• বুধবার   ২৭ জানুয়ারি ২০২১ ||

  • মাঘ ১৩ ১৪২৭

  • || ১৩ জমাদিউস সানি ১৪৪২

বরগুনার আলো
ব্রেকিং:
৭ ফেব্রুয়ারি একযোগে টিকাদান কর্মসূচি শুরু: স্বাস্থ্যমন্ত্রী দেশে করোনায় ১৪ মৃত্যু, শনাক্ত ৫১৫ কারও ব্যবসায়িক স্বার্থে ভ্যাকসিন সংগ্রহ করেনি সরকার: কাদের দেশের প্রথম নৌপ্রধান ক্যাপ্টেন নুরুল হক আর নেই দেশে ফিটনেসবিহীন গাড়ি চার লাখ ৮১ হাজার: কাদের বৈধ পথে বাড়ছে রেমিট্যান্স: পলক করোনায় ২৪ ঘণ্টায় মৃত্যু ১৮, শনাক্ত ৬০২ চার ফিফটিতে বাংলাদেশের সংগ্রহ ২৯৭ সব জেলায় ৪-৫ দিনের মধ্যে ভ্যাকসিন পৌঁছে যাবে: পাপন দেশে পৌঁছেছে সেরামের ৫০ লাখ টিকা রমজানে টিসিবির পণ্য ৩ গুণ বাড়ানো হবে: বাণিজ্যমন্ত্রী রেশম শিল্পের উন্নয়নে সমন্বিত উদ্যোগ নেওয়া হবে: পাটমন্ত্রী করোনায় ২৪ ঘণ্টায় মৃত্যু ২০, শনাক্ত ৪৭৩ অপপ্রচার ও ষড়যন্ত্রের বিরুদ্ধে ঐক‌্যবদ্ধ হওয়ার আহ্বান: কাদের দশম ও দ্বাদশ শ্রেণির নিয়মিত ক্লাস হবে: শিক্ষামন্ত্রী ঢাকা শুধু বাসযোগ্য নয়, বিনোদন কেন্দ্রে পরিণত হবে: তাজুল করোনায় ২৪ ঘণ্টায় মৃত্যু ২২, শনাক্ত ৪৩৬ সবার আগে আমি ভ্যাকসিন নেব : অর্থমন্ত্রী করোনায় ২৪ ঘণ্টায় মৃত্যু ১৬, শনাক্ত ৫৮৪ সার্জেন্টের ওপর হামলাকারী সেই যুবক গ্রেপ্তার

৭ লাখের বেশিবার ডাউনলোড হয়েছে ‘করোনা ট্রেসার বিডি’ অ্যাপ

বরগুনার আলো

প্রকাশিত: ২৩ নভেম্বর ২০২০  

মহামারি করোনাভাইরাস  নিয়ন্ত্রণে রাখতে প্রযুক্তির সাহায্য নিচ্ছে বিশ্বের বিভিন্ন দেশ।  তারা অ্যাপের মাধ্যমে করোনা রোগীদের গতিবিধি নিয়ন্ত্রণ করছে।  অত্যাধুনিক এই নিয়ন্ত্রণ ব্যবস্থার কারণে সুস্থ মানুষ সহজেই অসুস্থদের এড়িয়ে চলতে পারেন।  ফলে কমে আসে সংক্রমণের ঝুঁকি।

যুক্তরাজ্য, যুক্তরাষ্ট্রসহ বিভিন্ন দেশে করোনা ট্রেসার অ্যাপ ব্যবহার করছে সাধারণ মানুষ, যা করোনা নিয়ন্ত্রণের ক্ষেত্রে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখছে। বাংলাদেশের মানুষকেও করোনা ট্রেসার অ্যাপ ব্যবহারে উদ্বুদ্ধ করা গেলে ভাইরাসটির বিস্তার রোধ করা সহজ হবে বলে মনে করছেন প্রযুক্তি বিশেষজ্ঞরা।

করোনাভাইরাসের বিস্তার রোধে গত জুন মাসে একটি অ্যাপ চালু করে তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি (আইসিটি) বিভাগ। দেশীয় এই অ্যাপটির নাম ‘করোনা ট্রেসার বিডি’। গত ৪ জুন উদ্বোধনের পর থেকে এখনও পর্যন্ত সাত লাখেরও বেশিবার এটি ডাউনলোড করা হয়েছে।

আইসিটি বিভাগের উদ্যোগে অত্যাধুনিক প্রযুক্তি ব্যবহারের মাধ্যমে ‘করোনা ট্রেসার বিডি’ তৈরি করেছে দেশের শীর্ষস্থানীয় টেক স্টার্টআপ সহজ লিমিটেড।  এক্ষেত্রে প্রতিষ্ঠানটিকে সহায়তা করেছে স্বাস্থ্য অধিদফতর, আইইডিসিআর, এটুআই, এসডিএমজিএ।

অ্যাপটির উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে আইসিটি বিভাগের প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক বলেন, ‘আইসিটি অবকাঠামো ব্যবহার করে সমস্যা ও সংকট মোকাবিলায় সরকার একের পর এক প্রযুক্তিভিত্তিক সমাধান নিয়ে আসছে। করোনার প্রাদুর্ভাব মোকাবিলায় এই অ্যাপটি জীবন ও জীবিকার সুরক্ষা বেষ্টনী তৈরিতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবে। জীবাণুটির বিস্তার রোধে অন্যতম কার্যকর সমাধান হতে পারে করোনা ট্রেসার বিডি অ্যাপটি।’

অ্যাপটি ব্লু-টুথ ও আধুনিক প্রযুক্তির মাধ্যমে ব্যবহারকারীদের সুরক্ষিত রাখবে। একজন ‘করোনা ট্রেসার বিডি অ্যাপ’ ব্যবহারকারী অপর কোনও ব্যবহারকারীর কাছাকাছি আছেন কিনা, তা ব্লু-টুথ সিগন্যালের মাধ্যমে জানা যাবে।

এভাবে আক্রান্ত কোনও ব্যক্তির কাছাকাছি কেউ গেছেন কিনা, তাও জানাবে অ্যাপটি। যদি কেউ আক্রান্ত কোনও ব্যক্তির সংস্পর্শে গিয়ে থাকেন, তাহলে দ্রুততম সময়ের মধ্যে সেলফ-আইসোলেশনে যেতে পারবেন এবং প্রয়োজনে চিকিৎসকের শরণাপন্নও হতে পারবেন।

করোনা ট্রেসার বিডি

প্লে-স্টোর থেকে ‘করোনা ট্রেসার বিডি’ ইনস্টল করার পরই অ্যাপে কিছু তথ্য দিতে হবে।  তথ্য দিয়ে চালু করার পরই অ্যাপটি দেখাবে—আপনি কোনও করোনা আক্রান্ত রোগীর সংস্পর্শে গিয়েছেন কিনা।  একই স্থানে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ এড়াতে বেশকিছু নির্দেশনাও রয়েছে।

ব্যবহারকারীরা অ্যাপটির নিচের দিকে ‘কোভিড-১৯ উপসর্গ যাচাই’ নামের একটি অপশন পাবেন। যে কেউ এখানে গিয়ে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ার ঝুঁকিতে আছেন কিনা, তা যাচাই করতে পারবেন।  এই অপশনে দেওয়া সব তথ্যই গোপন রাখা হবে বলে অ্যাপটির নির্মাতারা জানিয়েছেন।

এরপর রয়েছে ‘নতুন তথ্য’ নামের একটি অপশন। এখানে গুরুত্বপূর্ণ কয়েকটি কল সেন্টারের (যেমন−জাতীয় কল সেন্টার, স্বাস্থ্য বাতায়ন, আইইডিসিআর, বিশেষজ্ঞ হেলথ লাইন, জাতীয় হেল্পলাইন ইত্যাদি) নম্বর পাওয়া যাবে।  এছাড়া এখান থেকে সরকারি নির্দেশনা ও প্রেস রিলিজ এবং করোনা সংক্রান্ত জরুরি তথ্য পাবেন ব্যবহারকারীরা।

‘করোনা ট্রেসার বিডি’ অ্যাপের সবশেষে রয়েছে ‘কোভিড-১৯ নমুনা সংগ্রহ কেন্দ্রগুলো’ নামে আরেকটি অপশন। এখান থেকে গুগল ম্যাপে স্যাম্পল কালেকশন (নমুনা সংগ্রহ) বুথের ঠিকানা পাবেন ব্যবহারকারীরা।  ম্যাপ অনুসরণ করে যে কেউ চাইলে সহজেই তার নমুনা দিয়ে আসতে পারবেন।

 

বরগুনার আলো