• বুধবার ২১ ফেব্রুয়ারি ২০২৪ ||

  • ফাল্গুন ৮ ১৪৩০

  • || ১০ শা'বান ১৪৪৫

বরগুনার আলো
ব্রেকিং:
অশিক্ষার অন্ধকারে কেউ থাকবে না: প্রধানমন্ত্রী একুশ মাথা নত না করতে শেখায়: প্রধানমন্ত্রী একুশে পদক তুলে দিলেন প্রধানমন্ত্রী মহান শহিদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস আগামীকাল মিউনিখ সম্মেলনে শেখ হাসিনাকে নিমন্ত্রণ বাংলাদেশের গুরুত্ব বুঝায় গুণীজনদের সম্মাননা ভবিষ্যৎ প্রজন্মকে অনুপ্রাণিত করবে : রাষ্ট্রপতি একুশে পদকপ্রাপ্তদের অনুসরণ করে তরুণরা সোনার বাংলা বিনির্মাণ করবে আজ একুশে পদক তুলে দেবেন প্রধানমন্ত্রী মিউনিখ নিরাপত্তা সম্মেলনে যোগদান শেষে দেশে ফিরেছেন প্রধানমন্ত্রী মিউনিখ সফর শেষে ঢাকার পথে প্রধানমন্ত্রী বরই খেয়ে দুই শিশুর মৃত্যু, কারণ অনুসন্ধান করবে আইইডিসিআর দেশের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্রের উপযুক্ত জবাব দিন: প্রধানমন্ত্রী গাজায় যা ঘটছে তা গণহত্যা: শেখ হাসিনা প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রীর সাক্ষাৎ নেদারল্যান্ডস, যুক্তরাজ্য, আজারবাইজান থেকে বড় বিনিয়োগ আহ্বান জার্মান চ্যান্সেলরের সঙ্গে প্রধানমন্ত্রীর বৈঠক শান্তি ফর্মুলা বাস্তবায়নে শেখ হাসিনার সহযোগিতা চাইলেন জেলেনস্কি কাতারের প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে বৈঠক করেছেন শেখ হাসিনা কিছু খুচরো দল তিড়িং বিড়িং করে লাফাচ্ছে: শেখ হাসিনা মিউনিখ নিরাপত্তা সম্মেলনে প্রধানমন্ত্রীকে বিশ্বনেতাদের অভিনন্দন

চিত্রনায়িকা মাহি কারাগারে

বরগুনার আলো

প্রকাশিত: ১৮ মার্চ ২০২৩  

মারধর ও চাঁদাবাজি এবং ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে চিত্রনায়িকা মাহিয়া মাহিকে গাজীপুর কেন্দ্রীয় কারাগারে পাঠানো হয়েছে। শনিবার (১৮ মার্চ) সকালে হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর থেকে মাহিকে গ্রেফতার করে গাজীপুর মেট্রোপলিটন পুলিশ।

পরে ৭ দিনের রিমান্ড চেয়ে সেখান থেকে তাকে সরাসরি গাজীপুর চীফ মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট (সিএমএম) আদালতে পাঠানো হয়। আদালতের বিচারক মো. ইকবাল হোসেন রিমান্ড আবেদন নামঞ্জুর করে এই চিত্রনায়িকাকে গাজীপুর কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন।

গাজীপুর মেট্রোপলিটন পুলিশের সহকারী কমিশনার (এসি মিডিয়া- ডিবি) আসাদুজ্জামান এসব বিষয় নিশ্চিত করেছেন।

গাজীপুর মেট্রোপলিটন পুলিশের অতিরিক্ত উপ-কমিশনার(এডিসি) রেজওয়ান আহমেদ বলেন, গ্রেফতারের পর বিমানবন্দর থেকে সরাসরি মাহিকে গাজীপুর চীফ মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট (সিএমএম) আদালতে নেওয়া হয়েছে। সাত দিনের রিমান্ড চেয়ে তাকে আদালতে পাঠানো হয়।

শুক্রবার (১৮ মার্চ) রাতে মারধর, চাঁদাবাজি ও ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মাহিয়া মাহি ও তার স্বামী রাকিব সরকারের বিরুদ্ধে গাজীপুর মেট্রোপলিটনের বাসন থানায় দুইটি মামলা দায়ের করা হয়। ওই দুই মামলায় তাকে গ্রেফতার দেখানো হয়েছে।

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানায়, সম্প্রতি ওমরা পালন করতে স্বামীর সঙ্গে সৌদি আরব যান মাহি। সেখান থেকে দেশে পৌঁছালে বিমানবন্দর থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়। তার স্বামী রাকিব সরকার পলাতক রয়েছেন। মারধর, চাঁদাবাজি ও জমি দখলের অভিযোগে তাদেরসহ ২৮ জনকে আসামি করে স্থানীয় ইসমাইল হোসেন বাদি হয়ে একটি  মামলা দায়ের করেন। এছাড়া বাসন থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) মো. রোকন মিয়া বাদী হয়ে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে তাদের (মাহি ও রাকিব) বিরুদ্ধে একটি মামলা দায়ের করেন।

সৌদি আরব থেকে শুক্রবার (১৭ মার্চ) সকালে ফেসবুক লাইভে স্বামী রাকিব সরকারের গাড়ির শোরুমে হামলা ও ভাঙচুরের অভিযোগ করেন মাহি। তিনি ফেসবুক লাইভে বলেন- তার স্বামীর গাড়ির শো-রুম সনিরাজ কার প্যালেসের গেট ভেঙে ইসমাইল হোসেন ও মামুন সরকারের নেতৃত্বে হামলা ও ভাঙচুর করা হয়। এছাড়াও গাজীপুর মেট্টোপলিটন পুলিশের বিরুদ্ধে ঘুষ নেওয়ার অভিযোগ করেন মাহি।

এর আগে, মাহি ফেসবুক লাইভ করার পর স্থানীয় ইসমাইল হোসেন সংবাদ সম্মেলন করে অভিযোগ তুলেন রাকিব সরকার তার প্রায় সোয়া ১১ শতাংশ জমি দখল করে গাড়ির শো-রুম করেছে। সরকারের বিভিন্ন দপ্তরে তিনি এ বিষয়ে অভিযোগ দিয়েছেন। বিষয়টি মীমাংসার জন্য চেষ্টা করা হয়। শুক্রবার ভোররাতে রাকিব সরকারের লোকজন ওই শো-রুমে নতুন কিছু গাড়ি উঠাতে থাকে। খবর পেয়ে আমিসহ (ইসমাইল) কয়েকজন সেখানে যাই। এ সময় রকিব সরকারের লোকজন আমাদের ওপর হামলা চালায়। তারা নিজেরা শো-রুম ভাঙচুর করেছে। জমি ছেড়ে দেওয়ার শর্তে রাকিব আমার কাছে এক কোটি টাকা দাবি করে।

গাজীপুর মেট্রোপলিটনের পুলিশ কমিশনার মোল্যা নজরুল ইসলাম সাংবাদিকদের জানান, সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে চিত্র নায়িকা মাহিয়া পুলিশের বিরুদ্ধে  অভিযোগ করেছেন। তিনি মিথ্যা বলে মানুষের সহানুভূতি নেওয়ার চেষ্টা করেছেন। ভাবমূর্তি ক্ষুণ্ন করার অভিযোগে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে পুলিশ তাদের বিরুদ্ধে মামলা করেছে।

শুক্রবার ভোরে তাদের গাড়ির শোরুমে হামলার ঘটনা শুনে দ্রুত পুলিশ পাঠানো হয়। পুলিশ সেখানে পৌঁছার আগেই সবাই পালিয়ে যায়। এ ঘটনায় ইসমাইল হোসেনসহ তার কয়েকজন লোক আহত হন। পরে  শুক্রবার রাতে ইসমাইল হোসেন বাদী হয়ে ২৮ জনের বিরুদ্ধে বাসন থানায় একটি মামলা দায়ের করেন।

বরগুনার আলো