• বুধবার ২৬ জুন ২০২৪ ||

  • আষাঢ় ১১ ১৪৩১

  • || ১৮ জ্বিলহজ্জ ১৪৪৫

বরগুনার আলো
ব্রেকিং:
ড. ইউনূস কর ফাঁকি দিয়েছেন, তা আদালতে প্রমাণিত: প্রধানমন্ত্রী ‘শেখ হাসিনা দেশ বিক্রি করে না’ অভিন্ন নদীর টেকসই ব্যবস্থাপনা নিয়ে আলোচনা হয়েছে: প্রধানমন্ত্রী দুই দেশের পারস্পরিক সহযোগিতার পথ নিয়ে আলোচনা করেছি সরকার শিক্ষা ব্যবস্থাকে বহুমাত্রিক করেছে: প্রধানমন্ত্রী অনেক হিরার টুকরা ছড়িয়ে আছে, কুড়িয়ে নিতে হবে বারবার ভস্ম থেকে জেগে উঠেছে আওয়ামী লীগ: শেখ হাসিনা টেকসই ভবিষ্যত নিশ্চিত করতে যৌথ দৃষ্টিভঙ্গিতে সম্মত: প্রধানমন্ত্রী গণতন্ত্র রক্ষায় আ. লীগ নেতাকর্মীদের সর্বদা প্রস্তুত থাকার নির্দেশ আওয়ামী লীগের প্লাটিনাম জয়ন্তীতে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধা আওয়ামী লীগের প্লাটিনাম জয়ন্তী আজ ভারতের সঙ্গে বাংলাদেশের ১০ চুক্তি সই বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের ৭৫তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী আগামীকাল দিল্লির রাষ্ট্রপতি ভবনে শেখ হাসিনাকে রাজকীয় সংবর্ধনা হাসিনা-মোদী বৈঠক আজ সংলাপের মাধ্যমে বাণিজ্য প্রতিবন্ধকতা দূর করার আহ্বান বাংলাদেশ প্রতিবেশী দেশগুলোর বিনিয়োগকে অগ্রাধিকার দেয় বঙ্গবন্ধুর চার নীতি এবং বাংলাদেশের চার স্তম্ভ সুফিয়া কামালের সাহিত্যকর্ম নতুন প্রজন্মের প্রেরণার উৎস শুক্রবার ভারত যাচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী

মনোনয়ন ফরম নিতে আসা নেতাদের উপযুক্ত সম্মান দেওয়ার নির্দেশ

বরগুনার আলো

প্রকাশিত: ১৮ নভেম্বর ২০২৩  

দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে নৌকা প্রত্যাশী তৃণমূলের নেতাকর্মীদের উপযুক্ত সম্মান দিয়ে মনোনয়নপত্র হাতে তুলে দেওয়ার নির্দেশ দিয়েছেন আওয়ামী লীগ সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এ বিষয়ে মনোনয়নপত্র বিক্রি ও জমাদান কর্মকাণ্ডে সংশ্লিষ্ট নেতাদের নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে বলে জানিয়েছেন দলের হাইকমান্ড। দলটির নেতারা জানান, আমাদের নেত্রীর চাওয়া হলো, তৃণমূলের নেতাকর্মীরা যাতে মনোনয়ন ফরম কিনে উপযুক্ত সম্মানের সঙ্গে বের হতে পারে।

শুক্রবার (১৭ নভেম্বর) সকালে বঙ্গবন্ধু এভিনিউ আওয়ামী লীগ কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে মনোনয়ন ফরম বিক্রি ও জমাদানে সম্পৃক্ত নেতাদের সঙ্গে সমন্বিত সভা অনুষ্ঠিত হয়। ওই সভায় এমন নির্দেশনার কথা অবহিত করা হয়। সভায় আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুবউল আলম হানিফ, আ ফ ম বাহাউদ্দিন নাছিম, সাংগঠনিক সম্পাদক মির্জা আজম, এসএম কামাল হোসেন, শফিউল আলম চৌধুরী নাদেল, সুজিত রায় নন্দীসহ অন্যান্য কেন্দ্রীয় নেতারা উপস্থিত ছিলেন।

দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন উপলক্ষে দলের মনোনয়ন ফরম বিক্রি শুরু হচ্ছে। যা শনিবার (১৮ নভেম্বর) শুরু হয়ে মঙ্গলবার (২১ নভেম্বর) পর্যন্ত চলবে। প্রতিদিন সকাল ১০টা থেকে বিকাল ৪টা পর্যন্ত বঙ্গবন্ধু এভিনিউতে আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কার্যালয় থেকে ফরম সংগ্রহ ও জমা দেওয়া যাবে।

আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনা সকাল ১০টায় বঙ্গবন্ধু এভিনিউয়ে দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয় থেকে নিজের মনোনয়নপত্র সরাসরি কিনবেন। এর মধ্য দিয়ে দলের মনোনয়নপত্র সংগ্রহ ও জমাদানের কার্যক্রম আনুষ্ঠানিকভাবে উদ্বোধন করবেন তিনি। পরে অন্যান্য নেতাকর্মীদের জন্য ফরম সংগ্রহ ও জমাদান শুরু হবে।

এর আগে দলের এক বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে- মনোনয়ন পেতে আগ্রহী প্রার্থীদের আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কার্যালয় থেকে প্রশাসনিক বিভাগ অনুযায়ী সুনির্দিষ্ট বুথ থেকে দলীয় মনোনয়নের জন্য আবেদনপত্র সংগ্রহ এবং জমা দিতে হবে। কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের দ্বিতীয় তলায় ঢাকা, ময়মনসিংহ, সিলেট ও চট্টগ্রাম বিভাগ এবং তৃতীয় তলায় রংপুর, রাজশাহী, খুলনা ও বরিশাল বিভাগের মনোনয়নপত্র বিতরণ করা হবে। কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের নিচ তলায় সব বিভাগের মনোনয়নপত্র জমা নেওয়া হবে।

সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে আরও বলা হয়, আওয়ামী লীগের মনোনয়ন প্রত্যাশীদের কোনো ধরনের অতিরিক্ত লোকসমাগম ছাড়া প্রার্থী নিজে অথবা প্রার্থীর একজন যোগ্য প্রতিনিধির মাধ্যমে আবেদনপত্র সংগ্রহ ও জমা প্রদান করতে হবে। আবেদনপত্র সংগ্রহের সময় অবশ্যই প্রার্থীর জাতীয় পরিচয়পত্রের ফটোকপি সঙ্গে আনতে হবে এবং ফটোকপির ওপরে মোবাইল নম্বর ও বর্তমান সাংগঠনিক পরিচয়সহ ৩টি পদ সুস্পষ্টভাবে উল্লেখ করতে হবে। মঙ্গলবার (২১ নভেম্বর) বিকাল ৪টার মধ্যে মনোনয়ন ফরম জমা প্রদান করতে হবে।এছাড়াও অনলাইনে ফরম সংগ্রহ ও জমাদান করার ব্যবস্থা রাখা হয়েছে।

প্রসঙ্গত, সারাদেশ থেকে আগত মনোনয়ন প্রত্যাশীদের ফরম সংগ্রহ ও জামাদানের সময় বিপুল লোকসমাগম হয় এবং বিভিন্ন ধরনের হুড়োহুড়ির ঘটনাও ঘটে। তাই বিশৃঙ্খলা বা অনাকাক্ষিত ঘটনা এড়িয়ে তৃণমূল নেতাকর্মীদের সম্মানের সঙ্গে ব্যবহার করার নির্দেশনা দেওয়া হয়।

মনোনয়ন প্রত্যাশী ফরম সংগ্রহকারীদের জাতীয় পরিচয় দেখে বর্তমান সাংগঠনিক পদবি দেখার পাশাপাশি অন্যান্য পরিচয়গুলো নিশ্চিত হতে বলা হয়।

এ বিষয়ে সমন্বিত সভায় আ ফ ম বাহাউদ্দিন নাছিম জানান, অনুপ্রেবশকারীরা অনেক সময় অসৎ উদ্দেশে ফরম নিয়ে যায়। তারপর গণমাধ্যমে প্রকাশ করে এবং দলের ভাবমূর্তিকে ক্ষুণ্ন করার চেষ্টা করে। যেন বিতর্কিত অথবা জামায়াত-শিবির ফ্রিডম পার্টি অথবা নতুন কোন সংগঠন করে যার কোনো অস্তিত্ব নেই তারা এসে ফরম নিতে না পারে। বুথের দলনেতাসহ সবাইকে এ বিষয়ে খেয়াল রাখতে হবে। এ কারণে এবার দলীয়ভাবে সাংগঠনিক তিনটি পদের কথা বলা হয়েছে। এটি বুদ্ধিমত্তা দিয়ে যাচাইবাছাই করতে হবে।

বর্তমানে কোনো পদ, এমনকি কোনো সাংগঠনিক পরিচয় না থাকে সেক্ষেত্রে অবশ্যই দফতর থেকে অবহিত হয়ে তারপর ফরম বিক্রি করবেন বলেও নির্দেশনায় জানান তিনি। এ সময় তিনি জানান, মনোয়ন ফরম তুলতে আসা ব্যক্তি কোনো বিতর্কিত লোক কিনা? অনুপ্রবেশকারী কি না এ বিষয়ে নজর রাখতে হবে। যদি এ ধরনের কোনো সন্দেহের সৃষ্টি হয় তাহলে দফতরে অবহিত হয়ে ফরম বিক্রি করতে হবে।

পাশাপাশি টাকা গণনার ক্ষেত্রে বুথে কোনো মেশিন দেওয়া হবে না বলেও জানান নেতারা। এছাড়া মনোনয়ন বিক্রির সময় কেউ যেন জাল নোট দিতে না পারে সেদিকেও খেয়াল রাখার নির্দেশনা দেওয়া হয়।

নেতারা আরও জানান, জেলা-উপজেলা থেকে যারা মনোনয়ন নিতে আসে তাদের অধিকাংশকে চেনা যায় এবং না চিনতে পারলেও বুদ্ধিমত্তা দিয়ে কৌশলে জেনে নিতে হবে। এ বিষয়ে দায়িত্বশীল ভূমিকা পালন করতে হবে।

নেতারা বলেন, এরা আমাদের পার্টির নেতা। এই নেতারা আমাদের দলের জন্য অনেক গুরুত্বপূর্ণ। সেক্ষেত্রে যতটুকু মর্যাদা তারা পান তার চেয়ে বেশি সস্মান দেখাতে হবে। সম্মানটা দেখালে তারা খুশি হবে। ওনারা আসবে কয়েকদিনের জন্য। তারপর আবার এলাকায় চলে যাবে। যারা তৃণমূল থেকে আসবে তাদেরকে সম্মানটা অবশ্যই দেখাতে হবে। তারা ভুল করলে সহ্য করতে হবে। তারা রাগ হলে আপনাদের ঠান্ডা হতে হবে। এই বিষয়ে কোনো টিমের কোনো সদস্যের কাছ কষ্ট পেয়েছে এটি আমরা শুনতে চাই না। এটা কিন্তু আওয়ামী লীগ সভাপতির নির্দেশনা।

আ ফ ম বাহাউদ্দিন নাছিম বলেছেন, আমার তৃণমূলের প্রতিটি নেতাকর্মী যেন সম্মানের সঙ্গে বের হতে পারে, এটিকে মাথায় রেখে কাজ করতে হবে। সেটি যেন ভুলেভরা না হয়।

আওয়ামী লীগের দফতর সম্পাদক ব্যারিস্টার বিপ্লব বড়ুয়া বুথের সদস্যদের দায়িত্বশীল হয়ে কাজ করার আহ্বান জানান। একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে প্রায় চার কোটি টাকার মনোনয়ন ফরম বিক্রি হয়েছিল বলেও অবহিত করেন। এবার আগ্রহী আরও বাড়তে পারে এবং ফরমের দাম বৃদ্ধি করা হয়েছে। তা বিবেচনা নিয়ে টাকা সংগ্রহ থেকে সবকিছুতে সতর্ক ভূমিকা পালন করার আহ্বান জানান দফতর সম্পাদক।

বরগুনার আলো