• রোববার ১৬ জুন ২০২৪ ||

  • আষাঢ় ২ ১৪৩১

  • || ০৮ জ্বিলহজ্জ ১৪৪৫

বরগুনার আলো
ব্রেকিং:
তারেকসহ পলাতক আসামিদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে কোরবানির পশু বেচাকেনা এবং ঘরমুখো মানুষের নিরাপত্তার নির্দেশ তিস্তা মহাপরিকল্পনা বাস্তবায়নে চীনের কাছে ঋণ চেয়েছি গ্লোবাল ফান্ড, স্টপ টিবি পার্টনারশিপ শেখ হাসিনাকে বিশ্বনেতৃবৃন্দের জোটে চায় শিশুর যথাযথ বিকাশ নিশ্চিতে সকল খাতকে শিশুশ্রমমুক্ত করতে হবে শিশুশ্রম নিরসনে প্রত্যেককে আরো সচেতন হতে হবে : প্রধানমন্ত্রী ব্যবসায়িদের প্রতি নিয়ম নীতি মেনে কার্যক্রম পরিচালনার আহ্বান বিনামূল্যে সরকারি বাড়ি গৃহহীনদের আত্মমর্যাদা এনে দিয়েছে প্রধানমন্ত্রীর জিসিএ লোকাল অ্যাডাপটেশন চ্যাম্পিয়নস অ্যাওয়ার্ড গ্রহণ আশ্রয়ণের ঘর মানুষের জীবন বদলে দিয়েছে: প্রধানমন্ত্রী ঘূর্ণিঝড়ে ক্ষতিগ্রস্ত ঘরবাড়ি তৈরি করে দেব : প্রধানমন্ত্রী নতুন সেনাপ্রধান ওয়াকার-উজ-জামান প্রধানমন্ত্রীর আশ্রয়ণ প্রকল্পের ঘর পাচ্ছে সাড়ে ১৮ হাজার পরিবার শেখ হাসিনার কারামুক্তি দিবস আজ শেখ হাসিনার সঙ্গে সাক্ষাৎ করলেন সোনিয়া গান্ধী মোদীকে বাংলাদেশ সফরের আমন্ত্রণ জানালেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা শেখ হাসিনা-মোদি বৈঠকে দু’দেশের সম্পর্ক আগামীতে আরো দৃঢ় হবে বাংলাদেশ ভুটান থেকে জলবিদ্যুৎ আমদানি করতে আগ্রহী : প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা-নরেন্দ্র মোদী সংক্ষিপ্ত শুভেচ্ছা বিনিময় অ্যাক্রেডিটেশন দেশের অর্থনীতিকে সুদৃঢ় করতে সহায়তা করে: রাষ্ট্রপতি

দশ বছরে ১৮১ কর্মকর্তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা: জনপ্রশাসনমন্ত্রী

বরগুনার আলো

প্রকাশিত: ২৯ মে ২০২৪  

জনপ্রশাসনমন্ত্রী ফরহাদ হোসেন বলেছেন, বিভিন্ন অপরাধে সম্পৃক্ত থাকায় গত ১০ বছরে ১৮১ জন কর্মকর্তাকে (গ্রড-১ থেকে ৯) শাস্তি দেওয়া হয়েছে। মঙ্গলবার সচিবালয়ের গণমাধ্যম কেন্দ্রে আয়োজিত এক সংলাপে তিনি একথা বলেন। বাংলাদেশ সেক্রেটারিয়েট রিপোর্টার্স ফোরাম (বিএসআরএফ) এ সংলাপের আয়োজন করে। এতে সভাপতিত্ব করেন সংগঠনের সভাপতি ফসিহ উদ্দিন মাহতাব। অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন সাধারণ সম্পদক মাসউদুল হক।

মন্ত্রী বলেন, ২০১৪ থেকে ২০২৪ পর্যন্ত গত ১০ বছরে গ্রেড-১ থেকে ৯ পর্যন্ত ৩৫১ কর্মকর্তার বিরুদ্ধে অভিযোগ আসে এর মধ্যে গুরুদণ্ড দেওয়া হয় ৪১ জনকে, লঘুদণ্ড দেওয়া হয় ১৪০ জনকে। ১৭০ জনকে অভিযোগ থেকে অব্যাহতি দেওয়া হয়েছে।

তিনি বলেন, কাজ করতে গেলে বিভিন্ন ধরনের অভিযোগ আসে। এখানে যে শুধু কর্মকর্তারাই দায়ী থাকেন, তা কিন্তু নয়। যার কাজটি পছন্দ হচ্ছে না সে অভিযোগ করেন। সব সময় দেখার চেষ্টা করি অভিযোগের সত্যতা আছে কিনা? প্রতিনিয়ত আমাদের বিভাগীয় ব্যবস্থা নেওয়ার কার্যক্রম চলমান। অভিযোগ দেওয়ার ব্যবস্থা রয়েছে। প্রথমে প্রাথমিক তদন্তের মাধ্যমে অভিযোগের সত্যতা বোঝার চেষ্টা করি। এরপর বিভাগীয় ব্যবস্থা চালু হয়। এরপর শুনানি হয়, স্পট ভিজিট হয়। আমাদের টিম থাকে। সত্যতা থাকলে বিভাগীয় ব্যবস্থা (ডিপার্টমেন্টাল প্রসেডিং-ডিপি) চালু করতে হয়।

এ সময় জনপ্রশাসনমন্ত্রী জানান, সরকারি কর্মকমিশনের (পিএসসি) মাধ্যমে ১৩ থেকে ২০তম গ্রেড (আগের তৃতীয় ও চতুর্থ শ্রেণি) কর্মচারী নিয়োগে কমিটির সুপারিশ পর্যালোচনা করে সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে।

তিনি বলেন, জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের একজন অতিরিক্ত সচিবের নেতৃত্বে একটি কমিটি গঠন করা হয়েছিল। সেই কমিটি পিএসসির মাধ্যমে ১৩ থেকে ২০তম গ্রেডের কর্মচারীদের নিয়োগের সুপারিশ করেছে। আগামী ৩ মাসের মধ্যে তাদের সুপারিশ পর্যালোচনা করে সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে। মন্ত্রী আরও বলেন, গত ৫ বছরে তিন লাখ ৫৮ হাজার ২৩৭ জনকে নিয়োগ দেওয়া হয়েছে।

বরগুনার আলো