রোববার   ২২ সেপ্টেম্বর ২০১৯   আশ্বিন ৬ ১৪২৬   ২২ মুহররম ১৪৪১

বরগুনার আলো
ব্রেকিং:
ক্যাসিনো মালিকদের গল্প প্রয়োজনে ঋণ নেব, তবু ডোনেশন নয়-পরিকল্পনামন্ত্রী খেলাধুলার বিকল্প নেই: সমাজকল্যাণ প্রতিমন্ত্রী কুরআনের ১০০ নির্দেশনা গ্রানাদার কাছে বার্সার পরাজয় চলমান অভিযান জনমনে প্রত্যাশার সৃষ্টি করবে: টিআইবি ৪০ কোটি টাকা নিয়ে পালানো সেই টার্কি বাবলু স্ত্রীসহ গ্রেপ্তার নারায়ণগঞ্জে পুলিশের ওপর হামলা, গুলিবিদ্ধ ১ ৪ দিনের সফরে ঢাকায় ভারতের নৌবাহিনী প্রধান ধোনির বাড়িতে প্রতিদিন লোডশেডিং, বিরক্ত স্ত্রী আর্থ-সামাজিক উন্নয়নে নিরলসভাবে কাজ করছে সরকার : প্রধানমন্ত্রী পদোন্নতি না নিলে শাস্তি ব্যক্তিগত গাড়ির ওপর নির্ভরশীলতা কমাতে হবে : রাষ্ট্রপতি পাঁচ বছর আফগানিস্তানকে হারাল বাংলাদেশ ভূতের আড্ডায় অভিযান, বাতি জ্বালাতেই অপ্রীতিকর দৃশ্য কথাসাহিত্যিক শরদিন্দুর প্রয়াণ বিষাক্ত মদ পান করে ২ যুবকের মৃত্যু ঠাকুরগাঁওয়ের বাস কাউন্টারে মিলল মানুষের ৪ বস্তা খুলি ও হাড় রিফাত হত্যা মামলার আলামত আদালতে দাখিল, সাক্ষী ৭৫ কুমিল্লায় আগ্নেয়াস্ত্র ও ইয়াবাসহ যুবক আটক
২৮৪

শেখ হাসিনা অসহাদের কথা মনে রেখেছে

প্রকাশিত: ১০ নভেম্বর ২০১৮  

ঠাকুরগাঁওয়ের হরিপুরে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার বিনামূল্যে দেয়া বাড়ি পেয়ে খুশি উপজেলার ছয় ইউপির ভূমিহীন শতাধিক পরিবার। প্রধানমন্ত্রী তাদের মত গরিব, দুঃখি, অসহায় মানুষের কথা মনে রাখায় তারা ভীষণ খুশি।

প্রধানমন্ত্রীর আশ্রয়ণ-২ প্রকল্পের আওতায় যার জমি আছে ঘর নাই তার নিজ জমিতে গৃহ নির্মাণ করে দেয়া হয়েছে পরিবারগুলোকে।

ইউএনও এমজে আরিফ বেগ ও ৬নং ভাতুরিয়া ইউপি চেয়ারম্যান শাজাহান সরকার এসব বাড়ি পরিদর্শন করেন।

উপজেলার চাপাসার গুচ্ছগ্রামে বানু নামে এক নারী জানান, স্বাধীনতার ৪৭ বছর পরও শেখ হাসিনা আমাদের মত গরীব, দুঃখি, অসহায় মানুষের কথা মনে রেখেছে। আমার শেষ বয়সে হলেও আমি শেখের বেটি হাসিনার দেয়া বিনামূল্যে একটি বাড়ি পেয়ে ভীষন খুশি। আমার মনের না পাওয়া যতসব বেদনা ছিল তা মুছে গেল। আমি যতদিন বেঁচে থাকব ততোদিন নৌকায় ভোট দিব।

ইউএনও এমজে আরিফ বেগ জানান, স্থানীয় জন প্রতিনিধিদের মাধ্যমে এই পরিবারগুলোর তালিকা সংগ্রহ করে যাচাই বাছাইয়ের মাধ্যমে সরকারের দেয়া পরিপত্র অনুয়ায়ী প্রকৃত দুস্থদের বাড়ি ও স্যানিটেসন নির্মাণ করে দেয়া হচ্ছে। প্রতিটি বাড়ির জন্য ১ লাখ টাকা বরাদ্দ রয়েছে কাজ প্রায় শেষের দিক।

হরিপুর ইউপি চেয়ারম্যান আতাউর রহমান মংলা জানান, প্রধানমন্ত্রীর দেয়া বিনামূল্যে বাড়ি পেয়ে প্রকৃত গরীব, দুঃখি ও অসহায় পরিবার গুলো খুশি হয়েছে। এ ধরনের বাড়ি পাওয়ার মত গ্রামে অনেক পরিবার রয়েছে। সরকার যেন পরবর্তীতে আবারো নতুন ভাবে বরাদ্দ বাড়ায় গৃহ নির্মাণের ব্যবস্থা গ্রহণ করেন।

এই বিভাগের আরো খবর