• বুধবার ২৯ মে ২০২৪ ||

  • জ্যৈষ্ঠ ১৫ ১৪৩১

  • || ২০ জ্বিলকদ ১৪৪৫

বরগুনার আলো
ব্রেকিং:
শান্তিরক্ষা-শান্তি বিনির্মাণ প্রচেষ্টায় বাংলাদেশ প্রতিশ্রুতিবদ্ধ বাংলাদেশ বিশ্ব শান্তি রক্ষায় এক অনন্য নাম : রাষ্ট্রপতি রাত ২টা পর্যন্ত নিজেই দুর্যোগ মনিটর করেছেন প্রধানমন্ত্রী রিমালে ক্ষতিগ্রস্ত বেড়িবাঁধ দ্রুত মেরামতের নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর বৃহস্পতিবার পটুয়াখালী যাচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী আবহাওয়া স্বাভাবিক হলে ক্ষতিগ্রস্ত এলাকায় যাবেন শেখ হাসিনা ‘স্মার্ট বাংলাদেশ’ গড়ার অগ্রযাত্রায় মার্কিন ব্যবসায়ীদের সহযোগিতা চেয়েছেন প্রধানমন্ত্রী বঙ্গবন্ধুর জীবনীভিত্তিক ডকুমেন্টারি ‘কলকাতায় মুজিব’ অবলোকন ঢাকাবাসীকে সুন্দর জীবন উপহার দিতে কাজ করছে সরকার : প্রধানমন্ত্রী ঘূর্ণিঝড় রেমাল : ১০ নম্বর মহাবিপদ সংকেত জারি ধর্মনিরপেক্ষতা মানে ধর্মহীনতা নয়: প্রধানমন্ত্রী সকালেই প্রবল ঘূর্ণিঝড়ে রূপ নেবে রেমাল, আছড়ে পড়বে মধ্যরাতে ঘূর্ণিঝড় রেমাল : পায়রা ও মোংলা বন্দরে ৭ নম্বর বিপদ সংকেত ঢাকায় কোনো বস্তি থাকবে না, দিনমজুররাও ফ্ল্যাটে থাকবে অগ্নিসংযোগকারীদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা গ্রহণের হুঁশিয়ারি বঙ্গবাজারে বিপণী বিতানসহ চারটি উন্নয়ন প্রকল্পের উদ্বোধন নজরুলের বলিষ্ঠ লেখনী মানুষকে মুক্তি সংগ্রামে উদ্দীপ্ত করেছে জোটের শরিক দলগুলোকে সংগঠিত ও জনপ্রিয় করতে নির্দেশ সন্ধ্যায় ঘূর্ণিঝড়ে রূপ নিতে পারে রেমাল বঙ্গবাজার বিপনী বিতানসহ ৪ প্রকল্প উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী

কাঁচা আমের আচার তৈরির সহজ রেসিপি

বরগুনার আলো

প্রকাশিত: ২৪ এপ্রিল ২০২৪  

বর্তমানে কাঁচা আমের আচার বাজারেই কিনতে পাওয়া যায়। বোতলে করে কাঁচা আমের আচার বিক্রি করা হয়। এতে অবশ্য শরীরের উপকার কিছু হয় না। কারণ এ ধরনের আচারে অতিরিক্ত সুগার থাকে। এটি শরীরের জন্য ক্ষতিকর। আবার দীর্ঘদিন এই আচার সংরক্ষণ করতে প্রচুর প্রিজারভেটিভও মেশানো হয়। ফলে শরীরের ক্ষতি হতে পারে।

কাঁচা আমের আচার তৈরির উপকরণ

১. কাঁচা আম ৫-৬টি
২. আস্ত সরিষা
৩. মৌরি
৪. মেথি
৫. জিরা
৬. রসুন বাটা
৭. আদা বাটা
৮. লাল মরিচের গুঁড়া
৯. হলুদ গুঁড়া
১০. লবণ পরিমাণমতো
১১. সরিষার তেল ও
১২ চিনি।

কাঁচা আমের আচার তৈরির পদ্ধতি

প্রথমে একটি পাত্রে কাঁচা আমগুলো খোসা ছাড়িয়ে নিয়ে ছোট টুকরো করে কেটে নিতে হবে। এবার ভালো করে ধুয়ে পানি ঝরিয়ে এক চামচ লবণ মিশিয়ে আলাদা করে রাখতে হবে। অন্তত চার পাঁচ ঘণ্টা এভাবে রাখতে হবে।

লবণ মাখানো থাকলে আম থেকে বাড়তি পানি বেরিয়ে যাবে। ওই পানি ফেলে দিতে হবে। এবার ব্লেন্ডারে আচার তৈরির মসলা বানাতে হবে।

এজন্য আস্ত সরিষা, মৌরি, মেথি, জিরা ভালো করে মিক্স করে নিতে হবে। এবার একটি কাচের পাত্রে আমের টুকরো দিয়ে তার মধ্যে রসুন বাটা, আদা বাটা, লাল মরিচের গুঁড়া, হলুদ গুঁড়া, বেটে রাখা মসলা দিতে হবে।

পরে লবণ, সরিষার তেল,অল্প চিনি দিয়ে ভালো করে মিশিয়ে নিন। এবার কাচের বয়ামের মুখ বন্ধ করে রেখে দিন রোদে। টানা সাতদিন এটি রোদে রাখতে হবে।

প্রতিদিন রোদে দেওয়ার আগে নেড়ে নিতে হবে ভেতরের আমগুলো। সাতদিন এভাবে রোদে থাকলেই তৈরি হয়ে যাবে কাঁচা আমের আচার।
আচার তৈরি হলে এটিকে সংরক্ষণও করতে হয় সঠিক নিয়মে। একটি ঠান্ডা ও অন্ধকার জায়গায় আচার সংরক্ষণ করতে হবে। ফ্রিজেও আচার রাখতে পারেন। অন্তত এক বছর এভাবে আচার সংরক্ষণ করা যায়।

বরগুনার আলো