• রোববার   ২৭ নভেম্বর ২০২২ ||

  • অগ্রাহায়ণ ১২ ১৪২৯

  • || ০১ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৪

বরগুনার আলো
ব্রেকিং:
যারা উন্নয়ন দেখে না, তারা চাইলে চোখের ডাক্তার দেখাতে পারে- প্রধানমন্ত্রী অর্থনীতির চাকা সচল রাখতে সক্ষম হয়েছি: প্রধানমন্ত্রী যোগাযোগ সম্প্রসারণে বাংলাদেশের সহযোগিতা চায় আমিরাত আ.লীগ স্বাস্থ্য খাতকে সর্বোচ্চ অগ্রাধিকার দেয়: প্রধানমন্ত্রী সচিব সভায় ১০ নির্দেশনা দেবেন প্রধানমন্ত্রী ব্যাংকে টাকা না থাকার গুজবে চোরেরা সুযোগ নেবে: প্রধানমন্ত্রী ‘রিজার্ভ নিয়ে সমস্যা নেই, সব ব্যাংকে টাকা আছে’ ‘যা চাইবেন তার চেয়ে বেশি দেবো, ওয়াদা দেন নৌকায় ভোট দেবেন’ রক্ত ও হত্যা ছাড়া বিএনপি কিছু দিতে পারেনি : প্রধানমন্ত্রী বিমানবাহিনী এখন অনেক বেশি শক্তিশালী, আধুনিক ও চৌকস: প্রধানমন্ত্রী বাংলাদেশের অর্থনীতি এখনও গতিশীল, নিরাপদ: প্রধানমন্ত্রী যশোরে বিমান বাহিনীর কুচকাওয়াজে প্রধানমন্ত্রী আমাদের ছেলে-মেয়েরা একদিন বিশ্বকাপ খেলবে: প্রধানমন্ত্রী দেশে শ্রমঘন ও স্বল্প পুঁজির এসএমই উদ্যোক্তা তৈরি করা প্রয়োজন রোহিঙ্গারা এখন বাংলাদেশের জন্য ভারী বোঝা: প্রধানমন্ত্রী বিশ্বকাপে আমাদের টিম নেই, এটা আসলেই কষ্ট দেয়: প্রধানমন্ত্রী ভোটের বার্তা নিয়ে মাঠে শেখ হাসিনা ৪৮২৬ কোটি টাকার ৮ প্রকল্প অনুমোদন প্রকৃতির ক্ষতি করে প্রকল্প নেওয়া যাবে না ক্রীড়াঙ্গনকে আন্তর্জাতিক পর্যায়ে মেলে ধরতে সক্ষম হয়েছি

১৭ কোটি টাকার রাজস্ব ফাঁকির মামলায় দুই আমদানিকারক কারাগারে

বরগুনার আলো

প্রকাশিত: ৩ অক্টোবর ২০২২  

মিথ্যা ঘোষণা দিয়ে জালিয়াতির মাধ্যমে সিগারেট আমদানি করে রাজস্ব ফাঁকি দেওয়ার অভিযোগে দুই আমদানিকারককে কারাগারে পাঠিয়েছেন চট্টগ্রামের একটি আদালত। তাদের নাম গোলাম মোস্তফা ওরফে বাচ্চু মিয়া এবং রাসেদুল ইসলাম কাফি। দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) মামলার আসামি তারা।

এর মধ্যে গোলাম মোস্তফা ঢাকার মিমি লেদার কটেজের স্বত্বাধিকারী এবং রাসেদুল ইসলাম পাবনা সদরের এস কে এস এন্টারপ্রাইজের মালিক। রোববার (২ অক্টোবর) চট্টগ্রামের স্পেশাল জজ আদালতের বিচারক ড. বেগম জেবুন্নেসা জামিন আবেদন না মঞ্জুর করে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন।

বিষয়টি নিশ্চিত করে দুদকের আইনজীবী মাহমুদুল হক জানান, মিথ্যা ঘোষণা দিয়ে উচ্চ শুল্কের সিগারেট আমদানি করে সরকারি প্রায় ১৭ কোট টাকার রাজস্ব ফাঁকি দেওয়ার অভিযোগে চলতি বছরের ৯ ও ১০ মার্চ দুটি মামলা করে দুদক।

দুই মামলায় গোলাম মোস্তফা এবং রাসেদুল ইসলাম প্রধান আসামি। এরপর উচ্চ আদালত থেকে দুই আসামি ৬ মাসের অন্তর্বর্তীকালীন জামিনে ছিলেন। জামিনের মেয়াদ শেষে ২ অক্টোবর বিভাগীয় স্পেশাল জজ আদালতে আত্মসমর্পণ করে ফের জামিনের আবেদন করেন তারা। আদালত শুনানি শেষে জামিন নামঞ্জুর করে তাদের কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন।

আদালত সূত্রে সূত্র জানায়, ২০১৮ সালের ১১ নভেম্বর থেকে ১৯ ডিসেম্বর সময়ের মধ্যে ব্যাগ ও জুতা তৈরির মেশিন আমদানির ঘোষণা দিয়ে বেনসন সিগারেট আমদানি করেন মিমি লেদার কটেজের মালিক গোলাম মোস্তফা। এসব সিগারেট উচ্চ শুল্কের। ওই চালানে মিথ্যা ঘোষণার মাধ্যমে আমদানিকারক ৮ কোটি ১৮ লাখ ৫ হাজার ১৮৩ টাকার রাজস্ব ফাঁকি দেন।

একইভাবে ২০১৮ সালের ৪ নভেম্বর থেকে ১৯ ডিসেম্বর সময়ের মধ্যে রুটি তৈরির মেশিনের ঘোষণা দিয়ে জালিয়াতির মাধ্যমে উচ্চ শুল্কহারের সিগারেট আমদানি করেন আরেক আমদানিকারক পাবনার এস কে এস এন্টারপ্রাইজের মালিক রাসেদুল ইসলাম কাফি। তিনিও ৮ কোটি ১৫ লাখ ৬ হাজার ১১২ টাকা রাজস্ব ফাঁকি দেন।

এই দুই ঘটনা অনুসন্ধান শেষে মামলা করে দুদক। মামলায় দণ্ডবিধির ৪০৯, ৪২০, ৪৬৭, ৪৬৮, ৪৭১, ১০৯ ধারাসহ ১৯৪৭ সালের দুর্নীতি প্রতিরোধ আইনের ৫(২) ধারায় অভিযোগ করা হয়। মামলা দুটিতে আমদানিকারক ছাড়াও কাস্টমস কর্মকর্তা, সিঅ্যান্ডএফ প্রতিষ্ঠানসহ আরও অন্তত ১৬ জন আসামি রয়েছেন।

বরগুনার আলো