• শুক্রবার   ০৩ ডিসেম্বর ২০২১ ||

  • অগ্রাহায়ণ ১৯ ১৪২৮

  • || ২৬ রবিউস সানি ১৪৪৩

বরগুনার আলো
ব্রেকিং:
প্রশিক্ষিত সামরিক বাহিনী গঠনে বিভিন্ন পরিকল্পনা প্রণয়ন করেছি বাংলাদেশ আর পিছিয়ে যাবেনা, এগিয়ে যাবে : প্রধানমন্ত্রী যে কোনো চ্যালেঞ্জ মোকাবিলায় বাংলাদেশ সদাপ্রস্তুত পার্বত্য শান্তিচুক্তির ফলে দীর্ঘদিনের সংঘাতের অবসান ঘটে পার্বত্য শান্তিচুক্তি বিশ্বের ইতিহাসে বিরল ঘটনা: প্রধানমন্ত্রী ব্যবসায়ীদের দেশের মানুষের পাশে দাঁড়ানোর আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর ২৪ বছরে পার্বত্য শান্তি চুক্তি করোনা বাড়লে আবারও বন্ধ হবে স্কুল: প্রধানমন্ত্রী আইন নিজের হাতে তুলে নেবেন না: প্রধানমন্ত্রী গাড়ি ভাঙচুর-আগুন দিলেই ব্যবস্থা: প্রধানমন্ত্রী বঙ্গবন্ধুর ম্যুরাল উদ্বোধন ও জয়িতা টাওয়ারের ভিত্তি স্থাপন সব গণতান্ত্রিক আন্দোলনে নেতৃত্ব দিয়েছে ঢাবি: প্রধানমন্ত্রী রোহিঙ্গা ইস্যুতে জাতিসংঘ বাংলাদেশকে অব্যাহত সমর্থন দেবে রাজস্ব বোর্ডকে সেবাধর্মী, জনবান্ধব ও করদাতাবান্ধব করেছে সরকার ষড়যন্ত্র থাকবে, তবু দেশ এগিয়ে যাবে: প্রধানমন্ত্রী বৈদেশিক বিনিয়োগে বাংলাদেশের গুরুত্ব দিন দিন বাড়ছে: প্রধানমন্ত্রী অর্থনৈতিক অঞ্চলসমূহে ২৭ বিলিয়ন ডলারের বিনিয়োগ প্রস্তাব পেয়েছি বিনিয়োগ শীর্ষ সম্মেলন উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী বিজনেস সামিট বিনিয়োগ বাজার তৈরি করবে: প্রধানমন্ত্রী ‘গণতন্ত্র পুনরুদ্ধারে ডা. মিলনের আত্মত্যাগ নতুন গতি সঞ্চারিত করে’

বরগুনায় ইলিশ শিকারে যাচ্ছেন জেলেরা

বরগুনার আলো

প্রকাশিত: ২৬ অক্টোবর ২০২১  

গতরাত ১২টায় শেষ হয়েছে সাগর ও নদ-নদীতে ইলিশ মাছ ধরার ২২ দিনের সরকারি নিষেধাজ্ঞা। আজ মঙ্গলবারের শুরুতে গভীর রাত থেকেই জেলেরা ট্রলার নিয়ে ছুেটছেন সাগরে। নেমেছেন নদীতে।

২২ দিন অলস সময় কাটানোর পর বরগুনার জেলেপাড়াগুলোতে আবারও প্রাণচাঞ্চল্য ফিরে এসেছে। জেলে-পাইকার-আড়তদারের পদচারণা হাঁকডাকে মুখর হয়ে উঠবে বরগুনা উপকূলের মৎস্যবন্দরের আড়তগুলো। নিষেধাজ্ঞার শেষ দিনগুলোতে কাজে ফেরার প্রস্তুতি নিচ্ছিলেন জেলেরা। দীর্ঘদিন বঙ্গোপসাগর ও নদ-নদীতে মাছ আহরণ বন্ধ থাকায় এখন বেশি মাছ পাবেন বলে আশাবাদী জেলেরা।

অনেক জেলেই মঙ্গলবার দুপুরে সাগরে যাত্রা শুরু করবেন। তারা জানান সরকারের আইনের প্রতি সম্মান রেখে ইলিশ শিকারে যাইনি। এ বিরতিতে আমরা অনেক ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছি। তবে নিষেধাজ্ঞার সময়ে সরকারের দেওয়া ২০ কেজি চাল পাওয়া গেছে। আজ থেকে আবার মাছ ধরতে পারব ভেবে খুব ভালো লাগছে।

বরগুনা জেলা মৎস্য কার্যালয় সূত্রে জানা গেছে, ইলিশের প্রধান প্রজনন মৌসুম উপলক্ষে ৩ অক্টোবর থেকে ২৫ অক্টোবর পর্যন্ত বঙ্গোপসাগর ও নদ-নদীতে ইলিশ মাছ ধরার ওপর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেছিল সরকার। নিষেধাজ্ঞাকালে জেলার ৩৪ হাজার ৭৪ জন নিবন্ধিত জেলেদের ৬শ মেট্রিক টন চাল বিতরণ করা হয়।

বরগুনা জেলা মৎস্যজীবী ট্রলার মালিক সমিতির সভাপতি গোলাম মোস্তফা চৌধুরী জানান, মধ্যরাতে নিষেধাজ্ঞা শেষ হলে জেলেরা সাগরে যাওয়া শুরু করেছেন।

জেলা মৎস্য কর্মকর্তা বিশ্বজিৎ কুমার জানিয়েছেন, সাগরে ইলিশ ধরার নিষেধাজ্ঞা সফলভাবে পালন করা হয়েছে। স্থানীয় বরফকলগুলো বন্ধ রাখায় হয়েছিল। নিষেধাজ্ঞাকালে জেলেদের সরকারিভাবে খাদ্যসহায়তা দেওয়া হয়েছে।

বরগুনার আলো