• বৃহস্পতিবার ২৯ ফেব্রুয়ারি ২০২৪ ||

  • ফাল্গুন ১৫ ১৪৩০

  • || ১৭ শা'বান ১৪৪৫

বরগুনার আলো
ব্রেকিং:
বিশ্বের সম্ভাব্য সকল স্থানে রপ্তানি বাজার ছড়িয়ে দেয়ার আহ্বান বাংলাদেশ ও ভারতের মধ্যে পারস্পরিক সহযোগিতা জরুরি গভীর সমুদ্র থেকে গ্যাস উত্তোলনের সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার পুলিশ জনগণের বন্ধু, সে কথা মাথায় রেখেই দায়িত্ব পালন করতে হবে অপরাধের ধরন বদলাচ্ছে, পুলিশকেও সেভাবে আধুনিক হতে হবে পুলিশ সপ্তাহ শুরু, উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী আইনশৃঙ্খলা সমুন্নত রাখতে পুলিশ নিরলস প্রচেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে দেশপ্রেম ও পেশাদারিত্বের পরীক্ষায় বারবার উত্তীর্ণ হয়েছে পুলিশ জনগণের আস্থা অর্জন করলে ভোট পাবেন: জনপ্রতিনিধিদের প্রধানমন্ত্রী জনপ্রতিনিধির মাধ্যমে উন্নয়ন কাজের ব্যবস্থাটা আমরা নিয়েছিলাম কেউ যেন ভুয়া ক্লিনিক-চিকিৎসকের দ্বারা প্রতারিত না হন: রাষ্ট্রপতি স্থানীয় সরকার বিভাগে বাজেট বরাদ্দ ৬ গুণ বেড়েছে: প্রধানমন্ত্রী স্থানীয় সরকারকে মাটি-মানুষের সঙ্গে নিবিড় সম্পর্ক গড়তে হবে শবে বরাতের মাহাত্ম্যে উদ্বুদ্ধ হয়ে দেশের কাজে আত্মনিয়োগের আহ্বান সমাজের অসহায়, দরিদ্র মানুষের সহায়তায় এগিয়ে আসতে হবে দেশের মানুষের জন্য ন্যায়বিচার নিশ্চিত করতে হবে বিচারকদের ক্ষমতার অপব্যবহার রোধকল্পে খেয়াল রাখার আহ্বান মিউনিখ সফরে বাংলাদেশের অঙ্গীকার বলিষ্ঠরূপে প্রতিফলিত হয়েছে পবিত্র রমজানে নিত্যপণ্যের সংকট হবে না: প্রধানমন্ত্রী প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে ইউরোপীয় কমিশনের প্রেসিডেন্টের অভিনন্দন

হত্যা মামলার আসামিসহ ৪১ রোহিঙ্গা গ্রেপ্তার

বরগুনার আলো

প্রকাশিত: ২৯ অক্টোবর ২০২২  

উখিয়ার রোহিঙ্গা ক্যাম্পে অভিযান চালিয়ে বিভিন্ন হত্যা মামলার আসামিসহ বিভিন্ন অপরাধ কার্যক্রমের সঙ্গে জড়িত ৪১ জনকে গ্রেপ্তার করেছে আর্মড পুলিশ ব্যাটালিয়ান (এপিবিএন)।

শুক্রবার (২৮ অক্টোবর) রাত ১২টার দিকে রোহিঙ্গা ক্যাম্পের ১৩, ১৮, ১৯, ১৭, ২০ ও ২০ এক্সটেনশনে এ অভিযান চালানো হয়। ৮ এপিবিএন-এর উদ্যোগে ১৪ ও ১৬ এপিবিএন ও জেলা পুলিশ অভিযানে অংশ নেয়।

শনিবার (২৯ অক্টোবর) সকাল ১০টার দিকে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন ৮ এপিবিএনের সহকারী পুলিশ সুপার মো. ফারুক আহমেদ।

ফারুক আহমেদ জানান, ৮ এপিবিএন এই বিশেষ অভিযানকে ‘অপারেশন রুট আউট’ নামকরণ করে। ক্যাম্প এলাকার অভ্যন্তরে অভিযান পরিচালনার সময় যাতে কোনো অপরাধী ক্যাম্পের বাইরে পালিয়ে যেতে না পারে, সেজন্য ক্যাম্পের সীমান্তে জেলা পুলিশ সদস্যরা মোতায়েন ছিলেন।

তিনি আরও জানান, রোহিঙ্গা ক্যাম্প এলাকায় আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতি স্বাভাবিক রাখা এবং দুষ্কৃতিকারীদের নির্মূল করার লক্ষ্যে পরিচালিত অভিযান তদারকি করেন ৮ আর্মড পুলিশ ব্যাটালিয়নের কমান্ডিং অফিসার মো. আমির জাফর। অভিযানে ৮, ১৪ ও ১৬ এপিবিএন এবং জেলা পুলিশ অংশগ্রহণ করে।

ফারুক আহমেদ আরও জানান, অভিযানে ৮ এপিবিএনের দায়িত্বাধীন রোহিঙ্গা ক্যাম্পসমূহ থেকে ৪১ জন অপরাধীকে গ্রেপ্তার করা হয়। এদের মধ্যে ৬ জন হত্যা মামলার আসামি। মাদকসহ গ্রেপ্তার করা হয় ৩ জনকে। অন্যান্য মামলার আসামি ৪ জন। আটককৃতদের মধ্যে বিভিন্ন অপরাধের দায়ে মোবাইল কোর্টে সাজাপ্রাপ্ত হন ২৮ জন।

গ্রেপ্তারকৃত হত্যা মামলার আসামি রোহিঙ্গারা হলেন- ক্যাম্প ১৮, ব্লক-এল/১৮ এর মৃত আবুল হোসেনের ছেলে সৈয়দ আলম(৫৫)। ব্লক/১৭ এর মৃত আবদুল মজিদের ছেলে জুনায়েদ (২৫)। আবু তালেবের ছেলে মছন আলী (২০) মৃত মোস্তাক আহমদের ছেলে মো. ওসমান (৩৪)। ক্যাম্প ১৩, ব্লক- ডি/৩ এর জাহিদ হোসেনের ছেলে মো. তাহের ওরফে লালা ফুতিয়া (২৫)। ব্লক- এফ/৩ এর মৃত আমির হামজার ছেলে সোয়াইব (২৫)।

মাদকসহ গ্রেপ্তারকৃতরা হলেন- ক্যাম্প ১৩, ব্লক-জি/২ এর মৃত নুর আহমদের ছেলে দিল হোসাইন (৪৪)। ব্লক-ই/৪ এর মৃত কবির আহমদের ছেলে মোহাম্মদ জোবায়ের (৩৯) ও ক্যাম্প ১৮, ব্লক-এইচ/৬২ এর মৃত এজাহার মিয়ার ছেলে শফিউল্লাহ (৫৩)।

বরগুনার আলো