• বৃহস্পতিবার   ১৮ আগস্ট ২০২২ ||

  • ভাদ্র ২ ১৪২৯

  • || ১৮ মুহররম ১৪৪৪

বরগুনার আলো
ব্রেকিং:
প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে সাক্ষাৎ করলেন জাতিসংঘ মানবাধিকার প্রধান বঙ্গবন্ধুকে হত্যার পর আ. লীগের নেতারা কী করেছিলেন: প্রধানমন্ত্রী সুশীল বাবু মইনুল খুনিদের নিয়ে দল গঠন করে: প্রধানমন্ত্রী বঙ্গবন্ধু হত্যায় জড়িতরা আজ মানবাধিকারের কথা বলে: প্রধানমন্ত্রী ভারত পারলে আমরাও রাশিয়া থেকে তেল কিনতে পারবো: প্রধানমন্ত্রী ‘ষড়যন্ত্র প্রতিহত করে বঙ্গবন্ধু হত্যার বিচারের রায় কার্যকর করেছি’ খবরদার আন্দোলনকারীদের ডিস্টার্ব করবেন না: প্রধানমন্ত্রী জাতির পিতার মৃত্যু নেই প্রজন্ম থেকে প্রজন্মান্তরে বঙ্গবন্ধু আমাদের রোল মডেল শোক দিবসে বঙ্গভবনে বিশেষ দোয়ার আয়োজন রাষ্ট্রপতির টুঙ্গিপাড়ায় বঙ্গবন্ধুর সমাধিতে প্রধানমন্ত্রীর শ্রদ্ধা জ্বালানি তেলের দাম বাড়ানোর বিষয়ে পরিষ্কার ব্যাখ্যার নির্দেশ বঙ্গবন্ধু মেমোরিয়াল ট্রাস্টের সাধারণ সভা অনুষ্ঠিত মানবাধিকার কমিশনকে যথাযথভাবে দায়িত্ব পালনের নির্দেশ রাষ্ট্রপতির ৪০০তম ওয়ানডে খেলার অপেক্ষায় বাংলাদেশ জ্বালানি নিরাপত্তা: বঙ্গবন্ধু ও শেখ হাসিনার অবদান রাজনৈতিক সিদ্ধান্তে বঙ্গমাতার মনোভাব প্রতিফলিত হয়েছে বঙ্গমাতার সমাধিতে প্রধানমন্ত্রীর শ্রদ্ধা স্বাধীনতার সংগ্রামে বঙ্গবন্ধুর সারথি ছিলেন আমার মা: প্রধানমন্ত্রী বঙ্গমাতা কঠিন দিনগুলোতে ছিলেন দৃঢ় ও অবিচল: রাষ্ট্রপতি

সেনা কল্যাণ সংস্থার সুবর্ণজয়ন্তী উদযাপন

বরগুনার আলো

প্রকাশিত: ৪ জুলাই ২০২২  

সুবর্ণজয়ন্তী ও ৫০তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উদযাপন করেছে সেনা কল্যাণ সংস্থা।

রোববার (৩ জুলাই) ঢাকার মহাখালী সেনা কল্যাণ সংস্থায় আড়ম্বরপূর্ণভাবে এ উদযাপন করা হয়। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন সেনাপ্রধান জেনারেল এস এম শফিউদ্দিন আহমেদ। তিনি সেনা কল্যাণ সংস্থার প্রধান কার্যালয়ে (এসকেএস টাওয়ার) পায়রা ও বেলুন উড়িয়ে অনুষ্ঠানের কার্যক্রম শুরু করেন। এসময় তিনি এসকেএস টাওয়ারের ১০তম তলায় ‘বঙ্গবন্ধু কর্নার’ উদ্বোধন করেন।

এছাড়া সেনাপ্রধান সেনা কল্যাণ সংস্থা থেকে সাহায্যপ্রাপ্ত মুক্তিযোদ্ধাদের সম্মাননা প্রদান, সেনা কল্যাণ সংস্থায় কর্তব্যকালীন অবস্থায় আহত-নিহত সদস্যদের পরিবারের মধ্যে উপহার সামগ্রী প্রদান ও মেধাবী শিক্ষার্থীদের মধ্যে বৃত্তি প্রদানসহ সেনা কল্যাণ সংস্থায় কর্মরত সব কর্মকর্তা-কর্মচারীর উদ্দেশে বক্তব্য দেন।

অনুষ্ঠানে সশস্ত্র বাহিনীর ঊর্ধ্বতন সামরিক কর্মকর্তারা, বিশিষ্ট ব্যক্তিবর্গ ও বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানপ্রধানরা উপস্থিত ছিলেন।

jagonews24

১৯৭২ সালের পহেলা জুলাই বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের দিকনির্দেশনায় স্বাধীনতা পূর্ববর্তীকালের ‘ফৌজি ফাউন্ডেশন’ আপামর জনগণ ও সশস্ত্র বাহিনীর অবসরপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ও কর্মচারীদের কল্যাণের ব্রত নিয়ে সেনা কল্যাণ সংস্থা নামে পুনর্জন্ম লাভ করে। সেনাপ্রধান ও চেয়ারম্যান বোর্ড অব ট্রাস্টির দিকনির্দেশনায় এ সেবামূলক প্রতিষ্ঠান আর্তমানবতার সেবায় কাজ করে যাচ্ছে। কল্যাণমুখী এ প্রতিষ্ঠান বিগত বছরগুলোতে সেনা, নৌ ও বিমান বাহিনীর প্রায় ২০ লাখ অবসরপ্রাপ্ত সদস্যের মধ্যে ৪৫৬ কোটি টাকা অনুদান দেওয়ার পাশাপাশি বাংলাদেশ সরকারকে এক হাজার ৫০০ কোটি টাকার অধিক কর দেওয়ার মাধ্যমে জাতি গঠনে প্রশংসনীয় অবদান রেখে চলেছে। এ সংস্থা ঢাকা সিএমএইচ এ ক্যানসার ইউনিট প্রতিষ্ঠার লক্ষ্যে প্রায় ২০ কোটি টাকা অনুদান দিয়েছে।

এছাড়াও সশস্ত্র বাহিনী বোর্ডের তত্ত্বাবধানে দেশের বিভিন্ন স্থানে ৩০টি মেডিকেল ডিসপেনসারি এবং ঢাকায় ডিওএইচএস-এ চারটি জরুরি চিকিৎসা সেবা কেন্দ্র এ সংস্থার অর্থায়নে পরিচালনা করা হচ্ছে। করোনা মোকাবিলার অংশ হিসেবে সংস্থাটি প্রধানমন্ত্রীর তহবিলে পাঁচ কোটি টাকা অনুদান দিয়েছে। দেশব্যাপী করোনা ও বন্যা পরিস্থিতি মোকাবিলায় সেনা কল্যাণ সংস্থা খাবার ও বিপুল পরিমাণ ত্রাণ সামগ্রী দেশের অসহায় মানুষের মধ্যে বিতরণ করে মানবতার কল্যাণে দুঃস্থদের পাশে এসে দাঁড়িয়েছে।

বরগুনার আলো