• বুধবার ২৬ জুন ২০২৪ ||

  • আষাঢ় ১১ ১৪৩১

  • || ১৮ জ্বিলহজ্জ ১৪৪৫

বরগুনার আলো
ব্রেকিং:
ড. ইউনূস কর ফাঁকি দিয়েছেন, তা আদালতে প্রমাণিত: প্রধানমন্ত্রী ‘শেখ হাসিনা দেশ বিক্রি করে না’ অভিন্ন নদীর টেকসই ব্যবস্থাপনা নিয়ে আলোচনা হয়েছে: প্রধানমন্ত্রী দুই দেশের পারস্পরিক সহযোগিতার পথ নিয়ে আলোচনা করেছি সরকার শিক্ষা ব্যবস্থাকে বহুমাত্রিক করেছে: প্রধানমন্ত্রী অনেক হিরার টুকরা ছড়িয়ে আছে, কুড়িয়ে নিতে হবে বারবার ভস্ম থেকে জেগে উঠেছে আওয়ামী লীগ: শেখ হাসিনা টেকসই ভবিষ্যত নিশ্চিত করতে যৌথ দৃষ্টিভঙ্গিতে সম্মত: প্রধানমন্ত্রী গণতন্ত্র রক্ষায় আ. লীগ নেতাকর্মীদের সর্বদা প্রস্তুত থাকার নির্দেশ আওয়ামী লীগের প্লাটিনাম জয়ন্তীতে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধা আওয়ামী লীগের প্লাটিনাম জয়ন্তী আজ ভারতের সঙ্গে বাংলাদেশের ১০ চুক্তি সই বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের ৭৫তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী আগামীকাল দিল্লির রাষ্ট্রপতি ভবনে শেখ হাসিনাকে রাজকীয় সংবর্ধনা হাসিনা-মোদী বৈঠক আজ সংলাপের মাধ্যমে বাণিজ্য প্রতিবন্ধকতা দূর করার আহ্বান বাংলাদেশ প্রতিবেশী দেশগুলোর বিনিয়োগকে অগ্রাধিকার দেয় বঙ্গবন্ধুর চার নীতি এবং বাংলাদেশের চার স্তম্ভ সুফিয়া কামালের সাহিত্যকর্ম নতুন প্রজন্মের প্রেরণার উৎস শুক্রবার ভারত যাচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী

১২ বছর পর গ্রেফতার জেএমবির সক্রিয় সদস্য

বরগুনার আলো

প্রকাশিত: ৭ জুন ২০২৩  

নিষিদ্ধ ঘোষিত জঙ্গি সংগঠন জামায়েতুল মুজাহেদীন বাংলাদেশ (জেএমবি)-এর এক সক্রিয় সদস্য ১২ বছর পলাতক থাকার পর গ্রেফতার করেছে পুলিশের অ্যান্টি টেররিজম ইউনিট (এটিইউ)।

গ্রেফতার ব্যক্তির নাম মো. সোলায়মান। তিনি ২০১১ সাল থেকে দীর্ঘ প্রায় ১২ বছর দেশের বিভিন্ন এলাকায় আত্মগোপনে ছিলেন।

সোমবার (৫ জুন) গাজীপুর কাপাসিয়া সনমানিয়া ইউনিয়নের গোম্বাবরস্থ গ্রামের পল্লী বিদ্যুৎ অফিস এলাকা থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়।

মঙ্গলবার (৬ জুন) এ তথ্য জানান বাংলাদেশ পুলিশের অ্যান্টি টেররিজম ইউনিটের পুলিশ সুপার (মিডিয়া অ্যান্ড অ্যাওয়ারনেস উইং) মোহাম্মদ আসলাম খান।

তিনি জানান, দীর্ঘ এক যুগেরও বেশি সময় ধরে সোলায়মান নিষিদ্ধ ঘোষিত জঙ্গি সংগঠন জেএমবির সক্রিয় সদস্য হয়ে বাংলাদেশের অখণ্ডতা, সংহতি ও জননিরাপত্তা বিপন্ন করার জন্য সাংগঠনিকভাবে কাজ করে আসছে। ২০১১ সালে ময়মনসিংহ মুক্তাগাছা ছালরা নামক এলাকা থেকে বিপুল পরিমাণ বিস্ফোরক দ্রব্যসহ তার সহযোগী সমর আলীকে গ্রেফতার করে র্যাব-৯। তখন সেখান থেকে সে কৌশলে পালিয়ে যায় এবং দেশের বিভিন্ন এলাকায় আত্মগোপনে পলাতক থাকে।

তিনি আরও জানান, ২০১১ সালের পর থেকে কুমিল্লা, সিলেট, নরসিংদী ও গাজীপুরের বিভিন্ন এলাকায় আত্মগোপনে থেকে মাছের খামারের ব্যবসা করে আসছেন তিনি।

গ্রেফতার সোলায়মানের বিরুদ্ধে ময়মনসিংহের মুক্তাগাছা থানায় বিস্ফোরক দ্রব্য আইনে একটি মামলা রয়েছে। তার বিরুদ্ধে পরবর্তী আইনানুগ ব্যবস্থা প্রক্রিয়ধীন রয়েছে বলেও জানায় এটিইউ।

বরগুনার আলো