• শুক্রবার   ০৩ ফেব্রুয়ারি ২০২৩ ||

  • মাঘ ২১ ১৪২৯

  • || ১১ রজব ১৪৪৪

বরগুনার আলো
ব্রেকিং:
জনগণের ভাগ্য নিয়ে ছিনিমিনি খেলতে আসিনি: প্রধানমন্ত্রী সবাইকে হিসাব করে চলার অনুরোধ প্রধানমন্ত্রীর উন্নত-সমৃদ্ধ দেশ গড়তে কৃষি উন্নয়নের বিকল্প নেই: প্রধানমন্ত্রী ক্রীড়া শিক্ষায় বাস্তবমুখী পদক্ষেপ নিয়েছি: প্রধানমন্ত্রী নিরাপদ খাদ্য নিশ্চিতে কাজ করছে সরকার: প্রধানমন্ত্রী জনস্বাস্থ্য নিশ্চিতে নিরাপদ ও পুষ্টিকর খাদ্যের বিকল্প নেই জনগণকে বিশ্বাস করি, তারা যদি চায় আমরা থাকবো: প্রধানমন্ত্রী ২০২২-২৩ অর্থবছরে ১০ বিলিয়ন ডলারের বেশি রেমিট্যান্স এসেছে ভাষা-সাহিত্য চর্চাও ডিজিটাল করার পরামর্শ প্রধানমন্ত্রীর রাষ্ট্রপতির সঙ্গে প্রধানমন্ত্রীর সাক্ষাৎ মানহীন শিক্ষায় উচ্চশিক্ষিত বেকার বাড়ছে: রাষ্ট্রপতি মুসলিম উম্মাহকে ফিলিস্তিনের পাশে দাঁড়ানোর আহ্বান দেশের ব্যাপক উন্নয়ন বিবেচনায় নিতে দেশবাসীর প্রতি আহ্বান গণতান্ত্রিক ধারা অব্যাহত থাকলেই মানুষের উন্নতি হয়: প্রধানমন্ত্রী আমি জোর করে দেশে ফিরেছিলাম, আ.লীগ পালায় না: শেখ হাসিনা আজ ১১ প্রকল্প উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী ১-৭ মার্চ মোবাইলে কল করলেই শোনা যাবে বঙ্গবন্ধুর ভাষণ সন্ত্রাস রুখে দিতে প্রশংসনীয় ভূমিকা রেখে যাচ্ছে পুলিশ সারদায় কুচকাওয়াজে প্রধানমন্ত্রীকে অভিবাদন বাংলাদেশ পুলিশ শান্তি-শৃঙ্খলা রক্ষায় নিরলসভাবে কাজ করছে

ডাকাত পড়ার খবরে মসজিদে মাইকিং, এলাকাজুড়ে আতঙ্ক

বরগুনার আলো

প্রকাশিত: ১২ জানুয়ারি ২০২৩  

বরগুনার বিভিন্ন এলাকায় ডাকাতি হতে পারে এমন খবরের ভিত্তিতে বেশ কিছু এলাকায় সতর্কতামূলক মাইকিং করা হয়। বুধবার (১১ জানুয়ারি) সদর উপজেলার বেশ কয়েকটি গ্রামের মসজিদ থেকে সতর্কতামূলক মাইকিং করা হয় বলে জানা গেছে। এতে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে এলাকাজুড়ে।

খোঁজ নিয়ে জানা যায়, বুধবার রাত ৮টা থেকে সদর উপজেলার ঢলুয়া, বুড়িরচর, এম বালিয়াতলী ও নলটোনা ইউনিয়নে ডাকাতি হতে পারে এমন খবর ছড়িয়ে পড়ে। পরে এসব এলাকার বিভিন্ন মসজিদ থেকে মাইকিং করে সবাইকে সতর্ক থাকার আহ্বান জানানো হয়।

এমনকি পুলিশের বরাত দিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমেও ডাকাত পড়ার খবর প্রচার হতে থাকে। তবে পুলিশ বলছে, জেলার কোথাও ডাকাতির খবর পাওয়া যায়নি।

ঢলুয়া ইউনিয়নের কয়েকজন জানান, রাত ৮টার দিকে মাইকিং করা হয় যে ডাকাত পড়েছে। এমন খবরে আমরা পাহারা দেওয়া শুরু করি। স্থানীয় জনপ্রতিনিধিরাও সজাগ অবস্থানে রয়েছেন। তবে কোথাও ডাকাতির খবর শোনা যায়নি।

ঢলুয়া ইউনিয়ন পরিষদের ৫নং ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য মোকলেসুর রহমান বলেন, ডাকাত পড়ার খবর আমাদের চেয়ারম্যান জানিয়েছেন। এরপর থেকে এলাকার লোকজন ও গ্রাম পুলিশ নিয়ে টহল দিচ্ছি। অপরিচিত কাউকে পেলে পরিচয় নিশ্চিত হওয়ার চেষ্টা করছি।

ঢলুয়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আজিজুল হক স্বপন বলেন, আমার ইউনিয়নে ডাকাত দল ঢুকতে পারে বলে থানা থেকে সতর্ক করা হয়। সেজন্য ইউনিয়নবাসীকে সতর্ক করতে মাইকিং করা হয়। জানতে পারি, বড়ইতলা ফেরিঘাট থেকে একটি অপরিচিত ট্রলারে করে ৬ জন আমার ইউনিয়নে ঢুকেছেন। তবে তাদের কোনো সন্ধান পাওয়া যায়নি। তাই ইউপি সদস্য, গ্রাম পুলিশ ও স্থানীয়রা সম্মিলিতভাবে এলাকা পাহারা দিচ্ছে।

এ বিষয়ে বরগুনার পুলিশ সুপার আবদুস সালাম  বলেন, বর্তমানে বিভিন্ন জায়গায় চুরি-ডাকাতি হচ্ছে। এজন্য আমরা জেলার সকল জনপ্রতিনিধি ও গ্রাম পুলিশদেরকে সজাগ থাকতে বলেছি। তবে জেলার কোথাও কোনো ডাকাতির ঘটনা ঘটেনি, এটি সম্পূর্ণ গুজব। পুলিশ সজাগ অবস্থানে রয়েছে।

বরগুনার আলো