শনিবার   ১৭ আগস্ট ২০১৯   ভাদ্র ২ ১৪২৬   ১৫ জ্বিলহজ্জ ১৪৪০

বরগুনার আলো
ব্রেকিং:
ডেঙ্গুজ্বর থেকে মুক্তি পেতে ‘স্টপ ডেঙ্গু’ অ্যাপ চালু দেশব্যাপী সিরিজ বোমা হামলার ১৪ বছর আজ মেসিহীন হার দিয়ে লা লিগা শুরু বার্সার আজ থেকে হজের ফিরতি ফ্লাইট শুরু কবি শামসুর রাহমানের ১৩তম মৃত্যুবার্ষিকী আজ সোমবার ঢাকায় আসছেন ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রী কবিরা গুনাহকারীরা কি চিরকাল জাহান্নামে থাকবে? মিরপুরে বস্তির আগুন নিয়ন্ত্রণে ২০ ইউনিট ১৯ হাজার ৪০০ পিস ইয়াবাসহ আটক দুই বাড়তি ভাড়া আদায়ের অপরাধে ১৭ পরিবহনকে জরিমানা ‘সবসময় যারা আমাদের বাড়িতে ঘোরাঘুরি করতো তারাই সেই খুনি’   হাতঘড়ির ফ্যাশন ফিরে এসেছে দেশে শেখ হাসিনার জীবনই এখন বেশি ঝুঁকিপূর্ণ : কাদের বিশ্বের আট গুরুত্বপূর্ণ শহরে ‘মুজিববর্ষ’ উদযাপন করা হবে বিশ্বকাপ বাছাইয়ের জন্য প্রাথমিক দল ঘোষণা বাংলাদেশের জিরো টলারেন্স নীতিতে জঙ্গি দমন সম্ভব হয়েছে: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী রবি শাস্ত্রীই কোচের দায়িত্বে থাকছেন: সিএসি মুক্তিযুদ্ধে বিজয়ের প্রতিশোধ নিতেই বঙ্গবন্ধু হত্যা: প্রধানমন্ত্রী ঢাকা-দিল্লির সম্পর্ক নতুন উচ্চতায় পৌঁছেছে কাশ্মীর: ব্রিটিশ এশিয়ানদের কাছে কতটা গুরুত্বপূর্ণ?
২৯

শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে ঈদের ছুটি বাড়ছে

প্রকাশিত: ৭ আগস্ট ২০১৯  

ডেঙ্গু ছড়িয়ে পড়ায় শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে ঈদুল আজহার ছুটি বাড়িয়ে দেয়ার চিন্তাভাবনা চলছে। এছাড়া ডেঙ্গু আক্রান্ত বা গুরুতর অসুস্থ শিক্ষার্থী যারা আধা সাময়িক পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করতে পারছে না তারা অসুস্থতার কাগজপত্র দেখিয়ে পরবর্তীতে বিশেষ বিবেচনায় পরীক্ষায় অংশগ্রহনের কথা বলা হয়েছে।  

জানা গেছে, দেশের ডেঙ্গু পরিস্থিতি নিয়ে রোববার শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের একটি বৈঠক হওয়ার কথা থাকলেও বৈঠকটি আজকালের মধ্যে অনুষ্ঠিত হতে পারে। আক্রান্ত শিক্ষার্থীর সংখ্যাসহ বিভিন্ন বিষয় বিবেচনায় এনে ছুটির বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেয়া হবে।

সংশ্লিষ্টরা জানান, ডেঙ্গু আক্রান্তদের মধ্যে শিক্ষার্থীর সংখ্যাও প্রচুর, প্রায় ৩২ শতাংশ। ফলে ক্লাস-পরীক্ষায় শিক্ষার্থীদের উপস্থিতি কমে গেছে। আধা সাময়িক পরীক্ষাসহ অভ্যন্তরীণ পরীক্ষায় অনেকেই অনুপস্থিত থাকছে। এ অবস্থায় মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে আলাদা একটি মনিটরিং সেল করা হয়েছে। এ সেলের তথ্য-উপাত্ত বিশ্লেষণ করে সাধারণ ছুটির বিষয়ে সিদ্ধান্ত হবে।

জানা গেছে, ডেঙ্গু পরিস্থিতি নিয়ে গত বৃহস্পতিবার আন্তঃমন্ত্রণালয়ের সভা হয়। সেখানে ডেঙ্গুতে শিক্ষার্থীরা বেশি আক্রান্ত হওয়ার বিষয়টি আলোচনা হয়। ডেঙ্গু পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণের বাইরে গেলে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ করে দেয়া যায় কী না, তা নিয়েও আলোচনা হয়।

শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের একজন যুগ্ম সচিব জানান, আমরা সার্বিক পরিস্থিতি পর্যালোচনা করছি। শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলোকে ডেঙ্গু পরিস্থিতি মোকাবিলা করতে বিশেষ ব্যবস্থা নেয়ার কথা বলেছি। মনিটরিং সেলের তথ্য-উপাত্ত পাওয়ার পর আন্তঃমন্ত্রণালয়কে জানানো হবে।

এ ব্যাপারে মাউশির পরিচালক (মাধ্যমিক) অধ্যাপক আবদুল মান্নান জানান, ডেঙ্গু নিয়ে সাধারণ মানুষের পাশাপাশি আমরাও উদ্বিগ্ন। এ অবস্থায় করণীয় নির্ধারণ করতে দফায় দফায় বৈঠক করা হয়েছে। আলাদা একটি সেল করেছি। মন্ত্রণালয়, মাউশি থেকে শিক্ষার্থী, অভিভাবকদের চার দফা নির্দেশনা দেয়া হয়েছে। আগাম ছুটি দেয়ার বিষয়ে মন্ত্রণালয় সিদ্ধান্ত নেবে বলেও জানান তিনি।

এই বিভাগের আরো খবর