• বুধবার   ০৫ অক্টোবর ২০২২ ||

  • আশ্বিন ১৯ ১৪২৯

  • || ০৮ রবিউল আউয়াল ১৪৪৪

বরগুনার আলো
ব্রেকিং:
দেশের বিভিন্ন জেলায় বিদ্যুৎ বিপর্যয় ঢাকেশ্বরী মন্দিরে শুভেচ্ছা বিনিময় করবেন প্রধানমন্ত্রী কন্যাশিশুর নিরাপত্তা নিশ্চিত করা আমাদের কর্তব্য: রাষ্ট্রপতি সমৃদ্ধ দেশ গড়তে কন্যাশিশুদের নিরাপত্তা অপরিহার্য: প্রধানমন্ত্রী দেশে ফিরেছেন প্রধানমন্ত্রী দেশে ফেরার পথে লন্ডনে প্রধানমন্ত্রীর যাত্রা বিরতি কৃষিতে বাংলাদেশের সাফল্যের সূচনা বঙ্গবন্ধুর নেতৃত্ব: রাষ্ট্রপতি সোনার বাংলা গড়তে কৃষিকে বিশেষ গুরুত্ব দিচ্ছে সরকার: প্রধানমন্ত্রী ‘শিশুদের শারীরিক-মানসিক বিকাশে সুস্থ বিনোদনের বিকল্প নেই’ ‘মুজিববর্ষে ১ লাখ ৮৫ হাজার ১২৯টি ঘর নির্মাণ করে দেয়া হয়েছে’ শিশুদের বুকে বড় হওয়ার স্বপ্ন জাগিয়ে দিতে হবে: প্রধানমন্ত্রী আগামী প্রজন্মের জন্য পরিকল্পিত নগরায়ণের বিকল্প নেই : রাষ্ট্রপতি ‘সেনাবাহিনীর হাজার হাজার অফিসার ও সৈনিক হত্যা করে জিয়া’ যুক্তরাজ্য-যুক্তরাষ্ট্র সফর শেষে দেশের পথে প্রধানমন্ত্রী জিনপিংকে শুভেচ্ছা জানিয়ে হামিদ-হাসিনার চিঠি প্রতিটি ক্ষেত্রে উৎপাদনশীলতা বৃদ্ধি অপরিহার্য: রাষ্ট্রপতি দেশে উৎপাদনশীলতা বাড়াতে একযোগে কাজ করতে হবে: প্রধানমন্ত্রী বঙ্গবন্ধুর খুনি রাশেদ চৌধুরীকে দেশে ফেরানোর চেষ্টা চলছে বঙ্গবন্ধুর পলাতক খুনিদের দেশে ফিরিয়ে আনার চেষ্টা চলছে দুর্গাপূজা এখন সার্বজনীন উৎসব: প্রধানমন্ত্রী

উইমেন এফটিপিতে ৫০ ম্যাচ বাংলাদেশের

বরগুনার আলো

প্রকাশিত: ১৭ আগস্ট ২০২২  

অবশেষে আনুষ্ঠানিকভাবে প্রকাশ করা হলো নারী ক্রিকেটের এফটিপি। পুরুষদের পর, এবার আগামী তিন বছরের জন্য নারীদের ভবিষ্যৎ সূচিও নিজেদের ওয়েবসাইটে প্রকাশ করেছে আইসিসি। প্রথমবারের মতো উইমেন চ্যাম্পিয়নশিপে নাম এসেছে বাংলাদেশের। এ ছাড়া ২০২২-২৫ চক্রে ২৪টি ওয়ানডে এবং ২৬'টি টি-টোয়েন্টি ম্যাচ খেলার সুযোগ পেয়েছে সালমা-জ্যোতিরা। তবে, সাদা বলে ৫০ ম্যাচ খেলার সুযোগ পেলেও এ চক্রে টেস্ট খেলার সুযোগ থাকছে না জ্যোতিদের জন্য।

কয়েক দিন আগেই প্রকাশ করা হয়েছিল আইসিসির পুরুষ ক্রিকেটারদের ভবিষ্যৎ সফর পরিকল্পনা বা এফটিপি। সেখানে দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ম্যাচ খেলার সুযোগ পায় বাংলাদেশ। এবার তারই ধারাবাহিকতায় নারীদের সূচিও নিজেদের ওয়েবসাইটে প্রকাশ করল ক্রিকেটের নিয়ন্ত্রক সংস্থা। যেখানে জানানো হয়, ২০২২ থেকে ২৫ আগামী তিন বছরে কারা খেলবে কাদের বিপক্ষে।

পুরুষদের মতো নারী ক্রিকেটেও সুখবর মিলেছে বাংলাদেশের জন্য। এখন থেকে আইসিসি উইমেন চ্যাম্পিয়নশিপে অংশ নিতে পারবে টাইগ্রেসরা। স্বাভাবিকভাবেই তাই বাড়েছে তাদের ম্যাচ এবং সিরিজের সংখ্যা। গত মে মাসেই ক্রিকেটবিষয়ক সাইট ক্রিকইনফোর বরাতে জানা যায়, তিন বছরে ১০ দলের সবাই খেলবে আটটি তিন ম্যাচের সিরিজ। চারটি করে হোম এবং অ্যাওয়ে সিরিজের পর শীর্ষে থাকা পাঁচ এবং স্বাগতিক দলগুলো সরাসরি সুযোগ পাবে ২০২৫ বিশ্বকাপে।

এ চক্রে সবার সঙ্গেই একটা করে সিরিজ খেলার সুযোগ পাবে বাংলাদেশ। কেবল ইংল্যান্ডের বিপক্ষে নেই লাল সবুজের প্রতিনিধিদের কোনো ম্যাচ। এ ছাড়া দেশের মাটিতে ভারত, অস্ট্রেলিয়া, পাকিস্তান এবং আয়ারল্যান্ডের বিপক্ষে খেলবে জ্যোতি বাহিনী। আর সফর করবে নিউজিল্যান্ড, দক্ষিণ আফ্রিকা, শ্রীলঙ্কা এবং উইন্ডিজে। আয়ারল্যান্ড ছাড়া সব সিরিজেই সমান তিনটি করে ওয়ানডে এবং টি-টোয়েন্টি ম্যাচ খেলতে হবে বাংলাদেশকে। আইরিশদের সঙ্গে তিন ওয়ানডের সঙ্গে টি-টোয়েন্টি খেলবে ৫টি। এ চক্রে বিশ্ব আসর ছাড়া মোট ২৪টি ওয়ানডে এবং ২৬টি টি-টোয়েন্টি ম্যাচ পেল বাংলাদেশ।

চলতি বছরের ডিসেম্বরে ওশেনিয়া দিয়ে শুরু হবে নারীদের চ্যাম্পিয়নশিপ সফর। পরে আগামী বছরের শুরুতে যাবে লঙ্কা বধে। ২০২৩ এর জুন-জুলাইয়ে ঘরের মাঠে ভারত এবং অক্টোবরে পাকিস্তানকে মোকাবিলা শেষ করে দক্ষিণ আফ্রিকায় যাবে জাহানারারা। ২০২৪ এর মার্চে বাংলাদেশে আসবে মাইটি অস্ট্রেলিয়া। আর ডিসেম্বরে আইরশিদের বিপক্ষে ঘরের মাঠের সিরিজ শেষ করে নিজেদের শেষ সফরে উইন্ডিজ যাবে বাংলাদেশ নারী ক্রিকেট দল।

টেস্ট স্ট্যাটাস পেলেও এ চক্রে সাদা পোশাকের কোনো ম্যাচ পাচ্ছে না বাংলাদেশ। তিন বছরে ৭টি নারী টেস্ট হবে বিশ্বজুড়ে, যেগুলো খেলবে অস্ট্রেলিয়া, ইংল্যান্ড, ভারত ও দক্ষিণ আফ্রিকা।

বরগুনার আলো