বৃহস্পতিবার   ২১ নভেম্বর ২০১৯   অগ্রাহায়ণ ৭ ১৪২৬   ২৩ রবিউল আউয়াল ১৪৪১

বরগুনার আলো
ব্রেকিং:
সড়ক পরিবহন আইনের অসঙ্গতি দূর করা হবে: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ‘বিএনপি সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে গুজব সৃষ্টি করছে’- কাদের অনার্স ২য় বর্ষের ২৫ নভেম্বরের পরীক্ষা স্থগিত কোন অপপ্রচারে কান না দিতে জনগণের প্রতি প্রধানমন্ত্রীর আহ্বান ‘গোলাপি’ যাত্রা রাঙ্গাতে কাল মাঠে নামছে বাংলাদেশ সারাবিশ্বে বাংলাদেশ এখন সম্মানের দেশ: প্রধানমন্ত্রী সশস্ত্র বাহিনী দিবসের সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রী আজ সন্ধ্যায় আ. লীগের অভ্যর্থনা উপকমিটির সভা ইউনেস্কোর সাধারণ অধিবেশনে অংশ নিলেন সংস্কৃতি প্রতিমন্ত্রী শিখা অনির্বাণে রাষ্ট্রপতি-প্রধানমন্ত্রীর শ্রদ্ধা দুদকের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী আজ সশস্ত্র বাহিনী নিষ্ঠার সঙ্গে দায়িত্ব পালন করবেন- প্রধানমন্ত্রী রাষ্ট্রপতির সঙ্গে আইভোরি কোস্টের রাষ্ট্রদূতের বিদায়ী সাক্ষাৎ সশস্ত্র বাহিনী জাতির গর্বের প্রতীক : রাষ্ট্রপতি আজ বিশ্ব টেলিভিশন দিবস সারাদেশের পরিবহন ধর্মঘট প্রত্যাহার ময়নাতদন্ত প্রতিবেদন লিখতে হবে স্পষ্ট অক্ষরে: হাইকোর্ট আজ সশস্ত্র বাহিনী দিবস শাহজালালে পৌঁছেছে পাকিস্তানের ৮২ টন পেঁয়াজ ক্রিকেটের সঙ্গে টেনিসও এগিয়ে যাচ্ছে : প্রধানমন্ত্রী
৩১৪

শেখ হাসিনা অসহাদের কথা মনে রেখেছে

প্রকাশিত: ১০ নভেম্বর ২০১৮  

ঠাকুরগাঁওয়ের হরিপুরে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার বিনামূল্যে দেয়া বাড়ি পেয়ে খুশি উপজেলার ছয় ইউপির ভূমিহীন শতাধিক পরিবার। প্রধানমন্ত্রী তাদের মত গরিব, দুঃখি, অসহায় মানুষের কথা মনে রাখায় তারা ভীষণ খুশি।

প্রধানমন্ত্রীর আশ্রয়ণ-২ প্রকল্পের আওতায় যার জমি আছে ঘর নাই তার নিজ জমিতে গৃহ নির্মাণ করে দেয়া হয়েছে পরিবারগুলোকে।

ইউএনও এমজে আরিফ বেগ ও ৬নং ভাতুরিয়া ইউপি চেয়ারম্যান শাজাহান সরকার এসব বাড়ি পরিদর্শন করেন।

উপজেলার চাপাসার গুচ্ছগ্রামে বানু নামে এক নারী জানান, স্বাধীনতার ৪৭ বছর পরও শেখ হাসিনা আমাদের মত গরীব, দুঃখি, অসহায় মানুষের কথা মনে রেখেছে। আমার শেষ বয়সে হলেও আমি শেখের বেটি হাসিনার দেয়া বিনামূল্যে একটি বাড়ি পেয়ে ভীষন খুশি। আমার মনের না পাওয়া যতসব বেদনা ছিল তা মুছে গেল। আমি যতদিন বেঁচে থাকব ততোদিন নৌকায় ভোট দিব।

ইউএনও এমজে আরিফ বেগ জানান, স্থানীয় জন প্রতিনিধিদের মাধ্যমে এই পরিবারগুলোর তালিকা সংগ্রহ করে যাচাই বাছাইয়ের মাধ্যমে সরকারের দেয়া পরিপত্র অনুয়ায়ী প্রকৃত দুস্থদের বাড়ি ও স্যানিটেসন নির্মাণ করে দেয়া হচ্ছে। প্রতিটি বাড়ির জন্য ১ লাখ টাকা বরাদ্দ রয়েছে কাজ প্রায় শেষের দিক।

হরিপুর ইউপি চেয়ারম্যান আতাউর রহমান মংলা জানান, প্রধানমন্ত্রীর দেয়া বিনামূল্যে বাড়ি পেয়ে প্রকৃত গরীব, দুঃখি ও অসহায় পরিবার গুলো খুশি হয়েছে। এ ধরনের বাড়ি পাওয়ার মত গ্রামে অনেক পরিবার রয়েছে। সরকার যেন পরবর্তীতে আবারো নতুন ভাবে বরাদ্দ বাড়ায় গৃহ নির্মাণের ব্যবস্থা গ্রহণ করেন।

এই বিভাগের আরো খবর