• শুক্রবার ১৯ জুলাই ২০২৪ ||

  • শ্রাবণ ৩ ১৪৩১

  • || ১১ মুহররম ১৪৪৬

বরগুনার আলো
ব্রেকিং:
তিন দিনের রাষ্ট্রীয় সফরে ২১ জুলাই স্পেন যাবেন প্রধানমন্ত্রী আমার বিশ্বাস শিক্ষার্থীরা আদালতে ন্যায়বিচারই পাবে: প্রধানমন্ত্রী কোটা সংস্কার আন্দোলনে প্রাণহানি ঘটনার বিচার বিভাগীয় তদন্ত করা হবে মুক্তিযোদ্ধাদের সর্বোচ্চ সম্মান দেখাতে হবে : প্রধানমন্ত্রী পবিত্র আশুরা মুসলিম উম্মার জন্য তাৎপর্যময় ও শোকের দিন আশুরার মর্মবাণী ধারণ করে সমাজে সত্য ও ন্যায় প্রতিষ্ঠার আহ্বান মুসলিম সম্প্রদায়ের উচিত গাজায় গণহত্যার বিরুদ্ধে ঐক্যবদ্ধ হওয়া নিজেদের রাজাকার বলতে তাদের লজ্জাও করে না : প্রধানমন্ত্রী দুঃখ লাগছে, রোকেয়া হলের ছাত্রীরাও বলে তারা রাজাকার শেখ হাসিনার কারাবন্দি দিবস আজ ‘চীন কিছু দেয়নি, ভারতের সঙ্গে গোলামি চুক্তি’ বলা মানসিক অসুস্থতা দেশের অর্থনীতি এখন যথেষ্ট শক্তিশালী : প্রধানমন্ত্রী আওয়ামী লীগ সরকার ব্যবসাবান্ধব সরকার ফুটবলের উন্নয়নে সহযোগিতা অব্যাহত রাখবে সরকার যথাযথ প্রশিক্ষণের মাধ্যমে বিশ্বমানের খেলোয়াড় তৈরি করুন চীন সফর নিয়ে সংবাদ সম্মেলনে আসছেন প্রধানমন্ত্রী টেকসই উন্নয়নে পরিকল্পিত ও দক্ষ জনসংখ্যার গুরুত্ব অপরিসীম বাংলাদেশে আরো বিনিয়োগ করতে চায় চীন: শি জিনপিং চীন সফর শেষে দেশে ফিরেছেন প্রধানমন্ত্রী চীন সফর সংক্ষিপ্ত করে আজ দেশে ফিরছেন প্রধানমন্ত্রী

ভোট দিয়ে এসে ৯৬ বছরের বৃদ্ধা বললেন, ‘ইভিএম ভালা’

বরগুনার আলো

প্রকাশিত: ২৫ মে ২০২৩  

গাজীপুর সিটি করপোরেশন নির্বাচনে ৯৬ বছর বয়সী বৃদ্ধা সখিনা বেগম নাতির কোলে চড়ে এলেন ভোটকেন্দ্রে। ভোট দিয়ে উচ্ছ্বসিত এই অশীতিপর। বললেন, ইভিএম ভালা। সহজে ভোট দিয়ে আইলাম।  

বৃহস্পতিবার (২৫ মে) সকাল ৮ টা ৫৫ মিনিটে গাজীপুর সিটি করপোরেশনের ৩০ নম্বর ওয়ার্ডের কানাইয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ভোটকেন্দ্রে এ বৃদ্ধা ভোট দেন।

বৃদ্ধার নাতি কাজল মিয়া বলেন, দাদি সকালে বললেন, আমি ভোট দেব আমাকে কেন্দ্র নিয়ে যাও। পরে ইভিএমে ভোট দিতে হবে বললে, তিনি বলেন কী জিনিস এটা, তারপর আমার মোবাইল ফোনো ভিডিও দেখাই। তারপর উনি ভিডিও দেখে সহজে ইভিএমে ভোট দিতে পেরেছেন।  

এতো বয়স্ক মানুষকে ভোট দিতে কেন নিয়ে এসেছেন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, দাদি সবসময় ভোট দেন। এবারও ভোট দিতে চেয়েছেন, তার আগ্রহের জন্যেই নিয়ে উনাকে এসেছি।  

এই কেন্দ্রের প্রথম দিকে ভোট দিয়ে বেরিয়েছেন ৩০ নম্বর ওয়ার্ডের ভোটার জেসমিন আকতার।  

তিনি বলেন, এবারসহ আমি মোট দুবার ভোট দিলাম। তবে ইভিএমে প্রথম ভোট দিলাম। ভালো লাগছে৷ কোনো ঝামেলা মনে হয়নি।  

একই ওয়ার্ডের ভোটার মরজিনা খাতুন৷ তিনিও নিজের অভিজ্ঞতা শেয়ার করলেন। বললেন, ইভিএমে ভোট দিলাম। ভোট দিয়ে ভালো লাগছে৷ পোলিং এজেন্টরা ভালো ছিলেন৷

এই কেন্দ্রে ভোট দেবেন টেবিল ঘড়ি নিয়ে স্বতন্ত্র মেয়র প্রার্থী জায়েদা খাতুন এবং তার ছেলে এই সিটির সর্বশেষ মেয়র জাহাঙ্গীর আলম।

এ কেন্দ্রের ৭টি বুথে  ভোট দিবেন ২৩৫৬ জন ভোটার।

গাজীপুর সিটির নির্বাচনে ভোটার সংখ্যা: গাজীপুর সিটি নির্বাচনের মোট ভোটার ১১ লাখ ৭৯ হাজার ৪৭৬ জন। এদের মধ্যে পুরুষ ভোটার পাঁচ লাখ ৯২ হাজার ৭৬২ জন, নারী ভোটার পাঁচ লাখ ৮৬ হাজার ৬৯৬ জন। এছাড়াও ১৮ জন তৃতীয় লিঙ্গের ভোটার রয়েছেন।

গাজীপুর সিটি নির্বাচনে প্রার্থীর সংখ্যা: গাজীপুর সিটি নির্বাচনে মেয়র পদে আটজন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। এছাড়াও সাধারণ কাউন্সিলর পদে ২৩৯ জন এবং সংরক্ষিত নারী কাউন্সিলর পদে ৭৭ জন প্রার্থী এই নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন।

নির্বাচনে মেয়র পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতাকারী ৮ প্রার্থী হলেন হলেন- নৌকা প্রতীকে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ মনোনীত মো. আজমত উল্লা খান, লাঙ্গল প্রতীকে জাতীয় পার্টির এমএম নিয়াজ উদ্দিন, হাতপাখা প্রতীকে ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের গাজী আতাউর রহমান, মাছ প্রতীকে গণফ্রন্টের প্রার্থী আতিকুল ইসলাম, গোলাপ ফুল প্রতীকে জাকের পার্টির মো. রাজু আহাম্মেদ। এছাড়াও স্বতন্ত্র থেকে মেয়র পদে টেবিল ঘড়ি প্রতীকে জায়েদা খাতুন (সাবেক মেয়র জাহাঙ্গীর আলমের মা), ঘোড়া প্রতীকে মো. হারুন-অর-রশীদ ও হাতি প্রতীকে সরকার শাহনূর ইসলাম প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন।

প্রসঙ্গত, ৩২৯ দশমিক ৯০ বর্গকিলোমিটার আয়তনের গাজীপুর সিটি করপোরেশনের প্রথম নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয় ২০১৩ সালের ৬ জুলাই। দ্বিতীয় সিটি নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয় ২০১৮ সালের ২৬ জুন সিটি নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়।

বরগুনার আলো