• মঙ্গলবার   ০৪ অক্টোবর ২০২২ ||

  • আশ্বিন ১৯ ১৪২৯

  • || ০৭ রবিউল আউয়াল ১৪৪৪

বরগুনার আলো
ব্রেকিং:
দেশের বিভিন্ন জেলায় বিদ্যুৎ বিপর্যয় ঢাকেশ্বরী মন্দিরে শুভেচ্ছা বিনিময় করবেন প্রধানমন্ত্রী কন্যাশিশুর নিরাপত্তা নিশ্চিত করা আমাদের কর্তব্য: রাষ্ট্রপতি সমৃদ্ধ দেশ গড়তে কন্যাশিশুদের নিরাপত্তা অপরিহার্য: প্রধানমন্ত্রী দেশে ফিরেছেন প্রধানমন্ত্রী দেশে ফেরার পথে লন্ডনে প্রধানমন্ত্রীর যাত্রা বিরতি কৃষিতে বাংলাদেশের সাফল্যের সূচনা বঙ্গবন্ধুর নেতৃত্ব: রাষ্ট্রপতি সোনার বাংলা গড়তে কৃষিকে বিশেষ গুরুত্ব দিচ্ছে সরকার: প্রধানমন্ত্রী ‘শিশুদের শারীরিক-মানসিক বিকাশে সুস্থ বিনোদনের বিকল্প নেই’ ‘মুজিববর্ষে ১ লাখ ৮৫ হাজার ১২৯টি ঘর নির্মাণ করে দেয়া হয়েছে’ শিশুদের বুকে বড় হওয়ার স্বপ্ন জাগিয়ে দিতে হবে: প্রধানমন্ত্রী আগামী প্রজন্মের জন্য পরিকল্পিত নগরায়ণের বিকল্প নেই : রাষ্ট্রপতি ‘সেনাবাহিনীর হাজার হাজার অফিসার ও সৈনিক হত্যা করে জিয়া’ যুক্তরাজ্য-যুক্তরাষ্ট্র সফর শেষে দেশের পথে প্রধানমন্ত্রী জিনপিংকে শুভেচ্ছা জানিয়ে হামিদ-হাসিনার চিঠি প্রতিটি ক্ষেত্রে উৎপাদনশীলতা বৃদ্ধি অপরিহার্য: রাষ্ট্রপতি দেশে উৎপাদনশীলতা বাড়াতে একযোগে কাজ করতে হবে: প্রধানমন্ত্রী বঙ্গবন্ধুর খুনি রাশেদ চৌধুরীকে দেশে ফেরানোর চেষ্টা চলছে বঙ্গবন্ধুর পলাতক খুনিদের দেশে ফিরিয়ে আনার চেষ্টা চলছে দুর্গাপূজা এখন সার্বজনীন উৎসব: প্রধানমন্ত্রী

জমিতে ইউরিয়ার ব্যবহার কমাতে বললো কৃষি মন্ত্রণালয়

বরগুনার আলো

প্রকাশিত: ৮ আগস্ট ২০২২  

কীভাবে ইউরিয়া সারের ব্যবহার কমিয়ে ফসলের ভালো উৎপাদন বজায় রাখা যায় সে বিষয়ে কৃষকদের পরামর্শ দিয়েছে কৃষি তথ্য সার্ভিস এবং কৃষি মন্ত্রণালয়।

সংস্থাগুলো বলছে, সারাবছর একই জমিতে অধিক ফলনশীল শস্যের চাষাবাদের কারণে মাটির উর্বরতা ধীরে ধীরে কমে যাচ্ছে। তাই মাটির উর্বরতা শক্তি সংরক্ষণ করে অধিক ফসল ফলানোর জন্য জমিতে সুষম সার ব্যবহার করা প্রয়োজন।

সেজন্য মাটি এবং ফসলের চাহিদামতো ইউরিয়া সারের পাশাপাশি অ-ইউরিয়া সার (ডিএপি, এমওপি এবং জৈবসার/সবুজসার) ব্যবহার করা প্রয়োজন।

সংস্থাগুলোর মতে, ডিএপি ব্যবহারে ইউরিয়া সাশ্রয় হবে। ডিএপি একটি বিশেষ গুণগতমান সম্পন্ন সার। এ সারে অ্যামোনিয়া ও ফসফেট থাকায় ইউরিয়া ও টিএসপি দুটি সারের গুণ বিদ্যমান। এটি ব্যবহার করলে টিএসপি ব্যবহার করার প্রয়োজন হয় না। ইউরিয়া কম ব্যবহার করলেই চলে।

প্রতি বস্তা (৫০ কেজি) ডিএপি সারে ২০ কেজি ইউরিয়া এবং ৫০ কেজি টিএসপি সারের সমপরিমাণ পুষ্টি উপাদান বিদ্যমান। ডিএপি ও এমওপি সার ব্যবহার করলে ফসলের দানা পুষ্ট হয়, ফসলের রোগবালাই প্রতিরোধ ক্ষমতা বৃদ্ধি পায়, খরা ও শীত সহনশীলতা বাড়ে, ফসলের গুণগতমান ও সংরক্ষণ ক্ষমতা বাড়ে এবং ফলন বেশি পাওয়া যায়।

বিভিন্ন ফসল উৎপাদনে জৈবসার/সবুজসার এবং ডিএপিসহ অন্যান্য রাসায়নিক সার সুষম মাত্রায় প্রয়োগ করলে অধিক ফসল উৎপাদন হবে এবং কৃষকরা আর্থিকভাবে লাভবান হবেন।

বরগুনার আলো