সোমবার   ০৯ ডিসেম্বর ২০১৯   অগ্রাহায়ণ ২৪ ১৪২৬   ১১ রবিউস সানি ১৪৪১

বরগুনার আলো
ব্রেকিং:
বেগম রোকেয়া দিবস আজ প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে সাক্ষাৎ সালমান-ক্যাটরিনার বঙ্গবন্ধুকে নিয়ে সনু নিগমের গান এনডিসি গ্র্যাজুয়েটদের জ্ঞান উন্নয়নের কাজে লাগানোর আহ্বান ভিপি নুরকে কাজে লাগিয়ে চলছে বিএনপির অপরাজনীতি! চাঞ্চল্যকর মামলা নিবিড় তদারকির নির্দেশ আইজিপির বঙ্গবন্ধু বিপিএলের উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী মাছ দিয়ে পদ পাওয়া যাচ্ছে সিংড়া বিএনপিতে, কমিটি নিয়ে অসন্তোষ চরমে! মাদক সেবনকালে নয়াপল্টন এলাকা থেকে ৭ বিএনপি কর্মী আটক! পরকীয়ায় ব্যস্ত খালেদার আইনজীবী, জামিনে মনোযোগ নেই! বরগুনায় তিন দিনব্যাপি কৃষি প্রযুক্তি মেলা শুরু নারীরা বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের সোনার বাংলা গড়ার লক্ষ্যে এগিয়ে যাবেন  নারীর স্বনির্ভরতা অর্জনে সকলকে একযোগে কাজ করতে রাষ্ট্রপতির আহবান সচিবালয়ের আশপাশে হর্ন বাজালেই জেল-জরিমানা পরস্পরের সালাম শুভেচ্ছা বিনিময়ের শ্রেষ্ঠ প্রথা মানবাধিকার দিবসে প্রকাশ্যে আসছেন এসিডদগ্ধ দীপিকা দেশের প্রথম আইটি বিজনেস ইনকিউবেটর নির্মাণকাজের উদ্বোধন   শুরু হলো বঙ্গবন্ধু বিপিএলের উদ্বোধনী অনুষ্ঠান বিজয়ীদের চলচ্চিত্র পুরস্কার তুলে দিলেন প্রধানমন্ত্রী বিপিএল উদ্বোধনীতে সালমান খান ও ক্যাটরিনা কাইফ
৩৫

‘শিক্ষক প্রশিক্ষণের পর্যাপ্ত সুযোগ সৃষ্টি করেছে সরকার’

প্রকাশিত: ১২ সেপ্টেম্বর ২০১৯  

শিক্ষা উপমন্ত্রী মহিবুল হাসান চৌধুরী বলেছেন, মানসম্পন্ন শিক্ষা নিশ্চিত করা বর্তমানে শিক্ষা ব্যবস্থার প্রধান চ্যালেঞ্জ। উন্নত মানের শিক্ষার জন্য দরকার দক্ষ শিক্ষক; আর এই লক্ষ্যে সরকার শিক্ষক প্রশিক্ষণের পর্যাপ্ত সুযোগ সৃষ্টি করে যাচ্ছে।

গতকাল বুধবার সচিবালয়ে শিক্ষা উপমন্ত্রীর দফতরে গ্লোবাল পার্টনারশিপ এডুকেশন–এর প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা এলিট ওলব্রাইটের নেতৃত্বে চার সদস্যের একটি প্রতিনিধি দলের সঙ্গে সাক্ষাতের সময় তিনি একথা বলেন।

শিক্ষকদের প্রশিক্ষণের জন্য বিদেশে পাঠানোর পাশাপাশি আন্তর্জাতিক মানের প্রশিক্ষকদের দেশে এনে স্থানীয় পর্যায়ে ভালো মানের শিক্ষক প্রশিক্ষক তৈরির পরিকল্পনার কথা প্রতিনিধি দলকে জানান শিক্ষা উপমন্ত্রী। প্রতিনিধি দলের কাছে শিক্ষাখাতে নেয়া বর্তমান সরকারের বিভিন্ন উন্নয়নমূলক কর্মকাণ্ডের বর্ণনা দেন তিনি।

এলিট ওলব্রাইটকে উপমন্ত্রী বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ক্ষমতায় আসার পরপরই শিক্ষা ব্যবস্থার আমূল সংস্কারের উদ্যোগ নেন; যার ফলশ্রুতিতে শিক্ষার্থীদের অংশগ্রহণ সন্তোষজনক স্তরে উন্নীত হয়েছে। 

দক্ষ মানব সম্পদ সৃষ্টিতে সরকারের পদক্ষেপের কথা বলতে গিয়ে উপমন্ত্রী বলেন, দক্ষ মানবসম্পদ সৃষ্টিতে ১৮ বছর বয়স পর্যন্ত সব শিক্ষার্থীর জন্য তথ্য ও প্রযুক্তি শিক্ষা বাধ্যতামূলক করা হয়েছে এবং আগামী ২০২১ সাল থেকে সাধারণ ধারার শিক্ষায়ও বৃত্তিমূলক ট্রেড আবশ্যিক করা হবে। কারিগরি শিক্ষার ওপর বিশেষ জোর দেয়া হচ্ছে; যাতে বিদেশে দক্ষ জনশক্তি পাঠানো যায়।

প্রতিনিধি দলের প্রধান এলিস আলব্রাইট বলেন, তার সংস্থা বাংলাদেশে শিক্ষক প্রশিক্ষণে সহযোগিতা করতে আগ্রহী। শিক্ষাখাতে গৃহীত বাংলাদেশ সরকারের স্তরভিত্তিক কৌশল বাস্তবায়নে সংস্থাটি সাহায্য করতে প্রস্তুত রয়েছে।

এই বিভাগের আরো খবর