বৃহস্পতিবার   ২৭ ফেব্রুয়ারি ২০২০   ফাল্গুন ১৫ ১৪২৬   ০৩ রজব ১৪৪১

বরগুনার আলো
ব্রেকিং:
খালেদা জিয়ার জামিন আবেদন খারিজ বঙ্গবন্ধু অসাম্প্রদায়িক বাংলাদেশ দিয়েছেন : স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী মশা যেন ভোট খেয়ে না ফেলে, নতুন মেয়রদের প্রধানমন্ত্রী তাপস-আতিককে শপথ পড়ালেন প্রধানমন্ত্রী আমার কাছে রিপোর্ট আসছে, কাউকে ছাড়ব না : প্রধানমন্ত্রী দ্বিতীয় কিস্তির ২৭ কোটি ৬০ লাখ টাকা বিটিআরসিকে দিল রবি মাধ্যমিক পর্যন্ত বিজ্ঞান বাধ্যতামূলকের নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর ওপর নজরদারি বাড়াতে বললেন প্রধানমন্ত্রী বরগুনায় ওয়ারেন্ট ভুক্ত দুই আসামী গ্রেপ্তার আজকের স্বর্ণপদক প্রাপ্তরা ২০৪১ এর বাংলাদেশ গড়ার কারিগর যে কোন অর্জনের পেছনে দৃঢ় মনোবল এবং আত্মবিশ্বাস গুরুত্বপূর্ণ ‘প্রধানমন্ত্রী স্বর্ণপদক’ পেলেন ১৭২ শিক্ষার্থী আজ ১৭২ শিক্ষার্থী প্রধানমন্ত্রী স্বর্ণপদক পাচ্ছেন অশান্ত দিল্লিতে কারফিউ, নিহত ১৭ পিকে হালদারসহ ২০ জনের ব্যাংক হিসাব জব্দের আদেশ বহাল ৭ মার্চ জাতীয় দিবস ঘোষণা করে হাইকোর্টের রায় ১৪ দিনেই ভালো হচ্ছেন করোনা রোগী : আইইডিসিআর মুশফিক-নাঈমে ইনিংস ব্যবধানে দূর্দান্ত জয় টাইগারদের পিলখানা ট্র্যাজেডি দিবস আজ রিফাত হত্যা মামলার আসামি সিফাতের বাবা গ্রেফতার
১২৪

সোনার বাংলা গড়তে অবদান রাখবে আনসার ও গ্রাম প্রতিরক্ষা বাহিনী

বরগুনার আলো

প্রকাশিত: ১১ ফেব্রুয়ারি ২০২০  

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আশা প্রকাশ করে বলেছেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ক্ষুধা-দারিদ্র্যমুক্ত ও সুখী-সমৃদ্ধ স্বপ্নের সোনার বাংলাদেশ গড়তে বাংলাদেশ আনসার ও গ্রাম প্রতিরক্ষা বাহিনীর প্রতিটি সদস্য গুরুত্বপূর্ণ অবদান রাখবেন। আগামীকাল বাংলাদেশ আনসার ও গ্রাম প্রতিরক্ষা বাহিনীর প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী ও ৪০তম জাতীয় সমাবেশ- উপলক্ষে আজ মঙ্গলবার দেয়া একবাণীতে প্রধানমন্ত্রী এই আশাবাদ ব্যক্ত করেন।

শেখ হাসিনা বলেন, ‘আমি আশা করি, বাংলাদেশ আনসার ও গ্রাম প্রতিরক্ষা বাহিনীর প্রতিটি সদস্য দেশপ্রেমের গভীর আদর্শ ও চেতনায় উজ্জীবিত হয়ে বাহিনীর সুনাম, ঐতিহ্য, মর্যাদা অক্ষুন্ন রেখে দেশ ও জাতির শান্তি-শৃঙ্খলা এবং নিরাপত্তা রক্ষা ও সার্বিক আর্থসামাজিক উন্নয়নে আরো দায়িত্ববান হবেন। জাতির পিতার ক্ষুধা-দারিদ্র্যমুক্ত ও সুখী-সমৃদ্ধ স্বপ্নের সোনার বাংলাদেশ গড়তে গুরুত্বপূর্ণ অবদান রাখবেন।’ প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী ও ৪০তম জাতীয় সমাবেশ উপলক্ষে এ বাহিনীর সর্বস্তরের কর্মকর্তা, কর্মচারী এবং সদস্যদের আন্তরিক শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন জানিয়ে প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘আনসার সদস্যরা দেশের বিভিন্ন সংস্থা ও শিল্প কারখানার নিরাপত্তা রক্ষায় নিয়োজিত থেকে মানুষের জান-মাল হেফাজতের দায়িত্ব দক্ষতার সঙ্গে পালন করে আসছে। মাদক নিয়ন্ত্রণ, সন্ত্রাস, জঙ্গিবাদ, উগ্রবাদ ও সহিংসতা প্রতিরোধে এ বাহিনী কাজ করে যাচ্ছে।’

তিনি বলেন, ‘দেশের সার্বিক আইন-শৃঙ্খলা রক্ষা এবং জননিরাপত্তায় বাহিনীর সদস্যরা সদা তৎপর। সকল নির্বাচন, বিভিন্ন ধর্মীয় উৎসব এবং জাতীয় গুরুত্বপূর্ণ ও সংকটময় মুহুর্তে এ বাহিনীর সদস্যরা দক্ষতার সঙ্গে দায়িত্বপালন করে আসছেন।’
শেখ হাসিনা বলেন, ‘বাংলাদেশ আনসার ও গ্রাম প্রতিরক্ষা বাহিনী সরকারের যাবতীয় উন্নয়ন কর্মকান্ডের সাফল্যের অন্যতম অংশীদার। এ বাহিনী জাতীয় অঙ্গনে গুরুত্বপূর্ণ দায়িত্বপালন করে আসছে।’ তিনি বলেন, ‘দেশের গ্রামীণ জনপদে আত্মকর্মসংস্থান, গণশিক্ষা, পরিবার পরিকল্পনা, জনস্বাস্থ্য, দুর্যোগ মোকাবিলা, পরিবেশ রক্ষা, বৃক্ষরোপণ, নারী ও শিশু পাচার রোধ এবং সামাজিক শৃঙ্খলা রক্ষাসহ সকল কার্যক্রমে এ বাহিনীর সদস্যরা অবদান রাখছেন।’
ভাষা আন্দোলন, মুক্তিযুদ্ধসহ বিভিন্ন সময়ে রাষ্ট্রীয় দায়িত্ব পালনকালে এই বাহিনীর যাঁরা শহিদ হয়েছেন, তাদের আত্মার মাগফেরাত কামনা করে প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘বাংলাদেশ আনসার ও গ্রাম প্রতিরক্ষা বাহিনীর রয়েছে গৌরবময় ঐতিহ্য। সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ বাঙালি, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের আহ্বানে সাড়া দিয়ে ১৯৭১ সালে এ বাহিনীর সদস্যরা মহান মুক্তিযুদ্ধে ঝাঁপিয়ে পড়েন।’ বাণীতে তিনি বাংলাদেশ আনসার ও গ্রাম প্রতিরক্ষা বাহিনীর উত্তরোত্তর সাফল্য কামনা করেন।

বরগুনার আলো
এই বিভাগের আরো খবর