• রোববার ২৬ মে ২০২৪ ||

  • জ্যৈষ্ঠ ১২ ১৪৩১

  • || ১৭ জ্বিলকদ ১৪৪৫

বরগুনার আলো
ব্রেকিং:
ঢাকাবাসীকে সুন্দর জীবন উপহার দিতে কাজ করছে সরকার : প্রধানমন্ত্রী ঘূর্ণিঝড় রেমাল : ১০ নম্বর মহাবিপদ সংকেত জারি ধর্মনিরপেক্ষতা মানে ধর্মহীনতা নয়: প্রধানমন্ত্রী সকালেই প্রবল ঘূর্ণিঝড়ে রূপ নেবে রেমাল, আছড়ে পড়বে মধ্যরাতে ঘূর্ণিঝড় রেমাল : পায়রা ও মোংলা বন্দরে ৭ নম্বর বিপদ সংকেত ঢাকায় কোনো বস্তি থাকবে না, দিনমজুররাও ফ্ল্যাটে থাকবে অগ্নিসংযোগকারীদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা গ্রহণের হুঁশিয়ারি বঙ্গবাজারে বিপণী বিতানসহ চারটি উন্নয়ন প্রকল্পের উদ্বোধন নজরুলের বলিষ্ঠ লেখনী মানুষকে মুক্তি সংগ্রামে উদ্দীপ্ত করেছে জোটের শরিক দলগুলোকে সংগঠিত ও জনপ্রিয় করতে নির্দেশ সন্ধ্যায় ঘূর্ণিঝড়ে রূপ নিতে পারে রেমাল বঙ্গবাজার বিপনী বিতানসহ ৪ প্রকল্প উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী কৃষিতে ফলন বাড়াতে অস্ট্রেলিয়ার প্রযুক্তি সহায়তা চান প্রধানমন্ত্রী বাজার মনিটরিংয়ে জোর দেওয়ার নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর ‘বঙ্গবন্ধু শান্তি পদক’ দেবে বাংলাদেশ ইরানের প্রেসিডেন্টের মৃত্যুতে রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীর শোক রাইসি-আমির আব্দুল্লাহিয়ান মারা গেছেন: ইরানি সংবাদমাধ্যম সকল ক্ষেত্রে সঠিক পরিমাপ নিশ্চিত করার আহ্বান রাষ্ট্রপতির ওজন ও পরিমাপ নিশ্চিতে কাজ করছে বিএসটিআই: প্রধানমন্ত্রী চাকরির পেছনে না ছুটে যুবকদের উদ্যোক্তা হওয়ার আহ্বান

তালতলীতে খাল দখল করে অবৈধ স্থাপনা নির্মাণের হিড়িক

বরগুনার আলো

প্রকাশিত: ৭ জুন ২০২৩  

বরগুনা প্রতিনিধিঃ বরগুনার তালতলী উপজেলার মালিপাড়া পাবলিক টয়লেটের পূর্বদিকে টয়লেট সংলগ্ন বাজারের কোল ঘেঁষে প্রবাহিত খাল দখল করে অবৈধ স্থাপনা নির্মাণের হিড়িক পড়েছে। খালটির বড় একটা অংশ দখল করে অবৈধভাবে স্থাপনা নির্মাণ করছেন মালীপাড়া এলাকার মৃত মো: ওহাবের ছেলে মো: শাহ আলম।

সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের অনুমতি ছাড়াই প্রশাসনের নাকের ডগায় বসে কোনোরূপ আইনের তোয়াক্কা না করেই দখল কাজ পুরোদমে চালিয়ে যাচ্ছে শাহ আলম, এসব দেখার কেউ নেই।

মঙ্গলবার (৬ জুন) সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, খালটির পাড় দখল করে স্থানীয় মো: শাহ আলম খালের মধ্যে প্রায় ১০ ফুট পর্যন্ত লম্বা করে দোকান নির্মানের কাজ করছেন। এ স্থাপনা নির্মাণের জন্য খালের প্রায় ২-৩ শতাংশ জমি তিনি দখল করে নিয়েছেন।

স্থানীয়রা বলেন, এলাকার হাজারো মানুষের উপকারে আসা এ খালটি এভাবে দখল করে অবৈধ স্থাপনা নির্মাণ করতে থাকলে খালটি সংকুচিত হয়ে পড়বে। শুধু তাই নয়,  মালিপাড়া ও নয়াপাড়া রাস্তার পাশ দখল করে খালের মধ্যে চলছে স্থাপনার কাজ। এতে খাল ও রাস্তা সরু হয়ে চলাচলের চরম ভোগান্তির সৃষ্টি হয়েছে।

এ বিষয়ে শাহ আলম বলেন, খালের জমি হোক আর যেখানেই হোক আমাকে পারমিশন দিয়েছে পানি উন্নয়ন বোর্ড। আমি খালের মধ্যে ঘর উঠালেও কোন সমস্যা নেই। তিনি ঔদ্ধত্য দেখিয়ে বলেন, আপনারা সাংবাদিকরা যা করেন, করতে পারেন।

তালতলীর দায়িত্বপ্রাপ্ত পানি উন্নয়ন বোর্ডের সেকশন অফিসার (এসও) মোঃ হিমেল বলেন, পানি উন্নয়ন বোর্ডের জমিতে কেউ ঘর উঠাতে পারবে না। আমি দূরে আছি, আগামীকাল এসে খবর নেব।

এ প্রসঙ্গে বরগুনা পানি উন্নয়ন বোর্ডের নির্বাহী প্রকৌশলী মোঃ রাকিব বলেন, মালিপাড়া খালের পাশে পানি উন্নয়ন বোর্ডের জমিতে স্থাপনা নির্মাণের জন্য কাউকে কোনো অনুমতি দেয়া হয়নি।

বরগুনার আলো