বৃহস্পতিবার   ১৪ নভেম্বর ২০১৯   কার্তিক ৩০ ১৪২৬   ১৬ রবিউল আউয়াল ১৪৪১

বরগুনার আলো
ব্রেকিং:
চার বছরের মধ্যে দারিদ্রের হার কমবে : প্রধানমন্ত্রী আজ ঝালকাঠির দুই বিচারক হত্যা দিবস পিকেএসএফ উন্নয়ন মেলার উদ্বোধন করেছেন প্রধানমন্ত্রী আয়কর মেলা: ১১৩ কোটি থেকে লক্ষ্যমাত্রা তিন হাজার কোটি টাকা রোহিঙ্গা নিপীড়নে এবার সুচি’র বিরুদ্ধে আর্জেন্টিনায় মামলা টেস্ট বিশ্বকাপ অভিষেকে টস জিতে ব্যাটিংয়ে বাংলাদেশ রোহিঙ্গা সমস্যার পেছনে জিয়াউর রহমানের হাত ছিল: প্রধানমন্ত্রী খেলাপি ঋণ অবশ্যই আদায় করা হবে: অর্থমন্ত্রী ধেয়ে আসছে ‘বুলবুলে’র চেয়েও ভয়ানক ঘূর্ণিঝড় ‘নাকরি’ দেশের কল্যাণে প্রয়োজনে বাবার মতো জীবন দেবো: শেখ হাসিনা বিমানে উড়ে বাংলাদেশ এল ২২৫টি গরু! দেশে রফতানি বাড়াতে দরকার পরিবহন খাতে উন্নয়ন: বিশ্বব্যাংক মা হারানো সেই শিশুর দায়িত্ব নিলেন উপমন্ত্রী শামীম মালয়েশিয়ায় বীমার আওতায় দুই লাখ বাংলাদেশি কর্মী আওয়ামী লীগে দূষিত রক্তের প্রয়োজন নেই: সেতুমন্ত্রী ঘুরে দাঁড়িয়ে দুর্দান্ত জয় বাংলাদেশের মেয়েদের শেখ হাসিনার নেতৃত্ব মানুষের দিন বদল হয়েছে-তথ্যমন্ত্রী ৭৫ পরবর্তীতে অনেকে উচ্ছিষ্টের লোভে দল ছেড়ে চলে গেছেন: নওফেল বরগুনায় নিজের মেয়েকে ধর্ষণ করল বাবা নকল মুদ্রা দিয়ে প্রতারণার অভিযোগে গ্রেফতার ৯
৩২

শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ও হলে তল্লাশির নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর

প্রকাশিত: ৯ অক্টোবর ২০১৯  

হলে থেকে কোন মান্তানি চলবে না, দেশের প্রতিটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ও হলে তল্লাশির নিদের্শ দিয়েছেন আওয়ামী লীগের সভানেত্রী ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। আজ বুধবার বিকেল সম্প্রতি জাতিসংঘের সাধারণ অধিবেশনে যোগদান ও সদ্য শেষ হওয়া ভারত সফরে অর্জন ও সফলতা তুলে ধরতে ধরে গণভবনে এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি একথা বলেন। প্রধানমন্ত্রী বলেন, অপরাধীরা কোন দলে তা বিবেচনা না করা হবে না। হত্যাকারীদের সর্বোচ্চ শাস্তি দেয়া হবে।

বুয়েটে আবরার হত্যা প্রসঙ্গে তিনি বলেন, হত্যার সঙ্গে জড়িত সবাইকে ইতোমধ্যে গ্রেফতার করা হয়েছে। দোষীদের সর্বেোচ্চ শাস্তি নিশ্চিত করা হবে।

 

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, ছাত্ররাই সব আন্দোলনে অগ্রণী ভূমিকায় থাকে। আমিও ছাত্ররাজনীতি করেই এখানে এসেছি। এখন একটা ঘটনা ঘটেছে বলেই ছাত্ররাজনীতি নিষিদ্ধ করতে হবে কেন? তবে কোনো প্রতিষ্ঠান চাইলে নিজেরা সেটি করতে পারে।

১৯৭৮ সালে জিয়াউর রহমান ছাত্র সংগঠনগুলোকে রাজনৈতিক দলের আওতায় এনেছিলেন। এখন ছাত্ররাজনীতিকে আবারও আগের মতো স্বাধীন সংগঠন ঘোষণা করা হবে কি-না এমন প্রশ্নের জবাবে প্রধানমন্ত্রী বলেন, আওয়ামী লীগের সহযোগী সংগঠনের তালিকা আছে, যা অন্য দলগুলোর নেই। ছাত্রলীগ আওয়ামী লীগের অঙ্গ সংগঠন নয়।

তিনি বলেন, মাথা থাকলে মাথাব্যথা তো হবেই। যারা উড়ে এসে বসে, তাদের দেশের চিন্তা থাকে না। ছাত্ররাজনীতি থেকেই ধীরে ধীরে চরিত্র গঠন হয়। আদর্শ গড়ে ওঠে। দক্ষ নেতৃত্ব উঠে এসেছে ছাত্ররাজনীতি থেকেই।

বুয়েটে ছাত্ররাজনীতি নিষিদ্ধের দাবিতে আন্দোলন চলছে- এ প্রসঙ্গে প্রধানমন্ত্রী বলেন, অনেক শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ছাত্ররাজনীতি নিষিদ্ধ আছে। বুয়েট চাইলে তারাও নিষিদ্ধ করতে পারে। আমরা এতে হস্তক্ষেপ করবো না। এসময় সাংবাদিকদের উদ্দেশে তিনি বলেন, আপনারা বের করে দেন, কোথায় কোথায় অনিয়ম হচ্ছে। আমি কোনো দলটল বুঝি না।

এই বিভাগের আরো খবর