বৃহস্পতিবার   ২৭ ফেব্রুয়ারি ২০২০   ফাল্গুন ১৫ ১৪২৬   ০৩ রজব ১৪৪১

বরগুনার আলো
ব্রেকিং:
খালেদা জিয়ার জামিন আবেদন খারিজ বঙ্গবন্ধু অসাম্প্রদায়িক বাংলাদেশ দিয়েছেন : স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী মশা যেন ভোট খেয়ে না ফেলে, নতুন মেয়রদের প্রধানমন্ত্রী তাপস-আতিককে শপথ পড়ালেন প্রধানমন্ত্রী আমার কাছে রিপোর্ট আসছে, কাউকে ছাড়ব না : প্রধানমন্ত্রী দ্বিতীয় কিস্তির ২৭ কোটি ৬০ লাখ টাকা বিটিআরসিকে দিল রবি মাধ্যমিক পর্যন্ত বিজ্ঞান বাধ্যতামূলকের নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর ওপর নজরদারি বাড়াতে বললেন প্রধানমন্ত্রী বরগুনায় ওয়ারেন্ট ভুক্ত দুই আসামী গ্রেপ্তার আজকের স্বর্ণপদক প্রাপ্তরা ২০৪১ এর বাংলাদেশ গড়ার কারিগর যে কোন অর্জনের পেছনে দৃঢ় মনোবল এবং আত্মবিশ্বাস গুরুত্বপূর্ণ ‘প্রধানমন্ত্রী স্বর্ণপদক’ পেলেন ১৭২ শিক্ষার্থী আজ ১৭২ শিক্ষার্থী প্রধানমন্ত্রী স্বর্ণপদক পাচ্ছেন অশান্ত দিল্লিতে কারফিউ, নিহত ১৭ পিকে হালদারসহ ২০ জনের ব্যাংক হিসাব জব্দের আদেশ বহাল ৭ মার্চ জাতীয় দিবস ঘোষণা করে হাইকোর্টের রায় ১৪ দিনেই ভালো হচ্ছেন করোনা রোগী : আইইডিসিআর মুশফিক-নাঈমে ইনিংস ব্যবধানে দূর্দান্ত জয় টাইগারদের পিলখানা ট্র্যাজেডি দিবস আজ রিফাত হত্যা মামলার আসামি সিফাতের বাবা গ্রেফতার
১৫

৩০ হাজার লোকবল নিয়োগ দেবে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়

বরগুনার আলো

প্রকাশিত: ১২ ফেব্রুয়ারি ২০২০  

স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রী জাহিদ মালেক  বলেছেন, চলতি বছর স্বাস্থ্য খাতে ৩০ হাজার লোকবল নিয়োগ দেওয়া হবে। মামলা সংক্রান্ত বিভিন্ন সমস্যা থাকায় এতদিন প্রয়োজনীয় সংখ্যক লোকবল নিয়োগ দেওয়া সম্ভব হয়নি। কিন্তু হাইকোর্টের একটি রায় স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের পক্ষে আসায় এবছরই প্রয়োজনীয় সংখ্যক লোকবল নিয়োগের সব ধরনের উদ্যোগ নেওয়া হবে।

বুধবার (১২ ফেব্রুয়ারি) ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটিতে ‘ডিআরইউ সদস্য ও তাদের পরিবারের জন্য হেলথ ক্যাম্প’ উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

দেশের স্বাস্থ্য সেবাকে উন্নত ও আধুনিক করতে প্রয়োজনীয় জনবল নিয়োগ প্রসঙ্গে জাহিদ মালেক বলেন, দেশের হাসপাতালগুলোতে শয্যাসংখ্যা দ্বিগুণেরও বেশি বাড়ানো হয়েছে। অবকাঠামো উন্নয়ন হয়েছে। যন্ত্রপাতি বসানো হয়েছে, কিন্তু যাদের মাধ্যমে সেবাগুলো মানুষ পাবে সেই সংখ্যক লোকবল হাসপাতালে বাড়ানো হয়নি। স্বাস্থ্যসেবাকে উন্নত ও সহজলভ্য করতে শুধু স্বাস্থ্যসেবা খাতেই অন্তত এক লাখ চিকিৎসক, নার্স, মিডওয়াইফারি, ফার্মাসিস্টসহ প্রয়োজনীয় অন্যান্য লোকবল প্রয়োজন।

অনুষ্ঠানে সংবাদকর্মীদের নানা স্বাস্থ্য ঝুকি থাকা প্রসঙ্গে স্বাস্থ্যমন্ত্রীকে অবগত করা হলে মন্ত্রী বলেন, মিডিয়াকর্মীদের দিনভর নানা কাজে ব্যস্ত সময় পার করতে হয়। এতে রোগ-ব্যাধিতে আক্রান্ত হওয়ার ঝুঁকিও থাকে বেশি। একারণে ডিআরইউ সেন্টারে প্রয়োজনীয় জায়গা পেলে একটি সার্বক্ষণিক চিকিৎসা ব্যবস্থা বা হেলথ কর্নার করার সব ধরনের সহায়তা করা হবে।

অনুষ্ঠানে স্বাস্থ্যমন্ত্রী দেশে কোনো করোনা রোগী নেই এবং করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে সরকারের সব ধরনের প্রস্তুতি রয়েছে বলে দেশবাসীকে নিশ্চিত করেছেন। পাশাপাশি, সামনেই মুজিববর্ষ উদযাপন ও গত এক বছরের স্বাস্থ্যখাতের সাফল্যগুলো অনুষ্ঠানে তুলে ধরেন মন্ত্রী।

ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটি এর সভাপতি রফিকুল ইসলাম আজাদের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত ছিলেন নাক, কান, গলা বিশেষজ্ঞ অধ্যাপক ডা. মনিলাল আইচ লিটু, ডিআরইউ সাধারণ সম্পাদক রিয়াজ চৌধুরী, এফবিসিসিআই এর পরিচালক রুহুল আমিন খন্দকার।

বরগুনার আলো
এই বিভাগের আরো খবর