সোমবার   ২১ অক্টোবর ২০১৯   কার্তিক ৫ ১৪২৬   ২১ সফর ১৪৪১

বরগুনার আলো
ব্রেকিং:
আঞ্চলিক সহযোগিতাসহ বিভিন্ন ইস্যুতে ইইউ-বাংলাদেশ সভা আজ সৌদিতে সড়ক দুর্ঘটনা: নিহতদের স্বজনদের যোগাযোগের আহ্বান কাউন্সিলর রাজীব ১৪ দিনের রিমান্ডে সোনাদিয়া দ্বীপে শিল্পকারখানা না করতে প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশ রুশ ভাষায় প্রকাশিত বই প্রধানমন্ত্রীর কাছে হস্তান্তর যুবলীগের সম্মেলন কমিটির আহ্বায়ক চয়ন, সদস্য সচিব হারুন ওমর বহিষ্কার, যুবলীগের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তাপস বোরহানউদ্দিনে সংঘর্ষের ঘটনায় তদন্ত কমিটি মাছের খাদ্যে শূকরের উপাদান আছে কিনা পরীক্ষার নির্দেশ স্পিকারের সঙ্গে পাঁচ মার্কিন সিনেটরের সাক্ষাৎ বৃদ্ধাশ্রম নয়, মা-বাবার জায়গা হোক হৃদয়ের মণিকোঠায় মিঠাপানিতে রুপালি ইলিশ ভারতের বিপক্ষে বিশ্ব একাদশে সাকিব-তামিম! হিন্দু ছেলের আইডি হ্যাক, ফেসবুকের কাছে তথ্য চেয়েছেন প্রধানমন্ত্রী ডিআইজি বজলুরকে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ সৈকতঘেরা জাকার্তায় প্রকৃতির অপার সৌন্দর্য নেপাল ভ্রমণের খুঁটিনাটি জাপান সম্রাটের অভিষেকে যোগ দিতে ঢাকা ছেড়েছেন রাষ্ট্রপতি শিশুর জন্মের পর ইসিতে জানানোর আইন চান সিইসি গণভবনে যুবলীগ নেতাদের সঙ্গে প্রধানমন্ত্রীর বৈঠক
১৩৭

সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরলো সেই ভ্যানচালক শাহীন

প্রকাশিত: ২১ সেপ্টেম্বর ২০১৯  

ছিনতাইকারীদের হামলায় আহত ভ্যানচালক শাহীন বাড়ি ফিরেছে। তাকে একনজর দেখার জন্য লোকজন ছুটে আসছে তার বাড়িতে। দীর্ঘ তিন মাস পর ১৯ সেপ্টেম্বর রাতে সাতক্ষীরার কেশবপুরের মঙ্গলকোট গ্রামের নিজ বাড়িতে ফিরে আসে শাহিন। তিনি মঙ্গলকোট গ্রামের হায়দার আলী মোড়লের ছেলে।

গত ২৮ জুন জীবিকার তাগিদে তার একমাত্র সম্বল ব্যাটারিচালিত ভ্যান নিয়ে বাড়ি থেকে বের হয় শাহীন। কিন্তু ছিনতাইকারীরা তাকে রক্তাক্ত জখম করে তালা উপজেলার ধানদিয়া ইউনিয়নের জামতলা নামক স্থানে পাট ক্ষেতের মাঝখানে ফেলে রেখে যায়। স্থানীয়দের সহায়তায় তাকে উদ্ধার করে সাতক্ষীরা সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। তার শারীরিক অবস্থার অবনতি হলে তাকে খুলনায় রেফার করা হয়, সেখান থেকে ঢাকা মেডিকেল।

এরপর ঢামেকে চিকিৎসাধীন কিশোর শাহীনের চিকিৎসার সকল ব্যয়ভার গ্রহণ করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এছাড়াও তার উপর হামলাকারীদের ইতোমধ্যে পুলিশ গ্রেফতার করেছে।

স্থানীয় ওয়ার্ড সদস্য জহির রায়হান জানান, শাহীনের শারীরিক অবস্থা এখন ভালোর দিকে। তবে ডান হাতটা প্যারালাইজড রোগীদের মত। মাথার ক্ষত পুরোপুরিভাবে শুকালে এই সমস্যা ঠিক হয়ে যাবে বলে জানিয়েছেন ডাক্তার।

শাহীনের বাবা-মায়ের ইচ্ছা ছেলে সুস্থ হয়ে লেখাপড়া শিখে ভাল চাকরি করবে। সে আর ভ্যানগাড়ি চালাবে না। এদিকে নিজেদের বসতভিটার জায়গা ও ভাল ঘর না থাকায় ইউপি সদস্য জহির রায়হানের কাছে একটা ঘরের দাবি জানিয়েছে শাহীনের পরিবার।

এই বিভাগের আরো খবর