• বৃহস্পতিবার   ০২ ফেব্রুয়ারি ২০২৩ ||

  • মাঘ ২০ ১৪২৯

  • || ১০ রজব ১৪৪৪

বরগুনার আলো
ব্রেকিং:
জনগণের ভাগ্য নিয়ে ছিনিমিনি খেলতে আসিনি: প্রধানমন্ত্রী সবাইকে হিসাব করে চলার অনুরোধ প্রধানমন্ত্রীর উন্নত-সমৃদ্ধ দেশ গড়তে কৃষি উন্নয়নের বিকল্প নেই: প্রধানমন্ত্রী ক্রীড়া শিক্ষায় বাস্তবমুখী পদক্ষেপ নিয়েছি: প্রধানমন্ত্রী নিরাপদ খাদ্য নিশ্চিতে কাজ করছে সরকার: প্রধানমন্ত্রী জনস্বাস্থ্য নিশ্চিতে নিরাপদ ও পুষ্টিকর খাদ্যের বিকল্প নেই জনগণকে বিশ্বাস করি, তারা যদি চায় আমরা থাকবো: প্রধানমন্ত্রী ২০২২-২৩ অর্থবছরে ১০ বিলিয়ন ডলারের বেশি রেমিট্যান্স এসেছে ভাষা-সাহিত্য চর্চাও ডিজিটাল করার পরামর্শ প্রধানমন্ত্রীর রাষ্ট্রপতির সঙ্গে প্রধানমন্ত্রীর সাক্ষাৎ মানহীন শিক্ষায় উচ্চশিক্ষিত বেকার বাড়ছে: রাষ্ট্রপতি মুসলিম উম্মাহকে ফিলিস্তিনের পাশে দাঁড়ানোর আহ্বান দেশের ব্যাপক উন্নয়ন বিবেচনায় নিতে দেশবাসীর প্রতি আহ্বান গণতান্ত্রিক ধারা অব্যাহত থাকলেই মানুষের উন্নতি হয়: প্রধানমন্ত্রী আমি জোর করে দেশে ফিরেছিলাম, আ.লীগ পালায় না: শেখ হাসিনা আজ ১১ প্রকল্প উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী ১-৭ মার্চ মোবাইলে কল করলেই শোনা যাবে বঙ্গবন্ধুর ভাষণ সন্ত্রাস রুখে দিতে প্রশংসনীয় ভূমিকা রেখে যাচ্ছে পুলিশ সারদায় কুচকাওয়াজে প্রধানমন্ত্রীকে অভিবাদন বাংলাদেশ পুলিশ শান্তি-শৃঙ্খলা রক্ষায় নিরলসভাবে কাজ করছে

বুকিং দিয়েও ঢাকায় ফেরা যাচ্ছে না, ভোগান্তিতে লঞ্চ যাত্রীরা

বরগুনার আলো

প্রকাশিত: ৩০ এপ্রিল ২০২২  

ঢাকা-বরগুনা-আমতলীর যাত্রীবাহী লঞ্চ বরগুনা ও আমতলী এসে বিকেলে ছেড়ে যাওযার রুটিন থাকলেও তা সকালেই ছেড়ে যাওয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে। এমনকি কেবিন বুকিং দেওয়া যাত্রীদেরও না নিয়ে ছেড়ে যাচ্ছে লঞ্চ।

বরগুনায় শুক্রবার (২৯ এপ্রিল) এমভি রয়েল ক্রুজ ঢাকা থেকে আসা যাত্রীদের নামিয়ে ফের খালি লঞ্চ নিয়ে ঢাকার উদ্দেশে ছেড়ে গেছে। একই অবস্থা আমতলী-ঢাকাগামী যাত্রীবাহী লঞ্চ সুন্দর বন-৭ ও শতাব্দী বাধন লঞ্চের।

শুক্রবার সকালে ঢাকা থেকে বরগুনা ও আমতলীতে আসা ৪টি লঞ্চই শুক্রবার বিকালে ঢাকা যাওয়ার রুটিন রয়েছে। তাই ৪টি লঞ্চের কেবিনে যাত্রীরা বুকিংও দিয়েছেন। অথচ তাদের না নিয়েই এই সকল লঞ্চ ঢাকার উদ্দেশে শুক্রবার সকালেই ছেড়ে গেছে।

ঈদের সময় যাত্রীদের না নিয়ে এভাবে লাঞ্চ ছেড়ে যাওয়ায় ঢাকার যাত্রীরা চরম ভোগান্তিতে পড়েছেন। ঢাকায় তারাও স্বজনদের সাথে ঈদ করতে যাবার প্রস্তুতি নিয়ে কেবিন বুকিং দিয়েছেন। লঞ্চ মালিকদের এমন প্রতারণমূলক আচরণে যাত্রীরা ক্ষুব্ধ।

বরগুনার সদর রোডের ব‍্যবসায়ী জাকির হোসেন বলেন, রয়েল ক্রুজ লঞ্চে আমাদের কেবিন বুক করা ছিল তারা আমাদের না জানিয়ে সকালে ছেড়ে গেছে। আমাদের জরুরি ঢাকা যাওয়ার কথা ছিল।

আমতলীর যাত্রী শামিম ও সাহিদা বলেন, আমাদের না নিয়ে এমনকি না জানিয়েই লঞ্চ চলে গেছে। আমতলীর আরো কয়েকজন যাত্রী জানান, লঞ্চ যাওয়ার কয়েকঘন্টা অতিবাহিত হলেও তাদের জন্য বিকল্প কোনো ব্যবস্থা নেয়া হয়নি। এমনকি বুকিংয়ের টাকাও ফেরৎ পাননি।

আমতলী লঞ্চ ঘাটের দায়িত্বে থাকা শহীদ মিয়া বলেন, দশ বিশজন যাত্রীর ভোগান্তির জন‍্য মালিক পক্ষ বেশি যাত্রী নষ্ট করবে না। তাই লঞ্চ ছেড়ে গেছে।

এ ব্যাপার জানতে লঞ্চ মালিকদের মুঠোফোনে যোগাযোগের চেষ্টা করেও সংযোগ পাওয়া যায়নি।

বরগুনার নৌঘাট কর্মকর্তা মামুনুর রশিদ বলেন, এটা সম্পূর্ণ অন্যায়। যেখানে ঢাকা থেকে অতিরিক্ত লঞ্চের ব্যাবস্থা করা হয়েছে, সেখানে অধিক লাভের আশায় যাত্রীদের সাথে কেন মালিকরা এমন আচরণ করবেন? তারা এভাবে যাত্রী না নিয়ে যেতে পারেন না। বরগুনার জেলা প্রশাসক হাবিবুর রহমান বলেন, এভাবে যাত্রীদের ভোগান্তিতে ফেলে লঞ্চ ছেড়ে যাওয়টা ঠিক হয়নি। লঞ্চ মালিকদের সাথে কথা বলতেছি, কেন তারা এভাবে বুকিং দেওয়া যাত্রীদের রেখে লঞ্চ ছেড়ে দিলেন।

বরগুনার আলো