• মঙ্গলবার ২৫ জুন ২০২৪ ||

  • আষাঢ় ১১ ১৪৩১

  • || ১৭ জ্বিলহজ্জ ১৪৪৫

বরগুনার আলো
ব্রেকিং:
ড. ইউনূস কর ফাঁকি দিয়েছেন, তা আদালতে প্রমাণিত: প্রধানমন্ত্রী ‘শেখ হাসিনা দেশ বিক্রি করে না’ অভিন্ন নদীর টেকসই ব্যবস্থাপনা নিয়ে আলোচনা হয়েছে: প্রধানমন্ত্রী দুই দেশের পারস্পরিক সহযোগিতার পথ নিয়ে আলোচনা করেছি সরকার শিক্ষা ব্যবস্থাকে বহুমাত্রিক করেছে: প্রধানমন্ত্রী অনেক হিরার টুকরা ছড়িয়ে আছে, কুড়িয়ে নিতে হবে বারবার ভস্ম থেকে জেগে উঠেছে আওয়ামী লীগ: শেখ হাসিনা টেকসই ভবিষ্যত নিশ্চিত করতে যৌথ দৃষ্টিভঙ্গিতে সম্মত: প্রধানমন্ত্রী গণতন্ত্র রক্ষায় আ. লীগ নেতাকর্মীদের সর্বদা প্রস্তুত থাকার নির্দেশ আওয়ামী লীগের প্লাটিনাম জয়ন্তীতে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধা আওয়ামী লীগের প্লাটিনাম জয়ন্তী আজ ভারতের সঙ্গে বাংলাদেশের ১০ চুক্তি সই বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের ৭৫তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী আগামীকাল দিল্লির রাষ্ট্রপতি ভবনে শেখ হাসিনাকে রাজকীয় সংবর্ধনা হাসিনা-মোদী বৈঠক আজ সংলাপের মাধ্যমে বাণিজ্য প্রতিবন্ধকতা দূর করার আহ্বান বাংলাদেশ প্রতিবেশী দেশগুলোর বিনিয়োগকে অগ্রাধিকার দেয় বঙ্গবন্ধুর চার নীতি এবং বাংলাদেশের চার স্তম্ভ সুফিয়া কামালের সাহিত্যকর্ম নতুন প্রজন্মের প্রেরণার উৎস শুক্রবার ভারত যাচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী

জুসে বিষ মিশিয়ে ছেলেকে হত্যা, মা আটক

বরগুনার আলো

প্রকাশিত: ১৮ মার্চ ২০২৩  

সাতক্ষীরার শ্যামনগরে পরকীয়া প্রেমে আসক্ত হয়ে জুসে বিষ মিশিয়ে ছেলেকে হত্যার অভিযোগ উঠেছে এক মায়ের বিরুদ্ধে।সাতক্ষীরা শ্যামনগর উপজেলা সদরের নকিপুর (হরিতলা) গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

এ ঘটনায় অভিযুক্ত মা সুস্মিতা দত্তকে আটক করেছে পুলিশ। পুলিশের প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে সন্তান হত্যার বিষয়টি স্বীকার করেছেন তিনি।

মৃত রহিত দত্ত (১২) শ্যামনগর উপজেলার নকিপুর গ্রামের মৃত গোপাল দত্ত ও সুস্মিতা দত্তের ছেলে। সে নকিপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ৫ম শ্রেণির ছাত্র ছিল।

রহিতের মেজ কাকা উজ্জল দত্ত জানান, শুক্রবার দুপুর দেড়টার দিকে রহিতের মা ছেলের অসুস্থতার বিষয়টি মুঠোফোনে পরিবারের সদস্যদের জানায়। এ সময় তারা দ্রুত ঘটনাস্থলে পৌঁছলে তাদেরকে জানানো হয় বঙ্গবন্ধুর জন্মবার্ষিকীর অনুষ্ঠান থেকে বাড়ি ফেরার পথে কিনে আনা জুস খেয়ে ছেলে অসুস্থ হয়ে পড়েছে। একপর্যায় মুখ দিয়ে ফেনা উঠে রহিত নিস্তেজ হতে শুরু করলে তাকে শ্যামনগর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেওয়া হয়। সেখানে চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

তিনি আরও জানান, বিষয়টি রহস্যজনক মনে হওয়ায় পুলিশকে জানালে তারা ঘটনাস্থলে এসে ঘরের পেছন থেকে একটি বিষের প্যাকেট উদ্ধার করে। একই সঙ্গে রহিতের মা সুস্মিতা দত্তকে আটক করে পুলিশ।

শ্যামনগর থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) নুরুল ইসলাম বাদল বলেন, নিহতের স্বজনদের অভিযোগের ভিত্তিতে মৃত রহিত দত্তের মা সুস্মিতা দত্তকে আটক করা হয়। জিজ্ঞাসাবাদে অভিযুক্ত মা স্বীকার করেছেন তিনি নিজে হাতে জুসে বিষ মিশিয়ে তার ছেলেকে খেতে দিয়েছিলেন। সেই জুস খেয়েই মারা গেছে রহিত। জিজ্ঞাসাবাদে অভিযুক্ত ওই নারী আরও স্বীকারোক্তি দিয়েছেন যে, পরকীয়া প্রেমে আসক্ত হয়ে তিনি নিজের সন্তানকে হত্যা করেছেন।

তিনি আরও জানান, মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে পাঠানো হয়েছে। মৃতের পরিবারের পক্ষ থেকে এজাহার জমা দিলে মামলা রুজু করে পদক্ষেপ নেওয়া হবে।

বরগুনার আলো