বুধবার   ১৮ সেপ্টেম্বর ২০১৯   আশ্বিন ৩ ১৪২৬   ১৮ মুহররম ১৪৪১

বরগুনার আলো
ব্রেকিং:
রিফাত হত্যা : পলাতক ৯ জনের বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা রোহিঙ্গা সংকট : ত্রিপক্ষীয় বৈঠকে বসছে চীন-মিয়ানমার-বাংলাদেশ আমাদের কাজই হচ্ছে জনগণকে সেবা দেয়া : প্রধানমন্ত্রী রোহিঙ্গা ইস্যুতে চীন বাংলাদেশের পক্ষে: মোমেন আজ গাজীপুর যাবেন প্রধানমন্ত্রী পরিবেশ দূষণ: ৪ প্রতিষ্ঠানকে কোটি টাকা জরিমানা স্বর্ণজয়ী রোমান সানার মায়ের চিকিৎসার দায়িত্ব নিলেন প্রধানমন্ত্রী আরো দু’টি বোয়িং বিমান কেনার ইঙ্গিত দিলেন প্রধানমন্ত্রী কারাবন্দির তথ্য ডাটাবেজে থাকবে: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অপ্রতিরোধ্য গতিতে এগিয়ে যাচ্ছে দেশ: প্রধানমন্ত্রী অত্যাধুনিক প্রযুক্তির ‘রাজহংস’ উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী গরিবের ঘরবাড়ি গ্রাম যেন ভাঙা না হয়: প্রধানমন্ত্রী দুই মাসে এডিপি বাস্তবায়নের হার বেড়েছে ৪.৪৮ শতাংশ উদ্বোধনের দিনেই পদ্মাসেতুতে ট্রেন চলবে: রেলমন্ত্রী ৮ হাজার ৯৬৮ কোটি ৮ লাখ টাকার প্রকল্প একনেকে অনুমোদন ভারতীয় কোস্টগার্ড ডিজির সঙ্গে রীভা গাঙ্গুলির বৈঠক ইসির চুরি যাওয়া ল্যাপটপ উদ্ধার, আটক ৩ আজ মহান শিক্ষা দিবস প্রধানমন্ত্রী ‘রাজহংস’ উদ্বোধন করবেন আজ রোহিঙ্গা ভোটার: ইসি কর্মচারীসহ আটক ৩
৮০

৭৩ বছর বয়সে প্রথমবারের মতো মা, জন্মালো জমজ কন্যা

প্রকাশিত: ৬ সেপ্টেম্বর ২০১৯  


৭৩ বছর বয়সে জীবনে প্রথমবারের মতো মাতৃত্বের স্বাদ পেয়েছেন ভারতীয় এক নারী। একইসঙ্গে জমজ দুই কন্যা সন্তানের জন্ম দিয়ে হৈচৈ ফেলে দিয়েছেন তিনি।
বৃহস্পতিবার (৫ সেপ্টেম্বর) ভারতের অন্ধ্র প্রদেশ রাজ্যের মাঙ্গাইয়াম্মা ইয়ারামাতি এ জমজ সন্তানের জন্ম দেন। তার স্বামী সীতারাম রাজারাওয়ের বয়স বর্তমানে ৮২ বছর।
জীবনে প্রথম মাতৃত্বের স্বাদ পাওয়া ইয়ারামাতি জানান, সারা জীবন তিনি ও তার স্বামী সন্তান কামনা করেছেন। কিন্তু এর আগ পর্যন্ত তাদের কপালে সন্তান জোটেনি। 
‘সন্তানের জন্য আমরা অনেক চেষ্টা করেছি। অনেক ডাক্তার দেখিয়েছি। এটি আমার জীবনের শ্রেষ্ঠ সময়।’  
সন্তান না হওয়ায় সবসময় সমাজ ও গ্রামের লোকজন ইয়ারামাতিকে ‘অপয়া’ বলে গালমন্দ করতো। তাকে একঘরে করে রাখা হতো। এমনকি কোনো উৎসবেও তাকে ডাকা হতো না বলে জানান ইয়ারামাতি।
‘তারা আমাকে বন্ধ্যা বলে ডাকতো।’ বলেন মা হওয়ার স্বাদ পাওয়া এই নারী।
সদ্য বাবা হওয়া সীতারামও এ ঘটনায় দারুণ উচ্ছ্বসিত। প্রতিক্রিয়া জানতে চাওয়া হলে তিনি বলেন, এ ঘটনায় আমরা যারপরনাই খুশি। আইভিএফ চিকিৎসা পদ্ধতি অনুসরণের দুই মাসের মধ্যেই ইয়ারামাতি গর্ভধারণ করেন।
 আইভিএফ বা ইন ভিট্রো ফার্টিলাইজেশন পদ্ধতিতে প্রথমে মানব দেহের বাইরে শুক্রাণু ও ডিম্বাণু নিষিক্ত করা হয়। পরে তা স্থাপন করা হয় জরায়ুতে। সাধারণত সন্তানহীন দম্পতিরা এ চিকিৎসাপদ্ধতির শরণাপন্ন হন।  
ওই নারীর চিকিৎসক উমা শঙ্কর জানান, সিজারের মাধ্যমে দুই শিশুর জন্ম হয়েছে। মা ও শিশুদ্বয় সুস্থ আছে। 
এর আগেও ২০১৬ সালে ৭০ বছর বয়সী আরেক ভারতীয় নারী ছেলে সন্তানের জন্ম দেন।

এই বিভাগের আরো খবর