• শুক্রবার   ০১ জুলাই ২০২২ ||

  • আষাঢ় ১৭ ১৪২৯

  • || ৩০ জ্বিলকদ ১৪৪৩

বরগুনার আলো
ব্রেকিং:
পদ্মা সেতুতে নাশকতার চেষ্টা: আটক ১ সঞ্চয় বাড়ানোর পরামর্শ প্রধানমন্ত্রীর ঘোষণা হচ্ছে নতুন মুদ্রানীতি সব ধরনের অপ্রয়োজনীয় ব্যয় কমাতে হবে: প্রধানমন্ত্রী ৬ লাখ ৭৮ হাজার ৬৪ কোটি টাকার বাজেট পাস হচ্ছে আজ নির্মল রঞ্জন গুহের মৃত্যুতে প্রধানমন্ত্রীর শোক সায়মা ওয়াজেদের মমত্ববোধ রেল ক্রসিংয়ে ওভারপাস করার নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত সড়কে সেতু-উড়াল সড়ক নির্মাণের নির্দেশ ব্যবসা বৃদ্ধিতে যোগাযোগ ব্যবস্থার উন্নয়ন করা হচ্ছে: প্রধানমন্ত্রী তিন বাহিনীর সমন্বয়ে নিশ্চিত হবে পদ্মা সেতুর নিরাপত্তা চাকরির একমাত্র বিকল্প শিক্ষিত বেকারদের উদ্যোক্তা হিসেবে গড়ে তোলা পদ্মা সেতুতে দক্ষিণাঞ্চলের মানুষের ভাগ্যের পরিবর্তন হবে স্বপ্নজয়ের পর অপার সম্ভাবনার হাতছানি পদ্মা সেতু: প্রধানমন্ত্রীকে এশিয়ার পাঁচ দেশের অভিনন্দন ক্ষুদ্র-মাঝারি শিল্পের সুষ্ঠু বিকাশে কাজ করছে সরকার পদ্মা সেতুর সফলতায় প্রধানমন্ত্রীকে কুয়েতের রাষ্ট্রদূতের অভিনন্দন নতুন প্রজন্মকে প্রস্তত হতে বললেন প্রধানমন্ত্রী আমরা বিজয়ী জাতি, মাথা উঁচু করে চলবো: প্রধানমন্ত্রী মাদকের বিরুদ্ধে সামাজিক আন্দোলন গড়ে তুলতে হবে: প্রধানমন্ত্রী

সিলেটে সাদিক হত্যা: ৩ আসামির ফাঁসি, একজনের যাবজ্জীবন

বরগুনার আলো

প্রকাশিত: ১৮ মে ২০২২  

সিলেটে আলোচিত হাফিজ সাদিকুর রহমান ওরফে সাদিক হত্যা মামলায় চার আসামির ৩ জনের ফাঁসি ও একজনের যাবজ্জীবন কারাদণ্ডের আদেশ দিয়েছে আদালত।

মঙ্গলবার বিকেলে মহানগর দায়রা জজ আদালতের বিচারক মোহাম্মদ আব্দুর রহিম এ রায় দেন। রায়ে দণ্ডপ্রাপ্তদের প্রত্যেককে ৫০ হাজার টাকা করে জরিমানা করা হয়েছে। 

আদালতের পাবলিক প্রসিকিউটর মো. নওশাদ আহমদ চৌধুরী এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

ফাঁসির দণ্ডপ্রাপ্তরা হলেন- সিলেট সদর উপজেলার জালালাবাদ থানা এলাকার বাসিন্দা সৈয়দা রাখা বেগম, আলী হোসেন ও রেজওয়ান আহমদ ওরফে রেদওয়ান। আর যাবজ্জীবন সাজাপ্রাপ্ত খালিকুজ্জামান লায়েক। তাদের মধ্যে ফাঁসির দণ্ডপ্রাপ্ত সৈয়দা রাখা বেগম এবং যাবজ্জীবন সাজাপ্রাপ্ত খালিকুজ্জামান লায়েক পলাতক রয়েছেন।

মামলার বরাত দিয়ে অত্র আদালতের অতিরিক্ত পিপি মো. জুবায়ের বখত জানান, ২০১৫ সালের ১৮ অক্টোবর নগরের জালালাবাদ থানাধীন কালিবাড়ি এলাকায় নিজ বাসায় কথিত স্বামী পরিচয়ে স্থান দেওয়া সাদিকুর রহমান সাদিককে হত্যা করা হয়।

এ ঘটনায় থানায় হত্যা মামলা দায়ের করেন নিহতের পরিবার। মামলার তদন্ত কর্মকর্তা ৪ আসামিকে অভিযুক্ত করে পরের বছর আদালতে অভিযোগপত্র দাখিল করেন। দায়েরকৃত মামলাটি অত্র আদালতে দায়রা ১৭১২/২০১৭ মূলে বিচার কাজ শুরু হয়। দীর্ঘ বিচার প্রক্রিয়ায় সাক্ষীদের সাক্ষ্যপ্রমাণের ভিত্তিতে আদালত ৪ আসামির ৩ জনকে ফাঁসি ও একজনের যাবজ্জীবন সাজা দেন।

বরগুনার আলো