শুক্রবার   ২৪ জানুয়ারি ২০২০   মাঘ ১০ ১৪২৬   ২৮ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪১

বরগুনার আলো
ব্রেকিং:
চিকিৎসকদের ফি নির্ধারণ করে দেবে সরকার : স্বাস্থ্যমন্ত্রী প্রধানমন্ত্রী টুঙ্গিপাড়া যাচ্ছেন কাল পদ্মাসেতুতে বসলো ২২তম স্প্যান, দৃশ্যমান হলো ৩৩০০ মিটার জাতীয় প্রশিক্ষণ দিবস আজ এ খাবারগুলো খেলেই বিপদ! ১২৭ যাত্রী নিয়ে মাঝ আকাশে জ্বালানি শেষ, অতঃপর...! জাদুকরী স্বপ্ন দেখাব না : তাপস কাউকে তাড়ানোর আগে আমাকে ভারত ছাড়া করতে হবে : মমতা গণতন্ত্র সূচকে ৮ ধাপ অগ্রগতি বাংলাদেশের র‌্যাবের নামে চাঁদা দাবির ঘটনায় আটক ১ ছাত্রীদের টিফিনের টাকায় বঙ্গবন্ধুর হাজারো ছবি কক্সবাজার সৈকতে জাকাত না দেয়ার করুণ পরিণতি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আজ স্বর্ণদ্বীপ যাচ্ছেন ভারতে শিরোপা জিতলো বাংলাদেশের মেয়েরা সারওয়ার আলীকে হত্যাচেষ্টা মামলার মূল আসামি গ্রেফতার ধনী হতে চাইলে রপ্ত করুন এই ১২টি অভ্যাস নিরাপদে লাহোর পৌঁছেছেন টাইগাররা আজ আইসিজেতে রোহিঙ্গা গণহত্যা মামলার রায় ক্যাসিনো ব্রাদার্সের ১৩০ ফ্ল্যাটের খোঁজ ফার্নিচার রপ্তানি ১০ কোটি ডলার ছাড়াবে

৩য় শ্রেণী পর্যন্ত পরীক্ষা বাতিলের সব প্রক্রিয়া চূড়ান্ত

বরগুনার আলো

প্রকাশিত: ১১ সেপ্টেম্বর ২০১৯  

প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশ অনুযায়ী ১ম থেকে ৩য় শ্রেণি পর্যন্ত পরীক্ষা বাতিলের সব প্রক্রিয়া ইতোমধ্যেই চূড়ান্ত হয়েছে। আগামী বছর ১০০ টি স্কুলে পরীক্ষা মূলকভাবে এ পদ্ধতি কার্যকর করা হবে বলে জানিয়েছেন, প্রাথমিক ও গণশিক্ষা প্রতিমন্ত্রী। এ উদ্যোগকে সাধুবাদ জানিয়ে শিক্ষাবিদরা বলছেন, সরকারের এমন সিদ্ধান্তে ভবিষ্যৎ প্রজন্ম আরো সমৃদ্ধ হবে । এমন নির্দেশনায় শিশু শিক্ষার্থীদের পাশাপাশি অভিভাবকরাও নিজেদের চাপমুক্ত মনে করছেন।

সমাজে সন্তানের একাডেমিক ভালো ফলাফলের প্রতিযোগিতায় নেমেছেন প্রায় সব অভিভাবকই। শৈশবে এমন পড়ার চাপে নূব্জ প্রায় প্রতিটি শিক্ষার্থী। তবে সম্প্রতি ১ম শ্রেণি থেকে পরীক্ষা বাতিলের ঘোষণায় খুশি অভিভাবকরা।

সরকারের এমন সিদ্ধান্তকে ইতিবাচকভাবে দেখছেন শিক্ষাবিদরা। এ পদ্ধতি বাস্তবায়নে শিক্ষকদের প্রতিশ্রুতি ও আন্তরিক সদিচ্ছা প্রয়োজন বলেও মনে করছেন তারা।

ড. এম অহিদুজ্জামান বলেন, আমরা যারা শিক্ষক, তাদের আন্তরিকতা প্রয়োজন। আগামী বছর থেকেই এ পদ্ধতি প্রথমে ১০০ স্কুলে চালু করা হবে এ জন্য শিক্ষকদেরকে এ বিষয়ে প্রশিক্ষণ দেয়া হচ্ছে বলে জানান, প্রাথমিক ও গণশিক্ষামন্ত্রী।

প্রাথমিক ও গণশিক্ষা প্রতিমন্ত্রী মো. জাকির হোসেন বলেন, আমরা এটাকে একটা পাইলট প্রজেক্টের মতো করে দেখছি। পরীক্ষা না থাকলেও শ্রেণিকক্ষে শিক্ষার্থীদের মূল্যায়ন করা হবে আর সে মূল্যায়ন করবেন শ্রেণী শিক্ষকরাই।

স্কুলে একজন শিক্ষার্থী তার দিনের অর্ধেক সময় কাটায়। তাই ৩য় শ্রেণী পর্যন্ত পরীক্ষা বাতিল সরকারের এমন সিদ্ধান্ত একজন শিক্ষার্থীর শৈশবে তার মেধা ও মনন বিকাশে এবং বেড়ে উঠতে সহায়ক হবে বলে মনে করছেন সংশ্লিষ্টরা।

বরগুনার আলো
এই বিভাগের আরো খবর