• বুধবার ২৮ ফেব্রুয়ারি ২০২৪ ||

  • ফাল্গুন ১৫ ১৪৩০

  • || ১৭ শা'বান ১৪৪৫

বরগুনার আলো
ব্রেকিং:
বাংলাদেশ ও ভারতের মধ্যে পারস্পরিক সহযোগিতা জরুরি গভীর সমুদ্র থেকে গ্যাস উত্তোলনের সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার পুলিশ জনগণের বন্ধু, সে কথা মাথায় রেখেই দায়িত্ব পালন করতে হবে অপরাধের ধরন বদলাচ্ছে, পুলিশকেও সেভাবে আধুনিক হতে হবে পুলিশ সপ্তাহ শুরু, উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী আইনশৃঙ্খলা সমুন্নত রাখতে পুলিশ নিরলস প্রচেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে দেশপ্রেম ও পেশাদারিত্বের পরীক্ষায় বারবার উত্তীর্ণ হয়েছে পুলিশ জনগণের আস্থা অর্জন করলে ভোট পাবেন: জনপ্রতিনিধিদের প্রধানমন্ত্রী জনপ্রতিনিধির মাধ্যমে উন্নয়ন কাজের ব্যবস্থাটা আমরা নিয়েছিলাম কেউ যেন ভুয়া ক্লিনিক-চিকিৎসকের দ্বারা প্রতারিত না হন: রাষ্ট্রপতি স্থানীয় সরকার বিভাগে বাজেট বরাদ্দ ৬ গুণ বেড়েছে: প্রধানমন্ত্রী স্থানীয় সরকারকে মাটি-মানুষের সঙ্গে নিবিড় সম্পর্ক গড়তে হবে শবে বরাতের মাহাত্ম্যে উদ্বুদ্ধ হয়ে দেশের কাজে আত্মনিয়োগের আহ্বান সমাজের অসহায়, দরিদ্র মানুষের সহায়তায় এগিয়ে আসতে হবে দেশের মানুষের জন্য ন্যায়বিচার নিশ্চিত করতে হবে বিচারকদের ক্ষমতার অপব্যবহার রোধকল্পে খেয়াল রাখার আহ্বান মিউনিখ সফরে বাংলাদেশের অঙ্গীকার বলিষ্ঠরূপে প্রতিফলিত হয়েছে পবিত্র রমজানে নিত্যপণ্যের সংকট হবে না: প্রধানমন্ত্রী প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে ইউরোপীয় কমিশনের প্রেসিডেন্টের অভিনন্দন প্রতিবেশীদের সঙ্গে সুসম্পর্ক রেখেই সামুদ্রিক সম্পদ আহরণের আহ্বান

বরগুনার দুই ডাকাত সদস্যকে গ্রেপ্তার

বরগুনার আলো

প্রকাশিত: ২৫ নভেম্বর ২০২৩  

“ভাই, আমি ডাকাইত না, আমি চোর। অভাবে পইড়া গ্রামে কদু ও মুরগি চুরি করছি। এগুলা চুরি কইরা তো বেচি নাই। খাইছি।” ডাকাতির মামলায় বরিশাল আমর্ড পুলিশ ব্যাটালিয়নের (এপিবিএন) হাতে গ্রেপ্তার হওয়া বরগুনার বামনা উপজেলার সোনাখালী গ্রামের মিলন হাওলাদার (২৮) সাংবাদিকদের কাছে এভাবেই স্বীকারোক্তি দেন।

বৃহস্পতিবার দুপুরে কৌশলে মোবাইল ফোনে ডেকে এনে বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয়ের সামনে থেকে মিলনকে গ্রেপ্তার করে এপিবিএন। এ সময় তার সহযোগী একই উপজেলার ঢুষখালী গ্রামের বেল্লাল খাঁকে (৩৩) গ্রেপ্তার করা হয়।

পরে তাদের নিয়ে জেলা পুলিশ সুপারের কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলন করেন পুলিশ সুপার মোল্লা আজাদ।

পুলিশ সুপার জানান, বেল্লালের নামে ঝালকাঠির কাঠালিয়া থানায় একটি ও বামনা থানায় দুটি ডাকাতির মামলা রয়েছে। আর মিলনের বিরুদ্ধে রাজাপুর থানায় দুটি ও ভাণ্ডারিয়া থানায় একটি মামলা রয়েছে। “তথ্য-প্রযুক্তির মাধ্যমে অবস্থান শনাক্ত করে তাদেরকে বামনা থানা পুলিশের সহায়তায় গ্রেপ্তার করা হয়েছে।”

সংবাদ সম্মেলন শেষে গ্রেপ্তার মিলনের সঙ্গে কথা বলার সুযোগ পান উপস্থিত সাংবাদিকরা। তিনি কালো সুয়েটার আর জিন্স প্যান্ট পড়েছিলেন।

কীভাবে গ্রেপ্তার হলেন জানতে চাইলে মিলন বলেন, “এক নারী পুলিশ সদস্য বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রী পরিচয় দিয়ে প্রথমে আমার মোবাইল ফোনে কল করে। তারপর কথা বলতে বলতে প্রেম হয়। তার সঙ্গে দেখা করার জন্য সহযোগী বেল্লালকে নিয়ে বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয়ের সামনে আসি। তখন পুলিশ গ্রেপ্তার করে।

তিনি বলেন, “একটি ডাকাতি মামলায় আসামি হওয়ার পর আর ডাকাতি করি নাই। টুকটাক চুরি করেছি। ভালো হতে চেয়েছি। লাভ অইলো কই?

“ডাকাতি কইরা এহন কি কিছু পাওয়া যায় কন? কারও ঘরে কি একটু সোনাও পাওন যায়”, সাংবাদিকদের কাছে প্রশ্ন রাখেন মিলন।

এপিবিএনের পরিদর্শক শাহ মো. ফয়সাল বলেন, গ্রেপ্তার দুই ডাকাত সদস্যকে বরগুনার বামনা থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে।

বরগুনার আলো