• মঙ্গলবার ১৬ জুলাই ২০২৪ ||

  • শ্রাবণ ১ ১৪৩১

  • || ০৮ মুহররম ১৪৪৬

বরগুনার আলো
ব্রেকিং:
মুসলিম সম্প্রদায়ের উচিত গাজায় গণহত্যার বিরুদ্ধে ঐক্যবদ্ধ হওয়া নিজেদের রাজাকার বলতে তাদের লজ্জাও করে না : প্রধানমন্ত্রী দুঃখ লাগছে, রোকেয়া হলের ছাত্রীরাও বলে তারা রাজাকার শেখ হাসিনার কারাবন্দি দিবস আজ ‘চীন কিছু দেয়নি, ভারতের সঙ্গে গোলামি চুক্তি’ বলা মানসিক অসুস্থতা দেশের অর্থনীতি এখন যথেষ্ট শক্তিশালী : প্রধানমন্ত্রী আওয়ামী লীগ সরকার ব্যবসাবান্ধব সরকার ফুটবলের উন্নয়নে সহযোগিতা অব্যাহত রাখবে সরকার যথাযথ প্রশিক্ষণের মাধ্যমে বিশ্বমানের খেলোয়াড় তৈরি করুন চীন সফর নিয়ে সংবাদ সম্মেলনে আসছেন প্রধানমন্ত্রী টেকসই উন্নয়নে পরিকল্পিত ও দক্ষ জনসংখ্যার গুরুত্ব অপরিসীম বাংলাদেশে আরো বিনিয়োগ করতে চায় চীন: শি জিনপিং চীন সফর শেষে দেশে ফিরেছেন প্রধানমন্ত্রী চীন সফর সংক্ষিপ্ত করে আজ দেশে ফিরছেন প্রধানমন্ত্রী ঢাকা-বেইজিং ৭ ঘোষণাপত্র, ২১ চুক্তি সই চীনের প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে বৈঠকে শেখ হাসিনা রোহিঙ্গাদের প্রত্যাবাসনে চীনের প্রতি সহযোগিতার আহ্বান বাংলাদেশে বিনিয়োগের এখনই উপযুক্ত সময় তিয়েনআনমেন স্কয়ারে চীনা বিপ্লবীদের প্রতি শেখ হাসিনার শ্রদ্ধা চীন-বাংলাদেশ হাত মেলালে বিশাল কিছু অর্জন সম্ভব: প্রধানমন্ত্রী

ঈদের আগে ১৪ দিনে রেমিট্যান্স ১৬৪ কোটি ডলার

বরগুনার আলো

প্রকাশিত: ২০ জুন ২০২৪  

পবিত্র ঈদুল আজহার আগে চলতি জুন মাসের ১৪ দিনে বৈধপথে ব্যাংকিং চ্যানেলে প্রবাসী আয়ের নতুন রেকর্ড তৈরি হয়েছে। জুনের ১৪ দিনে প্রবাসী আয় এসেছে ১৬৪ কোটি ৬৭ লাখ ৪০ হাজার মার্কিন ডলার, যা আগের যে কোনো সময়ের চেয়ে বেশি। বুধবার (১৯ জুন) ঈদের ছুটির পর এ তথ্য প্রকাশ করে বাংলাদেশ ব্যাংক।

কেন্দ্রীয় ব্যাংকের তথ্যমতে, জুন মাসের ১৪ দিনে প্রতিদিন বৈধপথে ব্যাংকিং চ্যানেলে প্রবাসী আয় এসেছে ১১ কোটি ৭৬ লাখ ২৪ হাজার ২৮৫ মার্কিন ডলার। মে মাসের প্রতিদিন দেশে প্রবাসী আয় এসেছিল ৭ কোটি ৫১ লাখ ২৯ হাজার ৩৩৩ মার্কিন ডলার। আর আগের বছর জুন মাসে প্রতিদিন প্রবাসী আয় এসেছিল ৭ কোটি ৩৩ লাখ ২ হাজার ৬৬৬ মার্কিন ডলার।

ব্যাংক সংশ্লিষ্টরা জানান, সাধারণত দুই  ঈদে প্রবাসীরা দেশে বেশি রেমিট্যান্স পাঠান। দেশে স্বজনদের ঈদের কেনাকাটা করার জন্য বাড়তি রেমিট্যান্স পাঠান প্রবাসীরা। আর কোরবানির ঈদের আগে দেশে স্বজনরা যাতে কোরবানি দিতে পারে সে জন্য বেশি প্রবাসী আয় পাঠান। এবারও তাই হয়েছে। এর প্রভাব পড়েছে মোট প্রবাসী আয়ে।

বৈধভাবে ব্যাংকিং চ্যানেলে প্রবাসীদের বেশি রেমিট্যান্স পাঠানোর আরও একটি কারণ হলো ডলারের দাম এক লাফে ৭ টাকা বৃদ্ধি পাওয়া। মে মাসের প্রথম সপ্তাহে প্রবাসী আয়ের ডলারের দাম ১১০ টাকা ৫০ পয়সা থেকে বাড়িয়ে ১১৭ টাকা পুনর্নির্ধারণ করা হয়।

এছাড়া আগে থেকে প্রবাসী আয়ের বিপরীতে ২ দশমিক ৫০ শতাংশ হারে প্রণোদনা কার্যকর ছিল, সেটাও অব্যাহত রয়েছে। এর ফলে প্রবাসীরা ১ ডলার পাঠালেই দেশে স্বজনরা প্রায় ১২০ টাকা পাচ্ছেন। এ কারণে মে মাসের দ্বিতীয় সপ্তাহ থেকে প্রবাসী আয়ের পালে হাওয়া বইতে শুরু করে। ঈদের আগে এই হাওয়া আরও গতিশীল হয়।

বরগুনার আলো