বুধবার   ১৮ সেপ্টেম্বর ২০১৯   আশ্বিন ৩ ১৪২৬   ১৮ মুহররম ১৪৪১

বরগুনার আলো
ব্রেকিং:
রিফাত হত্যা : পলাতক ৯ জনের বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা রোহিঙ্গা সংকট : ত্রিপক্ষীয় বৈঠকে বসছে চীন-মিয়ানমার-বাংলাদেশ আমাদের কাজই হচ্ছে জনগণকে সেবা দেয়া : প্রধানমন্ত্রী রোহিঙ্গা ইস্যুতে চীন বাংলাদেশের পক্ষে: মোমেন আজ গাজীপুর যাবেন প্রধানমন্ত্রী পরিবেশ দূষণ: ৪ প্রতিষ্ঠানকে কোটি টাকা জরিমানা স্বর্ণজয়ী রোমান সানার মায়ের চিকিৎসার দায়িত্ব নিলেন প্রধানমন্ত্রী আরো দু’টি বোয়িং বিমান কেনার ইঙ্গিত দিলেন প্রধানমন্ত্রী কারাবন্দির তথ্য ডাটাবেজে থাকবে: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অপ্রতিরোধ্য গতিতে এগিয়ে যাচ্ছে দেশ: প্রধানমন্ত্রী অত্যাধুনিক প্রযুক্তির ‘রাজহংস’ উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী গরিবের ঘরবাড়ি গ্রাম যেন ভাঙা না হয়: প্রধানমন্ত্রী দুই মাসে এডিপি বাস্তবায়নের হার বেড়েছে ৪.৪৮ শতাংশ উদ্বোধনের দিনেই পদ্মাসেতুতে ট্রেন চলবে: রেলমন্ত্রী ৮ হাজার ৯৬৮ কোটি ৮ লাখ টাকার প্রকল্প একনেকে অনুমোদন ভারতীয় কোস্টগার্ড ডিজির সঙ্গে রীভা গাঙ্গুলির বৈঠক ইসির চুরি যাওয়া ল্যাপটপ উদ্ধার, আটক ৩ আজ মহান শিক্ষা দিবস প্রধানমন্ত্রী ‘রাজহংস’ উদ্বোধন করবেন আজ রোহিঙ্গা ভোটার: ইসি কর্মচারীসহ আটক ৩
১৩৫৪

স্ত্রীর পরকীয়া প্রেমিককে ছেলেধরা বলে পিটিয়ে হত্যা

প্রকাশিত: ২৩ জুলাই ২০১৯  

ঢাকার ধামরাইয়ে স্ত্রীর সঙ্গে পরকীয়া করায় প্রবাস ফেরত এক ব্যবসায়ীকে ছেলেধরা বলে পিটিয়ে হত্যার অভিযোগ উঠেছে। রোববার দিবাগত রাত ১২টার দিকে উপজেলার রোয়াইল ইউনিয়নের কৃষ্ণনগর এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। নিহত ব্যক্তির নাম আবুল কালাম আজাদ (২৭)। গতকাল সোমবার ধামরাই থানার পরিদর্শক দীপক সাহা বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। এ ঘটনায় ছয়জনকে আটক করেছে পুলিশ।

দীপক সাহা জানান, প্রবাস ফেরত আবুল কালাম আজাদ মাটির ব্যবসায়ী ছিলেন। একই এলাকার এক মুদি দোকানির স্ত্রীর সঙ্গে তার পরকীয়ার সম্পর্ক ছিল। ওই মুদি দোকানি তার দোকান পাহারা দেয়ার জন্য রাতে সেখানেই থাকতেন। এই সুযোগে তার স্ত্রী প্রবাস ফেরত আবুল কালাম আজাদের সঙ্গে পরকীয়ায় জড়িয়ে পড়েন। তবে বিষয়টি বুঝতে পেরে ওই মুদি দোকানি তার স্ত্রীকে ভয় দেখান ও হত্যার হুমকি দেন।

তিনি আরো জানায়, রোববার রাতে আবুল কালাম আজাদকে ওই দোকানি তার স্ত্রীর মাধ্যমে কৌশলে বাড়িতে ডেকে নেন। পরে সেখানে তাকে প্রথমে ছেলেধরা ও পরে ডাকাত বলে বেধড়ক মারপিট করা হয়। এতে ঘটনাস্থলেই তার মৃত্যু হয়। পরে পুলিশ গিয়ে পরকীয়ায় বিষয়টি নিশ্চিত হয়ে স্বামী-স্ত্রীসহ তাদের সহযোগী ছয়জনকে আটক করে।

দীপক সাহা বলেন, হত্যাকারীরা নিজেদের বাঁচাতে নানা উপায় খুঁজতে থাকে ও ভুল তথ্য দেয়। পরে সন্দেহ হলে জিজ্ঞাসাবাদে মূল ঘটনা বেরিয়ে আসে। লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য ঢাকার শহীদ সোহরাওয়ার্দী মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে।

এই বিভাগের আরো খবর