• মঙ্গলবার ২৫ জুন ২০২৪ ||

  • আষাঢ় ১১ ১৪৩১

  • || ১৭ জ্বিলহজ্জ ১৪৪৫

বরগুনার আলো
ব্রেকিং:
ড. ইউনূস কর ফাঁকি দিয়েছেন, তা আদালতে প্রমাণিত: প্রধানমন্ত্রী ‘শেখ হাসিনা দেশ বিক্রি করে না’ অভিন্ন নদীর টেকসই ব্যবস্থাপনা নিয়ে আলোচনা হয়েছে: প্রধানমন্ত্রী দুই দেশের পারস্পরিক সহযোগিতার পথ নিয়ে আলোচনা করেছি সরকার শিক্ষা ব্যবস্থাকে বহুমাত্রিক করেছে: প্রধানমন্ত্রী অনেক হিরার টুকরা ছড়িয়ে আছে, কুড়িয়ে নিতে হবে বারবার ভস্ম থেকে জেগে উঠেছে আওয়ামী লীগ: শেখ হাসিনা টেকসই ভবিষ্যত নিশ্চিত করতে যৌথ দৃষ্টিভঙ্গিতে সম্মত: প্রধানমন্ত্রী গণতন্ত্র রক্ষায় আ. লীগ নেতাকর্মীদের সর্বদা প্রস্তুত থাকার নির্দেশ আওয়ামী লীগের প্লাটিনাম জয়ন্তীতে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধা আওয়ামী লীগের প্লাটিনাম জয়ন্তী আজ ভারতের সঙ্গে বাংলাদেশের ১০ চুক্তি সই বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের ৭৫তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী আগামীকাল দিল্লির রাষ্ট্রপতি ভবনে শেখ হাসিনাকে রাজকীয় সংবর্ধনা হাসিনা-মোদী বৈঠক আজ সংলাপের মাধ্যমে বাণিজ্য প্রতিবন্ধকতা দূর করার আহ্বান বাংলাদেশ প্রতিবেশী দেশগুলোর বিনিয়োগকে অগ্রাধিকার দেয় বঙ্গবন্ধুর চার নীতি এবং বাংলাদেশের চার স্তম্ভ সুফিয়া কামালের সাহিত্যকর্ম নতুন প্রজন্মের প্রেরণার উৎস শুক্রবার ভারত যাচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী

ভূমিকম্পে মরক্কো যেন মৃত্যুপুরী, প্রাণহানি বেড়ে ২ হাজার

বরগুনার আলো

প্রকাশিত: ১০ সেপ্টেম্বর ২০২৩  

মরক্কোর মধ্যাঞ্চলে শক্তিশালী ভূমিকম্পের পর সময়ের সঙ্গে সঙ্গে বাড়ছে মৃতের সংখ্যা। শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত মৃতের সংখ্যা ছাড়িয়েছে দুই হাজার, যা আরও বাড়তে পারে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে। এদিকে, এ ঘটনায় তিন দিনের শোক ঘোষণা করেছে দেশটি।

মরক্কোর স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের বরাত দিয়ে সংবাদমাধ্যম সিএনএন জানিয়েছে, ভূমিকম্পে অন্তত ২ হাজার ১২ জন মারা গেছেন। এছাড়া আহতদের মধ্যে আশঙ্কাজনক অবস্থায় আছেন আরও প্রায় দেড় হাজার মানুষ।

যুক্তরাষ্ট্রের ভূতাত্ত্বিক জরিপ সংস্থা-ইউএসজিএস জানিয়েছে, ভূমিকম্পটির উৎপত্তিস্থল ছিল মারাক্কেশ শহর থেকে ৭১ কিলোমিটার দূরে এটলাস পর্বতমালা এলাকার ১৮.৫ কিলোমিটার গভীরে।
এদিকে, ভূমিকম্পের পর মরক্কো তিন দিনের শোক পালন করবে বলে জানিয়েছে দেশটির রয়্যাল প্যালেস। সব সরকারি ভবনে পতাকা অর্ধনমিত রাখা হবে।

স্থানীয় সময় শুক্রবার (৮ সেপ্টেম্বর) রাত ১১টার দিকে দেশটির মধ্যাঞ্চলে ৬.৮ মাত্রার শক্তিশালী ভূমিকম্প আঘাত হানে। একে শতাব্দীর সবচেয়ে ভয়াবহ ভূমিকম্প বলে অভিহিত করা হচ্ছে।
 
যুক্তরাষ্ট্রের ভূতাত্ত্বিক জরিপ সংস্থা-ইউএসজিএস জানিয়েছে, ভূমিকম্পটির উৎপত্তিস্থল ছিল মারাক্কেশ শহর থেকে ৭১ কিলোমিটার দূরে এটলাস পর্বতমালা এলাকার ১৮.৫ কিলোমিটার গভীরে।
 
দেশটির কর্মকর্তারা বলছেন, অধিকাংশ মানুষ মারা গেছেন দুর্গম পাহাড়ি এলাকায়। উদ্ধার অভিযানে ওই অঞ্চলে পৌঁছানোও বেশ কঠিন।

স্থানীয় সময় শুক্রবার (৮ সেপ্টেম্বর) রাত ১১টার দিকে মরক্কোর মধ্যাঞ্চলে ৬.৮ মাত্রার শক্তিশালী ভূমিকম্প আঘাত হানে। একে শতাব্দীর সবচেয়ে ভয়াবহ ভূমিকম্প বলে অভিহিত করা হচ্ছে।
সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ক্ষতিগ্রস্ত ভবন ও রাস্তায় ধ্বংসস্তূপের ভিডিও ছড়িয়ে পড়েছে। আন্তর্জাতিক গণমাধ্যমেও প্রকাশ করা হয়েছে ধ্বংসযজ্ঞের ছবি ও ভিডিও। মারাক্কেশ শহরের পুরনো অংশে কিছু ভবন ধসে পড়েছে বলে সেখানকার একজন অধিবাসী বার্তা সংস্থা রয়টার্সকে জানিয়েছেন।

ভয়াবহ এ ভূমিকম্পের পর মরক্কোর প্রতি সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দিয়েছে পাশের দেশ আলজেরিয়া। দেশটিতে যাতে মানবিক সহায়তা পাঠানো সহজ হয়, সেজন্য আলজেরিয়া তাদের আকাশপথ ব্যবহার করতে দেবে বলে ঘোষণা দিয়েছে।

বরগুনার আলো