বৃহস্পতিবার   ১৪ নভেম্বর ২০১৯   কার্তিক ৩০ ১৪২৬   ১৬ রবিউল আউয়াল ১৪৪১

বরগুনার আলো
ব্রেকিং:
কৃষি জমি রক্ষায় কাজ করছে সরকার: প্রধানমন্ত্রী চার বছরের মধ্যে দারিদ্রের হার কমবে : প্রধানমন্ত্রী আজ ঝালকাঠির দুই বিচারক হত্যা দিবস পিকেএসএফ উন্নয়ন মেলার উদ্বোধন করেছেন প্রধানমন্ত্রী আয়কর মেলা: ১১৩ কোটি থেকে লক্ষ্যমাত্রা তিন হাজার কোটি টাকা রোহিঙ্গা নিপীড়নে এবার সুচি’র বিরুদ্ধে আর্জেন্টিনায় মামলা টেস্ট বিশ্বকাপ অভিষেকে টস জিতে ব্যাটিংয়ে বাংলাদেশ রোহিঙ্গা সমস্যার পেছনে জিয়াউর রহমানের হাত ছিল: প্রধানমন্ত্রী খেলাপি ঋণ অবশ্যই আদায় করা হবে: অর্থমন্ত্রী ধেয়ে আসছে ‘বুলবুলে’র চেয়েও ভয়ানক ঘূর্ণিঝড় ‘নাকরি’ দেশের কল্যাণে প্রয়োজনে বাবার মতো জীবন দেবো: শেখ হাসিনা বিমানে উড়ে বাংলাদেশ এল ২২৫টি গরু! দেশে রফতানি বাড়াতে দরকার পরিবহন খাতে উন্নয়ন: বিশ্বব্যাংক মা হারানো সেই শিশুর দায়িত্ব নিলেন উপমন্ত্রী শামীম মালয়েশিয়ায় বীমার আওতায় দুই লাখ বাংলাদেশি কর্মী আওয়ামী লীগে দূষিত রক্তের প্রয়োজন নেই: সেতুমন্ত্রী ঘুরে দাঁড়িয়ে দুর্দান্ত জয় বাংলাদেশের মেয়েদের শেখ হাসিনার নেতৃত্ব মানুষের দিন বদল হয়েছে-তথ্যমন্ত্রী ৭৫ পরবর্তীতে অনেকে উচ্ছিষ্টের লোভে দল ছেড়ে চলে গেছেন: নওফেল বরগুনায় নিজের মেয়েকে ধর্ষণ করল বাবা
২৯

হৃদরোগ চিকিৎসায় অধিক সংখ্যক নারী চিকিৎসক তৈরি করতে হবে-স্পিকার

প্রকাশিত: ১২ সেপ্টেম্বর ২০১৯  

 

হৃদরোগ চিকিৎসায় অধিক সংখ্যক নারী চিকিৎসক তৈরির ওপর গুরুত্ব দিয়েছেন জাতীয় সংসদের স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী।

স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী বলেন, হৃদরোগ চিকিৎসায় নারী চিকিৎসকদের এগিয়ে আসতে হবে। তারা নারীদের পাশাপাশি পুরুষদেরও স্বাস্থ্যসেবা দিতে পারে।

এ সময় তিনি হৃদরোগ চিকিৎসায় অধিক সংখ্যক নারী চিকিৎসক তৈরি, তাদের জন্য অনুকূল কর্মপরিবেশ ও অসংক্রামক রোগ সম্পর্কে সচেতনতা বাড়ানোন ওপর গুরুত্বারোপ করেন।

বৃহস্পতিবার (১২ সেপ্টেম্বর) রাজধানীর মিরপুরে ন্যাশনাল হার্ট ফাউন্ডেশন হাসপাতাল অ্যান্ড রিসার্চ ইনস্টিটিউট অডিটোরিয়ামে ‘ন্যাশনাল হার্ট ফাউন্ডেশন আয়োজিত উইমেন অ্যাজ ওয়ান, বাংলদেশ চ্যাপ্টার’র উদ্বোধন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে স্পিকার এসব কথা বলেন।

স্পিকার বলেন, সরকারের নানামুখী উদ্যোগের ফলে বাংলাদেশ সংক্রামক রোগ নিয়ন্ত্রণে সফল হয়েছে।  জীবনমান উন্নয়নের সঙ্গে সঙ্গে জীবনযাপন প্রণালিতে পরিবর্তন আসাসহ বিভিন্ন কারণে সংক্রামক বিভিন্ন রোগ বেড়ে চলেছে। সে কারণে এসব রোগের চিকিৎসায় বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক তৈরি করা প্রয়োজন। মেধা, দক্ষতা ও যোগ্যতার স্বাক্ষর রেখে নারী চিকিৎসকরা এগিয়ে যাচ্ছেন বলে স্পিকার উল্লেখ করেন।

তিনি বলেন, নারীদের মৃত্যুর অন্যতম প্রধান কারণ হৃদরোগ। হৃদরোগের সেবা নিতে আসা নারীদের সংখ্যা অনেক কম। এর পেছনে অন্যতম কারণ অজ্ঞতা, অসচেতনতা এবং পুরুষ হৃদরোগ বিশেষজ্ঞদের কাছে চিকিৎসা নিতে সংকোচ বোধ। এজন্য প্রতিটি হাসপাতালে নারী হৃদরোগ বিশেষজ্ঞ নিয়োগ দেওয়া জরুরি। নারী চিকিৎসকদের সুযোগ-সুবিধা বাড়ানো এবং হৃদরোগ চিকিৎসা সংক্রান্ত উচ্চতর প্রশিক্ষণের ব্যবস্থা করা প্রয়োজন বলেও তিনি উল্লেখ করেন।

তিনি বলেন, সব প্রতিকূলতা জয় করে অনুকূল পরিবেশ সৃষ্টি করতে পারলে হৃদরোগের মতো চিকিৎসায় নারীরা এগিয়ে আসতে উৎসাহী হবেন। কেন না শুধু বাংলদেশে নয় সারাবিশ্বে হৃদরোগের চিকিৎসায় নারী চিকিৎসকের সংখ্যা অপ্রতুল। ন্যাশনাল হার্ট ফাউন্ডেশন অব বাংলাদেশের উদ্যোগে নারী হৃদরোগ বিশেষজ্ঞদের সমন্বয়ে একটি সচেতনতামূলক ফোরাম Women as One, Bangladesh Chapter গঠন করা হয়েছে। যা এক অনন্য উদ্যোগ।

ন্যাশনাল হার্ট ফাউন্ডেশন অব বাংলদেশের প্রতিষ্ঠাতা ও সভাপতি, জাতীয় অধ্যাপক ব্রিগেডিয়ার (অব.) আব্দুল মালিকের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন সংসদ সদস্য অপরাজিতা হক।

অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন উইমেন অ্যাজ ওয়ান বাংলদেশ চ্যাপ্টারের আহ্বায়ক অধ্যাপক ফজিলা তুন নেসা মালিক।

অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন সারাদেশ থেকে আসা নারী হৃদরোগ চিকিৎসকরা।

এই বিভাগের আরো খবর