে ঋতুস্রাবের ব্যথা কমায়।

মস্তিষ্কের কার্যক্রম বৃদ্ধি করে: ভিটামিন-কে মস্তিষ্কের স্বাস্থ্যকে ভালো রাখে। এই ভিটামিনের মধ্যে আছে প্রদাহরোধী উপাদান। এটি অক্সিডেটিভ স্ট্রেসের বিরুদ্ধে কাজ করে আলঝেইমার, পারকিনসন ইত্যাদি রোগ প্রতিরোধ করে।

আমাদের এতো উপকার যে ভিটামিনটি করে সেই ভিটামিন-কে সমৃদ্ধ খাবারগুলো বেশি বেশি করে খাওয়া সবারই উচিত। তার আগে জানতে হবে কোন কোন খাবারে ভিটামিন-কে বেশি পরিমাণে পাওয়া যায়। সেগুলো হলো- পনির, দই, কলিজা (মাছের কলিজা), ডিমের কুসুম, পালংশাক, শাকগম, সবুজ ফুলকপি, লেটুসপাতা, ডাল, সয়াবিন, ভুট্টা ইত্যাদি।