রোববার   ২২ সেপ্টেম্বর ২০১৯   আশ্বিন ৬ ১৪২৬   ২২ মুহররম ১৪৪১

বরগুনার আলো
ব্রেকিং:
ক্যাসিনো মালিকদের গল্প প্রয়োজনে ঋণ নেব, তবু ডোনেশন নয়-পরিকল্পনামন্ত্রী খেলাধুলার বিকল্প নেই: সমাজকল্যাণ প্রতিমন্ত্রী কুরআনের ১০০ নির্দেশনা গ্রানাদার কাছে বার্সার পরাজয় চলমান অভিযান জনমনে প্রত্যাশার সৃষ্টি করবে: টিআইবি ৪০ কোটি টাকা নিয়ে পালানো সেই টার্কি বাবলু স্ত্রীসহ গ্রেপ্তার নারায়ণগঞ্জে পুলিশের ওপর হামলা, গুলিবিদ্ধ ১ ৪ দিনের সফরে ঢাকায় ভারতের নৌবাহিনী প্রধান ধোনির বাড়িতে প্রতিদিন লোডশেডিং, বিরক্ত স্ত্রী আর্থ-সামাজিক উন্নয়নে নিরলসভাবে কাজ করছে সরকার : প্রধানমন্ত্রী পদোন্নতি না নিলে শাস্তি ব্যক্তিগত গাড়ির ওপর নির্ভরশীলতা কমাতে হবে : রাষ্ট্রপতি পাঁচ বছর আফগানিস্তানকে হারাল বাংলাদেশ ভূতের আড্ডায় অভিযান, বাতি জ্বালাতেই অপ্রীতিকর দৃশ্য কথাসাহিত্যিক শরদিন্দুর প্রয়াণ বিষাক্ত মদ পান করে ২ যুবকের মৃত্যু ঠাকুরগাঁওয়ের বাস কাউন্টারে মিলল মানুষের ৪ বস্তা খুলি ও হাড় রিফাত হত্যা মামলার আলামত আদালতে দাখিল, সাক্ষী ৭৫ কুমিল্লায় আগ্নেয়াস্ত্র ও ইয়াবাসহ যুবক আটক
১১

স্টেডিয়ামে লাগানো হলো তিন শতাধিক গাছ

প্রকাশিত: ৯ সেপ্টেম্বর ২০১৯  

 


অস্ট্রিয়ার ক্লাগেনফুর্টে ওয়ের্দারসি ফুটবল স্টেডিয়ামে গেলে সবার চক্ষু চড়কগাছ হবেই। ২০০৮ সালে যারা ইউরোপিয়ান ফুটবল চ্যাম্পিয়নশিপের ম্যাচ দেখতে গিয়েছিলেন, তারা এখন গেলে ভাববেন- ভুল করেই এসেছেন এ পথে।

৩২ হাজার দর্শক ধারণক্ষমতাসম্পন্ন স্টেডিয়ামজুড়ে শিল্পী ক্লাউস লিটম্যান আর্ট প্রজেক্টের অংশ হিসেবে রোপণ করেন ৩০০টির অধিক গাছ। এসব গাছের মধ্যে আছে- ফিল্ড ম্যাপল, ওক, হোয়াইট উইলো, হর্নবিম, আস্পেন প্রভৃতি। সারি সারি গাছ দেখে মনে হবে, এটা এক গভীর অরণ্য।

মূলতঃ অধিক হারে গাছ কাটা ও জলবায়ুর পরিবর্তন সংক্রান্ত বার্তা মানুষের কাছে পৌঁছে দিতেই এই উদ্যোগ নেন ক্লাউস লিটম্যান। দর্শনার্থীদের জন্য উন্মুক্ত করে দেওয়া হচ্ছে এই স্টেডিয়াম।

স্টেডিয়ামে গাছবার্তা সংস্থাকে লিটম্যান জানিয়েছে, ম্যাক্স পেইন্টনারের ছবি ‘দ্য আনেনডিং অ্যাট্রাকশন অফ নেচার’-এ গাছে পূর্ণ স্টেডিয়াম দেখা গেছে, যেটি দেখতে ভিড় করেছিল হাজার হাজার মানুষ। ডিসটোপিয়ান চিন্তাধারায় আঁকা সেই ছবিকে বাস্তবে রূপ দিতে এ পরিকল্পনা নিয়েছিলাম। অবশেষে তা বাস্তবে রূপ পেয়েছে। প্রকল্পটির নাম দেয়া হয়েছে ‘ফর ফরেস্ট’।

এদিকে ক্লাগেনফুর্ট কর্তৃপক্ষের প্রকল্পের কারণে আগামী ২৬ অক্টোবর পর্যন্ত স্টেডিয়ামটিতে কোনো ফুটবল ম্যাচ হবে না। অবশ্য ২৭ অক্টোবর গাছগুলো স্টেডিয়াম থেকে সরিয়ে নেওয়া হবে।

অস্ট্রিয়ার ক্লাগেনফুর্ট ফুটবল দল সে সময় পর্যন্ত দ্বিতীয় বিভাগে খেলার জন্য অন্য মাঠ ব্যবহার করবে।

এই বিভাগের আরো খবর