• বৃহস্পতিবার   ০২ ফেব্রুয়ারি ২০২৩ ||

  • মাঘ ২০ ১৪২৯

  • || ১০ রজব ১৪৪৪

বরগুনার আলো
ব্রেকিং:
জনগণের ভাগ্য নিয়ে ছিনিমিনি খেলতে আসিনি: প্রধানমন্ত্রী সবাইকে হিসাব করে চলার অনুরোধ প্রধানমন্ত্রীর উন্নত-সমৃদ্ধ দেশ গড়তে কৃষি উন্নয়নের বিকল্প নেই: প্রধানমন্ত্রী ক্রীড়া শিক্ষায় বাস্তবমুখী পদক্ষেপ নিয়েছি: প্রধানমন্ত্রী নিরাপদ খাদ্য নিশ্চিতে কাজ করছে সরকার: প্রধানমন্ত্রী জনস্বাস্থ্য নিশ্চিতে নিরাপদ ও পুষ্টিকর খাদ্যের বিকল্প নেই জনগণকে বিশ্বাস করি, তারা যদি চায় আমরা থাকবো: প্রধানমন্ত্রী ২০২২-২৩ অর্থবছরে ১০ বিলিয়ন ডলারের বেশি রেমিট্যান্স এসেছে ভাষা-সাহিত্য চর্চাও ডিজিটাল করার পরামর্শ প্রধানমন্ত্রীর রাষ্ট্রপতির সঙ্গে প্রধানমন্ত্রীর সাক্ষাৎ মানহীন শিক্ষায় উচ্চশিক্ষিত বেকার বাড়ছে: রাষ্ট্রপতি মুসলিম উম্মাহকে ফিলিস্তিনের পাশে দাঁড়ানোর আহ্বান দেশের ব্যাপক উন্নয়ন বিবেচনায় নিতে দেশবাসীর প্রতি আহ্বান গণতান্ত্রিক ধারা অব্যাহত থাকলেই মানুষের উন্নতি হয়: প্রধানমন্ত্রী আমি জোর করে দেশে ফিরেছিলাম, আ.লীগ পালায় না: শেখ হাসিনা আজ ১১ প্রকল্প উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী ১-৭ মার্চ মোবাইলে কল করলেই শোনা যাবে বঙ্গবন্ধুর ভাষণ সন্ত্রাস রুখে দিতে প্রশংসনীয় ভূমিকা রেখে যাচ্ছে পুলিশ সারদায় কুচকাওয়াজে প্রধানমন্ত্রীকে অভিবাদন বাংলাদেশ পুলিশ শান্তি-শৃঙ্খলা রক্ষায় নিরলসভাবে কাজ করছে

নিহত বাংলাদেশি নাবিকের মরদেহ ইউক্রেন সরকারের কাছে হস্তান্তর

বরগুনার আলো

প্রকাশিত: ৫ মার্চ ২০২২  

ইউক্রেনের অলভিয়া বন্দরে রুশ রকেট হামলায় বাংলাদেশি জাহাজের নিহত নাবিক হাদিসুর রহমানের মরদেহ দেশটির সরকারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে। শুক্রবার নিহতের এক সহকর্মী এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। এর আগে তার জানাজা সম্পন্ন হয়। হাদিসুর রহমানের বাড়ি বরগুনার বেতাগী উপজেলার হোসনাবাদ ইউনিয়নে।

হাদিসুরের বাড়ি বরগুনার বেতাগীর হোসনাবাদ ইউনিয়নে। তার মরদেহ দেশে আনার আকুতি জানিয়েছিল স্বজনরা। বাংলার সমৃদ্ধি জাহাজে হাদিসুরের সহকর্মী ২৮ নাবিকও তার মরদেহ দেশে আনতে চেষ্টা করেছিলেন। হামলায় ক্ষতিগ্রস্ত জাহাজ থেকে টাগবোটে ওঠার সময়ও হাদিসুরের লাশ সঙ্গে নিয়েছিলেন তারা। বাঙ্কারেও নিয়েছিলেন তার মরদেহ। কিন্তু পরবর্তীতে ইউক্রেন থেকে মালদোভা হয়ে রোমানিয়া যাওয়ার সিদ্ধান্ত হওয়ায় হাদিসুরের মরদেহ তারা ইউক্রেন সরকারের কাছে হস্তান্তর করেন।

মুম্বাই থেকে তুরস্ক হয়ে ২২ ফেব্রুয়ারি ইউক্রেনের অলভিয়া বন্দরে যায় বাংলাদেশ শিপিং করপোরেশনের এ জাহাজটি। এর মধ্যে যুদ্ধ শুরু হলে ২৯ নাবিক নিয়ে জাহাজটি আটকা পড়ে। গত বুধবার সন্ধ্যায় রকেট হামলায় জাহাজের ব্রিজ ধ্বংস হয়ে যায়। মৃত্যু হয় হাদিসুরের। বৃহস্পতিবার জাহাজটি পরিত্যক্ত ঘোষণা করে নাবিক ও প্রকৌশলীকে সরিয়ে নেওয়া হয় বাঙ্কারে। পাশাপাশি হাদিসুরের মরদেহ সংরক্ষণের জন্যও প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হয় বলে পোল্যান্ডের ওয়ারশতে বাংলাদেশ দূতাবাস এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানিয়েছে। তাকে দেশে আনার পরিকল্পনা ছিল সরকারের। তবে যুদ্ধের কারণে তা হয়তো বাতিল করতে হয়েছে।

বরগুনার আলো