• শুক্রবার   ০৩ ফেব্রুয়ারি ২০২৩ ||

  • মাঘ ২১ ১৪২৯

  • || ১১ রজব ১৪৪৪

বরগুনার আলো
ব্রেকিং:
জনগণের ভাগ্য নিয়ে ছিনিমিনি খেলতে আসিনি: প্রধানমন্ত্রী সবাইকে হিসাব করে চলার অনুরোধ প্রধানমন্ত্রীর উন্নত-সমৃদ্ধ দেশ গড়তে কৃষি উন্নয়নের বিকল্প নেই: প্রধানমন্ত্রী ক্রীড়া শিক্ষায় বাস্তবমুখী পদক্ষেপ নিয়েছি: প্রধানমন্ত্রী নিরাপদ খাদ্য নিশ্চিতে কাজ করছে সরকার: প্রধানমন্ত্রী জনস্বাস্থ্য নিশ্চিতে নিরাপদ ও পুষ্টিকর খাদ্যের বিকল্প নেই জনগণকে বিশ্বাস করি, তারা যদি চায় আমরা থাকবো: প্রধানমন্ত্রী ২০২২-২৩ অর্থবছরে ১০ বিলিয়ন ডলারের বেশি রেমিট্যান্স এসেছে ভাষা-সাহিত্য চর্চাও ডিজিটাল করার পরামর্শ প্রধানমন্ত্রীর রাষ্ট্রপতির সঙ্গে প্রধানমন্ত্রীর সাক্ষাৎ মানহীন শিক্ষায় উচ্চশিক্ষিত বেকার বাড়ছে: রাষ্ট্রপতি মুসলিম উম্মাহকে ফিলিস্তিনের পাশে দাঁড়ানোর আহ্বান দেশের ব্যাপক উন্নয়ন বিবেচনায় নিতে দেশবাসীর প্রতি আহ্বান গণতান্ত্রিক ধারা অব্যাহত থাকলেই মানুষের উন্নতি হয়: প্রধানমন্ত্রী আমি জোর করে দেশে ফিরেছিলাম, আ.লীগ পালায় না: শেখ হাসিনা আজ ১১ প্রকল্প উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী ১-৭ মার্চ মোবাইলে কল করলেই শোনা যাবে বঙ্গবন্ধুর ভাষণ সন্ত্রাস রুখে দিতে প্রশংসনীয় ভূমিকা রেখে যাচ্ছে পুলিশ সারদায় কুচকাওয়াজে প্রধানমন্ত্রীকে অভিবাদন বাংলাদেশ পুলিশ শান্তি-শৃঙ্খলা রক্ষায় নিরলসভাবে কাজ করছে

অতিরিক্ত কাজের চাপেও ভারসাম্য রাখবেন যেভাবে

বরগুনার আলো

প্রকাশিত: ২৩ জানুয়ারি ২০২৩  

দৈনন্দিন জীবনে আমাদের নানা কাজে ব্যস্ত থাকতে হয়। সেটা হোক অফিসে কিংবা ব্যবসার জন্য। কর্মক্ষেত্রে এই কাজের চাপে আমরা অনেক সময় নিজেদের ভারসাম্য হারিয়ে ক্লান্ত হয়ে যাই। এ ক্ষেত্রে কিছু পদ্ধতি অবলম্বন করলে কাজের চাপেও নিজেকে চাঙা রাখতে পারবেন।

কাজের চাপের মধ্যেও নিজের জীবনের ভারসাম্য রাখতে হবে এ কথা হরহামেশায় শোনা যায়। কিন্তু কীভাবে সেই ভারসাম্য বজায় রাখতে হবে সেটা অনেকেই জানেন না। আর তাইতো ক্লান্ত হয়ে পড়েন অনেকে। আজকেই এই প্রতিবেদনে থাকছে কীভাবে কাজের চাপের মধ্যেও নিজের জীবনের ভারসাম্য বজায় রাখবেন।

প্রথমত, আপনি যদি কোনো কাজের মধ্যে না থাকেন, তাহলে কাজের সঙ্গে জড়িত কোনো প্রকার যন্ত্রের ব্যবহার করবেন না। মোট কথা হচ্ছে ওই সময়টা প্রযুক্তির থেকে নিজেকে দূরে রাখুন।

মানসিক অবসাদ কাটাতে প্রয়োজনে কোনো মনোবিশেষজ্ঞের কাছে যেতে হতে পারে। এতে সুবিধা হতে পারে। আবার প্রয়োজন ও সুবিধামতো বিরতিও নিতে পারেন। বিরতি কাজেরই অংশ, প্রয়োজন বুঝে অল্প সময়ের বিরতি নিতে পারেন।

আর যদি অল্প বিরতিতে কোনো ফলাফল না আসে তাহলে একটু বড় 'বিরতি' নিয়ে কোথাও যেতে পারেন। ঘুরে আসতে পারেন। বা কাজের জায়গার সঙ্গে সব সম্পর্ক ছিন্ন করে দিন। নিজের সঙ্গে সময় কাটান। নিজের মতো করে, প্রকৃতির কোলে কোথাও হলে সবচেয়ে ভালো।

শারীরিক ব্যায়াম আবার এক্ষেত্রে দুর্দান্ত কাজে দিতে পারে। বিশেষজ্ঞের পরামর্শ নিয়ে নির্দিষ্ট মেডিটেশন করতে পারেন।

সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ কথা হলো যতই নিজেকে বিধ্বস্ত লাগুক না কেন সহকর্মী, বন্ধু বা ভরসার যে কোনো মানুষকে সে কথা জানান। নিজের মধ্যে গুটিয়ে না রাখাই ভালো হবে। এমনও হতে পারে আপনার কথা অন্যের কাছে বলায় নিজেকে হালকা লাগতে পারে ও একটি সমাধানও আসতে পারে।

বরগুনার আলো