শনিবার   ১৭ আগস্ট ২০১৯   ভাদ্র ২ ১৪২৬   ১৫ জ্বিলহজ্জ ১৪৪০

বরগুনার আলো
ব্রেকিং:
ডেঙ্গুজ্বর থেকে মুক্তি পেতে ‘স্টপ ডেঙ্গু’ অ্যাপ চালু দেশব্যাপী সিরিজ বোমা হামলার ১৪ বছর আজ মেসিহীন হার দিয়ে লা লিগা শুরু বার্সার আজ থেকে হজের ফিরতি ফ্লাইট শুরু কবি শামসুর রাহমানের ১৩তম মৃত্যুবার্ষিকী আজ সোমবার ঢাকায় আসছেন ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রী কবিরা গুনাহকারীরা কি চিরকাল জাহান্নামে থাকবে? মিরপুরে বস্তির আগুন নিয়ন্ত্রণে ২০ ইউনিট ১৯ হাজার ৪০০ পিস ইয়াবাসহ আটক দুই বাড়তি ভাড়া আদায়ের অপরাধে ১৭ পরিবহনকে জরিমানা ‘সবসময় যারা আমাদের বাড়িতে ঘোরাঘুরি করতো তারাই সেই খুনি’   হাতঘড়ির ফ্যাশন ফিরে এসেছে দেশে শেখ হাসিনার জীবনই এখন বেশি ঝুঁকিপূর্ণ : কাদের বিশ্বের আট গুরুত্বপূর্ণ শহরে ‘মুজিববর্ষ’ উদযাপন করা হবে বিশ্বকাপ বাছাইয়ের জন্য প্রাথমিক দল ঘোষণা বাংলাদেশের জিরো টলারেন্স নীতিতে জঙ্গি দমন সম্ভব হয়েছে: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী রবি শাস্ত্রীই কোচের দায়িত্বে থাকছেন: সিএসি মুক্তিযুদ্ধে বিজয়ের প্রতিশোধ নিতেই বঙ্গবন্ধু হত্যা: প্রধানমন্ত্রী ঢাকা-দিল্লির সম্পর্ক নতুন উচ্চতায় পৌঁছেছে কাশ্মীর: ব্রিটিশ এশিয়ানদের কাছে কতটা গুরুত্বপূর্ণ?
১২

সকালের ৪ ব্যায়াম

প্রকাশিত: ৬ আগস্ট ২০১৯  

বিশেষজ্ঞদের মতে, ঘুম থেকে উঠে হালকা ‘স্ট্রেচিং’ বা দেহ টান টান করলে শরীরের ‘ম্যাজম্যাজ’ ভাব কাটাতে সাহায্য করে।

শরীরচর্চাবিষয়ক এক ওয়েবসাইট জানিয়েছে এমন চারটি স্ট্রেচিং পদ্ধতি।

যোগ ব্যায়ামের পদ্মাসন ভঙ্গিতে বসে দুই হাত সামনের দিকে যতটা সম্ভব বাড়িয়ে দিতে হবে। এ সময় দুই হাতের আঙুলগুলো ভাজে বসিয়ে নিতে হবে। হাতের তালু থাকবে সামনের দিকে। এরপর দুই হাত আস্তে মাথার উপর উঠাতে হবে। পরে কোমর থেকে ডানে ও বামে যতটা সম্ভব কাত হতে হবে।

এ পদ্ধতিতে শরীরের উপরাংশ, কাধ, বাহু ও কোমরের স্ট্রেচিং হয়।

পিঠের ভরে শুয়ে পা উপরে ওঠাতে হবে। পরে এক পায়ের হাঁটু ভাঁজ করে পেটের উপর এনে বিপরীত পাশের হাত দিয়ে চাপ দিতে হবে। এবার হাঁটুকে মেঝের দিকে টানতে হবে এবং কোমরের থেকে পিঠ বাঁকাতে হবে। তবে খেয়াল রাখতে হবে দুই কাঁধ যেন অবশ্যই মেঝেতে লেগে থাকে। একইভাবে দুই পায়ের মাধ্যমে ডানে-বামে ব্যায়ামটি করতে হবে।

এই ব্যায়ামের মাধ্যমে পিঠ, মেরুদণ্ড ও নিতম্বের পেশি স্ট্র্রেচিং হয়।

দুই পা ভাঁজ করে বসে পেছনে দুই হাতের তালু মাটিতে রেখে হাতের উপর শরীরের ওজন দিন। এবার ধীরে মাথা পেছনের দিকে এলিয়ে দিন এবং হাতে ভর দিয়ে কোমর থেকে পুরো শরীর উপরে ওঠাতে হবে। কিছুক্ষণ ধরে রেথে আগের অবস্থায় ফিরে যান। এভাবে কয়েকবার ব্যায়ামটি করতে হবে।

নিতম্ব, পেট ও বুকের পেশি টানটান হয় এই ব্যায়ামে।

সোজা হয়ে দাঁড়িয়ে জোরে শ্বাস টানার সঙ্গে দুই হাত মাথার উপরে টানটান করতে হবে। পাশাপাশি পায়ের গোড়ালি উপরে তুলে পায়ের পাতার ভরে দাঁড়াতে হবে। এতে পুরো শরীর টানটান হবে। এবার শ্বাস ছেড়ে আগের অবস্থায় ফিরে আসতে হবে। এবার কোমর থেকে শরীর বাঁকিয়ে হাত দিয়ে পায়ের আঙুল ধরার চেষ্টা করতে হবে। তবে হাঁটু ভাঁজ করা যাবে না। এই ব্যায়ামের মাধ্যমে ঘাড়, পুরো পিঠ, হাটুর পেছনের অংশ, ঘাড়, হাত সবকিছুই টানটান হবে।