শনিবার   ১৮ জানুয়ারি ২০২০   মাঘ ৫ ১৪২৬   ২২ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪১

বরগুনার আলো
ব্রেকিং:
ফাইভজির স্বপ্ন বাস্তবে পরিণত হবে শিগগির: অর্থমন্ত্রী ঢাকা সিটি ভোট পিছিয়ে ১ ফেব্রুয়ারি করার সিদ্ধান্ত ইসির এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষা পিছিয়ে ৩ ফেব্রুয়ারি সংসদের দক্ষিণ প্লাজায় সোমবার মান্নানের জানাজা এমপি আব্দুল মান্নানের মৃত্যুতে গভীর শোক রাষ্ট্রপতির পদ্মা সেতুর ২২তম স্প্যান বসছে এ মাসেই আব্দুল মান্নানের মৃত্যুতে ওবায়দুল কাদেরের শোক এমপি মান্নানের মৃত্যুতে প্রধানমন্ত্রীর শোক বয়ানে চলছে দ্বিতীয় দিনের ইজতেমা,কাল আখেরী মোনাজাত বিপিএলে প্রথম শিরোপার স্বাদ পেলো রাজশাহী আদালতে মজনুর স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে সাউন্ড সিস্টেমে জাতীয় সংগীত পরিবেশন করা যাবে ১ ফেব্রুয়ারি থেকে এসএসসি শুরু প্রথম আলোর সম্পাদকসহ ১০ জনের বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা আমরা ক্রসফায়ারকে সাপোর্ট করতে পারি না : ওবায়দুল কাদের পোশাক রপ্তানিকে ছাড়িয়ে যাবে আইসিটি : জয় বিশ্ব ইজতেমার দ্বিতীয় পর্ব শুরু কাল বিশ্ব ইজতেমার ২য় পর্বে ময়দানে আসতে শুরু করেছেন মুসল্লিরা অন্ধকার ভেদ করে আলোর পথে বাংলাদেশ: সংসদে প্রধানমন্ত্রী রিফাত হত্যা : দুই আসামি জামিনে মুক্ত
১৫৯

৭৩ বছর বয়সে প্রথমবারের মতো মা, জন্মালো জমজ কন্যা

প্রকাশিত: ৬ সেপ্টেম্বর ২০১৯  


৭৩ বছর বয়সে জীবনে প্রথমবারের মতো মাতৃত্বের স্বাদ পেয়েছেন ভারতীয় এক নারী। একইসঙ্গে জমজ দুই কন্যা সন্তানের জন্ম দিয়ে হৈচৈ ফেলে দিয়েছেন তিনি।
বৃহস্পতিবার (৫ সেপ্টেম্বর) ভারতের অন্ধ্র প্রদেশ রাজ্যের মাঙ্গাইয়াম্মা ইয়ারামাতি এ জমজ সন্তানের জন্ম দেন। তার স্বামী সীতারাম রাজারাওয়ের বয়স বর্তমানে ৮২ বছর।
জীবনে প্রথম মাতৃত্বের স্বাদ পাওয়া ইয়ারামাতি জানান, সারা জীবন তিনি ও তার স্বামী সন্তান কামনা করেছেন। কিন্তু এর আগ পর্যন্ত তাদের কপালে সন্তান জোটেনি। 
‘সন্তানের জন্য আমরা অনেক চেষ্টা করেছি। অনেক ডাক্তার দেখিয়েছি। এটি আমার জীবনের শ্রেষ্ঠ সময়।’  
সন্তান না হওয়ায় সবসময় সমাজ ও গ্রামের লোকজন ইয়ারামাতিকে ‘অপয়া’ বলে গালমন্দ করতো। তাকে একঘরে করে রাখা হতো। এমনকি কোনো উৎসবেও তাকে ডাকা হতো না বলে জানান ইয়ারামাতি।
‘তারা আমাকে বন্ধ্যা বলে ডাকতো।’ বলেন মা হওয়ার স্বাদ পাওয়া এই নারী।
সদ্য বাবা হওয়া সীতারামও এ ঘটনায় দারুণ উচ্ছ্বসিত। প্রতিক্রিয়া জানতে চাওয়া হলে তিনি বলেন, এ ঘটনায় আমরা যারপরনাই খুশি। আইভিএফ চিকিৎসা পদ্ধতি অনুসরণের দুই মাসের মধ্যেই ইয়ারামাতি গর্ভধারণ করেন।
 আইভিএফ বা ইন ভিট্রো ফার্টিলাইজেশন পদ্ধতিতে প্রথমে মানব দেহের বাইরে শুক্রাণু ও ডিম্বাণু নিষিক্ত করা হয়। পরে তা স্থাপন করা হয় জরায়ুতে। সাধারণত সন্তানহীন দম্পতিরা এ চিকিৎসাপদ্ধতির শরণাপন্ন হন।  
ওই নারীর চিকিৎসক উমা শঙ্কর জানান, সিজারের মাধ্যমে দুই শিশুর জন্ম হয়েছে। মা ও শিশুদ্বয় সুস্থ আছে। 
এর আগেও ২০১৬ সালে ৭০ বছর বয়সী আরেক ভারতীয় নারী ছেলে সন্তানের জন্ম দেন।

এই বিভাগের আরো খবর