সোমবার   ২১ অক্টোবর ২০১৯   কার্তিক ৫ ১৪২৬   ২১ সফর ১৪৪১

বরগুনার আলো
ব্রেকিং:
প্রধানমন্ত্রী ভোলার ঘটনায় দেশবাসীকে ধৈর্য্যের আহ্বান জানিয়েছেন আঞ্চলিক সহযোগিতাসহ বিভিন্ন ইস্যুতে ইইউ-বাংলাদেশ সভা আজ সৌদিতে সড়ক দুর্ঘটনা: নিহতদের স্বজনদের যোগাযোগের আহ্বান কাউন্সিলর রাজীব ১৪ দিনের রিমান্ডে সোনাদিয়া দ্বীপে শিল্পকারখানা না করতে প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশ রুশ ভাষায় প্রকাশিত বই প্রধানমন্ত্রীর কাছে হস্তান্তর যুবলীগের সম্মেলন কমিটির আহ্বায়ক চয়ন, সদস্য সচিব হারুন ওমর বহিষ্কার, যুবলীগের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তাপস বোরহানউদ্দিনে সংঘর্ষের ঘটনায় তদন্ত কমিটি মাছের খাদ্যে শূকরের উপাদান আছে কিনা পরীক্ষার নির্দেশ স্পিকারের সঙ্গে পাঁচ মার্কিন সিনেটরের সাক্ষাৎ বৃদ্ধাশ্রম নয়, মা-বাবার জায়গা হোক হৃদয়ের মণিকোঠায় মিঠাপানিতে রুপালি ইলিশ ভারতের বিপক্ষে বিশ্ব একাদশে সাকিব-তামিম! হিন্দু ছেলের আইডি হ্যাক, ফেসবুকের কাছে তথ্য চেয়েছেন প্রধানমন্ত্রী ডিআইজি বজলুরকে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ সৈকতঘেরা জাকার্তায় প্রকৃতির অপার সৌন্দর্য নেপাল ভ্রমণের খুঁটিনাটি জাপান সম্রাটের অভিষেকে যোগ দিতে ঢাকা ছেড়েছেন রাষ্ট্রপতি শিশুর জন্মের পর ইসিতে জানানোর আইন চান সিইসি
৩০

৪০ কোটি টাকা নিয়ে পালানো সেই টার্কি বাবলু স্ত্রীসহ গ্রেপ্তার

প্রকাশিত: ২২ সেপ্টেম্বর ২০১৯  

 

সন্ধ্যায় ঠাকুরগাঁও পুলিশ সুপারের কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে বিষয়টি নিশ্চিত করেন ঠাকুরগাঁও ডিবি পুলিশের ইন্সপেক্টর ওয়াহেদ আলী। গ্রেপ্তার বাবলু রায়ের বিরুদ্ধে একাধিক মামলা রয়েছে বলেও জানান তিনি।

টার্কি মুরগি পালন করে আকর্ষণীয় লাভ দেয়ার প্রলোভন দেখিয়ে প্রায় ৪০ কোটি টাকা হাতিয়ে নেয়ার অভিযোগে দুজকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। 

তারা হলেন- রংধনু ট্রেডার্সের মালিক সদর উপজেলার গড়েয়া ইউনিয়নের গোপালপুর গ্রামের মৃত ধীরেন্দ্র নাথ রায়ের ছেলে বাবলু রায় (৪৫) ও তার স্ত্রী মুক্তি রানী (৪০)। রংধনু ট্রেডার্সের মালিক ঠাকুরগাঁও টার্কি বাবলু নামে পরিচিত। এর আগে তিনি একইভাবে ডেসটিনি নামে একটি কোম্পানিতে কাজ করার সময় অসংখ্য মানুষের টাকা হাতিয়ে নিয়ে পালিয়ে যান। ওই সময় তিনি ডেসটিনি বাবলু নামে পরিচিত ছিলেন।

শনিবার দুপুরে দিনাজপুরের বীরগঞ্জ উপজেলার তাজমহল রোড থেকে তাদের গ্রেপ্তার করা হয়।

সন্ধ্যায় ঠাকুরগাঁও পুলিশ সুপারের কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে বিষয়টি নিশ্চিত করেন ঠাকুরগাঁও ডিবি পুলিশের ইন্সপেক্টর ওয়াহেদ আলী। গ্রেপ্তার বাবলু রায়ের বিরুদ্ধে একাধিক মামলা রয়েছে বলেও জানান তিনি।

মামলার তদন্ত কর্মকর্তা এসআই রবিউল ইসলাম জানান, আটক বাবলু ঠাকুরগাঁও, দিনাজপুর ও পঞ্চগড় জেলার সাধারণ মানুষকে টার্কি মুরগি পালনে আকর্ষণীয় লাভ দেয়ার প্রলোভন দেখিয়ে তাদের টার্কি মুরগি দিয়ে নগদ টাকা হাতিয়ে নেন। চুক্তি অনুযায়ী মেয়াদ শেষে ওইসব উদ্যোক্তার পালিত মুরগি নিয়ে কোনো ব্যক্তিকে চেক আবার কাউকে সাদা কাগজে রসিদ দিয়ে কোম্পানির চেয়ারম্যানসহ পালিয়ে যান। পরে উদ্যোক্তারা বিভিন্ন থানায় মামলা করেন। দীর্ঘদিন থেকে তাকে খুঁজছিল পুলিশ। কিছুদিন আগে তাকে খুঁজতে ঢাকায় অভিযান চালায় পুলিশ।

অবশেষে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে বীরগঞ্জে অভিযান চালিয়ে বাবলু রায়সহ তার স্ত্রীকে আটক করা হয়।

তিনি জানান, এর আগে একই ঘটনায় চলতি বছরের ৭ মে ক্ষুদ্র উদ্যোক্তাদের কাছ থেকে প্রায় ১০ কোটি টাকা হাতিয়ে নিয়ে পালানোর সময় স্বামী-স্ত্রীসহ তিনজনকে আটক করে ডিবি পুলিশ। তাদের সৈয়দপুর বিমানবন্দর থেকে আটক করা হয়।

তারা হলেন- স্বপ্ননীল এগ্রো সার্ভিসেস লিমিটেড কোম্পানির চেয়ারম্যান সালমান ওরফে সানি (৩২), তার স্ত্রী রওশন আরা (২৮) ও ভাতিজা আবু সালেম রাসেল (২৩)।

এই বিভাগের আরো খবর