• মঙ্গলবার ১৬ জুলাই ২০২৪ ||

  • শ্রাবণ ১ ১৪৩১

  • || ০৮ মুহররম ১৪৪৬

বরগুনার আলো
ব্রেকিং:
মুসলিম সম্প্রদায়ের উচিত গাজায় গণহত্যার বিরুদ্ধে ঐক্যবদ্ধ হওয়া নিজেদের রাজাকার বলতে তাদের লজ্জাও করে না : প্রধানমন্ত্রী দুঃখ লাগছে, রোকেয়া হলের ছাত্রীরাও বলে তারা রাজাকার শেখ হাসিনার কারাবন্দি দিবস আজ ‘চীন কিছু দেয়নি, ভারতের সঙ্গে গোলামি চুক্তি’ বলা মানসিক অসুস্থতা দেশের অর্থনীতি এখন যথেষ্ট শক্তিশালী : প্রধানমন্ত্রী আওয়ামী লীগ সরকার ব্যবসাবান্ধব সরকার ফুটবলের উন্নয়নে সহযোগিতা অব্যাহত রাখবে সরকার যথাযথ প্রশিক্ষণের মাধ্যমে বিশ্বমানের খেলোয়াড় তৈরি করুন চীন সফর নিয়ে সংবাদ সম্মেলনে আসছেন প্রধানমন্ত্রী টেকসই উন্নয়নে পরিকল্পিত ও দক্ষ জনসংখ্যার গুরুত্ব অপরিসীম বাংলাদেশে আরো বিনিয়োগ করতে চায় চীন: শি জিনপিং চীন সফর শেষে দেশে ফিরেছেন প্রধানমন্ত্রী চীন সফর সংক্ষিপ্ত করে আজ দেশে ফিরছেন প্রধানমন্ত্রী ঢাকা-বেইজিং ৭ ঘোষণাপত্র, ২১ চুক্তি সই চীনের প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে বৈঠকে শেখ হাসিনা রোহিঙ্গাদের প্রত্যাবাসনে চীনের প্রতি সহযোগিতার আহ্বান বাংলাদেশে বিনিয়োগের এখনই উপযুক্ত সময় তিয়েনআনমেন স্কয়ারে চীনা বিপ্লবীদের প্রতি শেখ হাসিনার শ্রদ্ধা চীন-বাংলাদেশ হাত মেলালে বিশাল কিছু অর্জন সম্ভব: প্রধানমন্ত্রী

শরীরে ভিটামিন সি’র ঘাটতি হয়েছে কি না বুঝবেন যে লক্ষণে

বরগুনার আলো

প্রকাশিত: ৮ জুলাই ২০২৪  

ভিটামিন সি শরীরের জন্য খুবই গুরুত্বপূর্ণ। রসায়নের ভাষায় ভিটামিন-সি এর নাম হলো অ্যাসকরবিক অ্যাসিড। এটি রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়াতে কাজ করে। পাশাপাশি হাড় ও দাঁতের জন্যও ভিটামিন সি অনেক উপকারী।

এটি ত্বকের টিস্যুর গঠনেও সরাসরি অংশ নেয়। যে কোনো ক্ষত খুব তাড়াতাড়ি সাড়িয়ে তুলতেও এই ভিটামিনের বিকল্প নেই। অ্যান্টি অক্সিডেন্ট হিসাবে ক্ষতিকর ফ্রি রেডিক্যাল থেকেও রক্ষা করে এটি। ভিটামিন সি দাঁত ও মাড়ির স্বাস্থ্যকে ভালো রাখে।

যদিও প্রতিদিনের খাদ্য তালিকায় ভিটামিন সি’সমৃদ্ধ ফল ও শাকসবজি রাখলে সহজেই এর দৈনিক চাহিদা পূরণ করা সম্ভব। ভিটামিন সি পানিতে দ্রবণীয় হওয়ায় এটি শরীরে সঞ্চিত থাকে না। এই ভিটামিন প্রয়োজনের অতিরিক্ত গ্রহণ করলে তা প্রস্রাবের মাধ্যমে বেরিয়ে যায়। তাই প্রতিদিনই নির্দিষ্ট পরিমাণে ভিটামিন সি গ্রহণ করা আবশ্যক।

ভিটামিন সি’র ঘাটতির লক্ষণ কী কী?

সব সময় ক্লান্ত লাগা

আপনার যদি সব সময় ক্লান্ত লাগে কিংবা অল্প কাজেই যদি হাঁপিয়ে ওঠেন তাহলে তা কিন্তু হতে পারে ভিটামিন সি’র ঘাটতির লক্ষণ। তাই ক্লান্তির লক্ষণও অবহেলা করবেন না।

জয়েন্টে ব্যথা

শরীরের বিভিন্ন জয়েন্টে ব্যথার সমস্যায় অনেকেই ভোগেন। যদি জয়েন্ট ও পেশীর ব্যথায় আপনি মাঝে মধ্যেই ভোগেন, তাহলে এর পেছনে কারণ হতে পারে ভিটামিন সি’র ঘাটতি। এভাবে যন্ত্রণা হলে অবহেলা না করে চিকিৎসকের পরামর্শ নেওয়া জরুরি।

ক্ষতস্থান শুকাতে দেরি হওয়া

ভিটামিন সি শরীরে কোলাজেন নামক একটি প্রোটিন উৎপাদনে সাহায্য করে। যদি শরীরে ভিটামিন সি’র ঘাটতি হয় তাহলে এই কোলাজেন সঠিক পরিমাণে উৎপন্ন হয় না। ফলে ক্ষতস্থান শুকাতে দেরি হয়।

রুক্ষ-শুষ্ক ত্বক

ভিটামিন সি’র ঘাটতি হলে ত্বক খুবই রুক্ষ ও শুষ্ক হয়ে ওঠে। ত্বকের জেল্লা হারিয়ে যায়। নির্জীব হয়ে পড়ে ত্বক।
দাঁত-মাড়ির প্রদাহ

মুখের স্বাস্থ্য ভালো না হওয়ার কারণে দাঁত কিংবা মাড়িতে ইনফেকশন হতে পারে। তবে মাড়ি থেকে রক্ত পড়া, মুখের ভেতরে ঘা হওয় ইত্যাদি লক্ষণ দেখা দিলে বুঝবেন শরীরে ভিটামিন সি’র ঘাটতি আছে।
মানসিক চাপ ও দুশ্চিন্তা বাড়ে

ভিটামিন সি’র ঘাটতি হলে মানসিক চাপ, অবসাদ মূলত স্ট্রেস বাড়তেতে পারে। তবে এসব লক্ষণ দেখা দেওয়া মানেই ভিটামিন সি’র ঘাটতি হওয়া নয়। তাই নিজে নিজে ওষুধ খেতে যাবেন না। বরং এ জাতীয় উপসর্গ দেখা দিলে সতর্ক হন ও চিকিৎসকের পরামর্শ নিন।

বরগুনার আলো