• বৃহস্পতিবার   ০৬ মে ২০২১ ||

  • বৈশাখ ২২ ১৪২৮

  • || ২২ রমজান ১৪৪২

বরগুনার আলো
ব্রেকিং:
করোনা প্রাণ নিল আরও ৫০ জনের, নতুন শনাক্ত ১৭৪২ ধান-চাল ক্রয়ের জন্য অত্যন্ত যৌক্তিক দাম নির্ধারণ: কৃষিমন্ত্রী শপিংমল খোলা রাত ৮টা পর্যন্ত ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় তাণ্ডবের ঘটনায় আরো ১০ জন গ্রেফতার করোনায় একদিনে আরও ৬১ জনের মৃত্যু জুনায়েদ আল হাবিব আরও ৪ দিনের রিমান্ডে নাশকতার মামলায় ফের ৫ দিনের রিমান্ডে মামুনুল হক জামায়াত-শিবিরের ৮ নেতাকর্মী আটক করোনায় প্রাণ গেল আরও ৬৫ জনের, শনাক্ত ১৭৩৯ ‘লকডাউন’ বাড়লো ১৬ মে পর্যন্ত অর্থবিত্তে বড় হলেও সত্য সংবাদ পরিবেশন হওয়া উচিত: তথ্যমন্ত্রী জনস্বার্থে মামলার নামে জনমনে ভীতি ছড়াবেন না: হাইকোর্ট মাদারীপুরে নৌ দুর্ঘটনায় নিহত বেড়ে ২৬ দেশে ২৪ ঘণ্টায় করোনাভাইরাসে মৃত ৬৯ যত টাকাই লাগুক, আমরা আরো ভ্যাকসিন নিয়ে আসবো: প্রধানমন্ত্রী পদ্মা সেতুর স্ট্রাকচারের কাজ শেষ হয়েছে : কাদের সব কোর্ট খুললে সংক্রমণ বাড়বে: প্রধান বিচারপতি এবার মামুনুলের ২৪ দিনের রিমান্ড চেয়েছে পুলিশ করোনার দ্বিতীয় ঢেউ খুবই মারাত্মক: প্রধানমন্ত্রী সব সময় দুর্গত মানুষের পাশে থাকে আওয়ামী লীগ: প্রধানমন্ত্রী

সমন্বিত ভর্তি পরীক্ষার প্রাথমিক আবেদন শেষ হচ্ছে বৃহস্পতিবার

বরগুনার আলো

প্রকাশিত: ১৫ এপ্রিল ২০২১  

২০টি সাধারণ এবং বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের গুচ্ছ পদ্ধতিতে ভর্তির প্রাথমিক আবেদন কার্যক্রম শেষ হচ্ছে বৃহস্পতিবার। ২৩ এপ্রিল যোগ্যপ্রার্থীদের ফল প্রকাশ করা হবে।

২৪ এপ্রিল থেকে চূড়ান্ত আবেদন কার্যক্রম শুরু করা হবে। তবে প্রাথমিক আবেদনের সময় আর বাড়ছে না।

গত ১০ এপ্রিল জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের জনসংযোগ, তথ্য ও প্রকাশনা দপ্তর থেকে এক জরুরি বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে আবেদনের সময় না বাড়ার বিষয়টি নিশ্চিত করা হয়েছে।

গুচ্ছ ভর্তি পরীক্ষার বিজ্ঞপ্তি অনুযায়ী, বিজ্ঞান শাখার ক্ষেত্রে ২০১৭, ২০১৮ সালে এসএসসি/সমমান ও ২০১৯, ২০২০ সালে এইচএসসি/সমমান উভয় পরীক্ষায় (৪র্থ বিষয়সহ) ন্যূনতম জিপিএ ৩.৫০সহ সর্বমোট জিপিএ ৮.০০ থাকতে হবে।

মানবিক শাখার ক্ষেত্রে- ২০১৭, ২০১৮ সালে এসএসসি/সমমান ও ২০১৯, ২০২০ সালে এইচএসসি/সমমান উভয় পরীক্ষায় (৪র্থ বিষয়সহ) ন্যূনতম জিপিএ ৩.৫০সহ সর্বমোট জিপিএ ৭.০০ থাকতে হবে।

বাণিজ্য শাখার ক্ষেত্রে-২০১৭, ২০১৮ সালেএসএসসি/সমমান ও ২০১৯, ২০২০ সালে এইচএসসি/সমমান উভয় পরীক্ষায় (৪র্থ বিষয়সহ) ন্যূনতম জিপিএ ৩.৫০সহ সর্বমোট জিপিএ ৭.৫০ থাকতে হবে।

প্রাথমিকভাবে আবেদনকৃত শিক্ষার্থীদের এসএসসি/সমমান ও এইচএসসি/সমমান পরীক্ষার ফলের ভিত্তিতে (সর্বোচ্চ ৬ বাছাইয়ের মানদণ্ড অনুসারে) ইউনিটভিত্তিক চূড়ান্ত আবেদনের জন্য শিক্ষার্থী নির্বাচিত হবে। প্রতিটি ইউনিটে নির্দিষ্ট সংখ্যক শিক্ষার্থী ভর্তি পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করতে পারবে। নির্ধারিত সময়ে চূড়ান্ত আবেদন সম্পন্ন করতে হবে। অন্যথায় পরবর্তী তালিকা থেকে প্রয়োজনীয় সংখ্যক শিক্ষার্থীকে চূড়ান্ত আবেদনের সুযোগ দেওয়া হবে। প্রতিটি ইউনিটে আবেদন ফি ৬০০ টাকা মাত্র মোবাইল ব্যাংকিং (বিকাশ, রকেট, নগদ, টেলিটক)-এর মাধ্যমে দিতে হবে।  

চূড়ান্ত আবেদনের সময় শিক্ষার্থীদের ২৮টি পরীক্ষা কেন্দ্রের মধ্যে ন্যূনতম ৫টি কেন্দ্র পছন্দের তালিকায় রাখতে হবে। এসএসসি/সমমান ও এইচএসসি/সমমান কোর্সের শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের অবস্থান, এসএসসি ও এইচএসসি/সমমান পরীক্ষার প্রাপ্ত নম্বর,পাসের বছরসহ সংশ্লিষ্ট বিষয়াদি বিবেচনা পূর্বক প্রতিটি শিক্ষার্থীদের জন্য একটি কেন্দ্র নির্ধারণী স্কোর (সর্বোচ্চ ১০০) প্রস্তুত করা হবে। প্রাপ্ত স্কোর ও কেন্দ্রের পছন্দক্রমের ভিত্তিতে শিক্ষার্থীদের পরীক্ষা কেন্দ্র নির্ধারণ করা হবে। নির্ধারিত পরীক্ষা কেন্দ্র পরিবর্তনের কোনো সুযোগ নেই।  

জানা গেছে, গত ১ এপ্রিল থেকে ২০২০-২১ শিক্ষাবর্ষে গুচ্ছ ভর্তি পরীক্ষার প্রাথমিক আবেদন শুরু হয়। পরীক্ষা শুরু হবে ১৯ জুন থেকে। গুচ্ছভিত্তিক ভর্তি পরীক্ষার বিস্তারিত তথ্যাদি ভর্তি সংশ্লিষ্ট ওয়েব সাইট (www.gstadmission.org এবং www.gstadmission.ac.bd) এ পাওয়া যাবে।

বরগুনার আলো